corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্কুলে ৪ বছরের শিশুকে যৌন হেনস্থা, আগে থেকেই জানত স্কুল কর্তৃপক্ষ!

স্কুলে ৪ বছরের শিশুকে যৌন হেনস্থা, আগে থেকেই জানত স্কুল কর্তৃপক্ষ!
নিজস্ব চিত্র
  • Share this:

 #কলকাতা: স্কুলের শৌচালয়ে রক্তের দাগ। সেই দাগ দেখে ছাত্রীদের প্রশ্নও করেছিলেন স্কুলের শিক্ষিকারা । জবাবটা অবশ্য জানা ছিল না নার্সারির ছাত্রীদের। বিষয়টিও চেপে যায় স্কুল কর্তৃপক্ষ। জিডি বিড়লার এক অভিভাবকের বক্তব্যে উঠে এল এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য।

ইটিভি নিউজ বাংলার ক্যামেরার সামনে বিস্ফোরক বক্তব্য এক মায়ের। জিডি বিড়লায় নার্সারিতে পড়ে তাঁর মেয়ে । বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ি ফিরে মাকে এই কথাগুলোই জানায় সে। তার বক্তব্যে পরিস্কার, শৌচালয় রক্তের দাগ আগেই দেখতে পেয়েছিলেন স্কুল কর্মীরা। সে বিষয়ে বাচ্চাদের জিজ্ঞাসাও করা হয় ক্লাসে। অথচ নির্যাতিতা শিশুর ঘটনা সামনে আসার পর বিষয়টি জানা নেই বলে দাবি করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। তাহলে কী সব জেনেও দোষীদের আড়াল করতে চেয়েছিল স্কুল কর্তৃপক্ষ? ঠিক কি ঘটেছিল বৃহস্পতিবার ?

ছুটির পর স্কুল থেকে আনতে গিয়ে মেয়ের চোখমুখের অবস্থা দেখে অবাক হয়ে যান মা। মেয়েকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে সামনে আসে আসল ঘটনা ৷ চিকিৎসক জানান, ইউরিনারি ট্রাক্ট সংক্রমণ নয়, নির্যাতনের কারণেই রক্তক্ষরণ হচ্ছে শিশুটির।

বাচ্চাটি জানায়, চকোলেটের লোভ দেখিয়ে স্কুলের শৌচালয়ে নিয়ে গিয়ে তাকে শারীরিক নির্যাতন করেছে দুই পিটি টিচার। দুজনের ছবি দেখে চিনিয়ে দেওয়ার পর গ্রেফতার করা হয় দুই শিক্ষককে। অথচ প্রিন্সিপালের রিপোর্টে বলা হয় অন্য কথা। সোমবার অন্য এক অভিভাবকের বক্তব্যেই পরিস্কার , বিষয়টি আদৌ অজানা ছিল না শিক্ষিকাদের।

স্কুলের অধ্যক্ষকে ডেকে পাঠিয়েছে লালবাজার। জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাঁকে। তার আগেই ওই অভিভাবকের বক্তব্যে আরও বিপাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

First published: December 5, 2017, 11:10 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर