• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BEFORE BUSSINESS SUMMIT USA AMBASSADOR WILL MEET CM MAMATA BANERJEE TOMMORROW THERE ARE SOME INVESTMENT POSSIBILITIES

বিজনেস সামিটের আগেই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

জানুয়ারিতে বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটের আগেই কলকাতা সফরে আসছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। আগামিকাল দুপুর তিনটেয় নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড ভার্মার।

জানুয়ারিতে বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটের আগেই কলকাতা সফরে আসছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। আগামিকাল দুপুর তিনটেয় নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড ভার্মার।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: জানুয়ারিতে বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটের আগেই কলকাতা সফরে আসছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। আগামিকাল অর্থাৎ বুধবার দুপুর তিনটেয় নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড ভার্মার।

    নবান্ন সূত্রে খবর, রিচার্ড-মমতা বৈঠকে রাজ্যে বিনিয়োগের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে । রাজ্যে বিনিয়োগের বিষয়টি মার্কিন রাষ্ট্রদূতের কাছে তুলে ধরা হবে বলে সূত্রের খবর।

    আগামী জানুয়ারি মাসেই বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটে মার্কিন প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এই সাক্ষাৎ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। মার্কিন মুলুকে যাওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন ভার্মা। যদিও, নবান্ন ও মার্কিন প্রশাসন একে সৌজন্য সাক্ষাৎ বলেই জানাচ্ছে।

    এর আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিউনিখ সফরের সৌজন্যে রাজ্যে আসছে ভলভোর লগ্নি। রাজ্যে ভলভোর ইনট্রিগ্রেটেড হাব তৈরিতে ২৫ একর জমিও বরাদ্দ করছে রাজ্য। সিঙ্গুর পর্বের মধ্যেই এই প্রথম রাজ্যে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত ভলভোর মতো আন্তর্জাতিক গাড়ি সংস্থার।

    সিঙ্গুরের মঞ্চ থেকে টাটা ও BMW-এর মতো সংস্থাকে রাজ্যে বিনিয়োগের জন্য আহবান জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ একইসঙ্গে জানান, গোয়ালতোড়ের ১০০০ একর জমি শিল্পের জন্য তৈরি রয়েছে ৷ মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই তোড়জোড় শুরু পশ্চিম মেদিনীপুরের ভগ্নপ্রায় এক বীজ খামারকে কেন্দ্র করে। যে জমিই শিল্পের জন্য টাটা বা বিএমডব্লিউকে দিতে চান মুখ্যমন্ত্রী।জমি আন্দোলনকে কেন্দ্র করে রাজ্যের বিরুদ্ধে যে সমালোচনা দেখা দিয়েছিল তাও কাটবে বলেই আশাবাদী প্রশাসন ও স্থানীয়রা।

    First published: