• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ১৭ দিন বন্ধ থাকার পর অবশেষে খুলল ব্যাঙ্ক, দীর্ঘ লাইনে ঠায় দাঁড়িয়ে গ্রাহকরা

১৭ দিন বন্ধ থাকার পর অবশেষে খুলল ব্যাঙ্ক, দীর্ঘ লাইনে ঠায় দাঁড়িয়ে গ্রাহকরা

আজকের পর ফের শহরে ব্যাঙ্ক পরিষেবা চালু হবে আগামী সোমবার | যার জেরে  ব্যাঙ্কের সামনে লাইন আরও দীর্ঘ হতে থাকে |

আজকের পর ফের শহরে ব্যাঙ্ক পরিষেবা চালু হবে আগামী সোমবার | যার জেরে ব্যাঙ্কের সামনে লাইন আরও দীর্ঘ হতে থাকে |

আজকের পর ফের শহরে ব্যাঙ্ক পরিষেবা চালু হবে আগামী সোমবার | যার জেরে ব্যাঙ্কের সামনে লাইন আরও দীর্ঘ হতে থাকে |

  • Share this:

Debasish Chakraborty

#হাওড়া: দীর্ঘ ১৭ দিন পর হাওড়া পুরসভা এলাকায় খুললো ব্যাঙ্ক । গত ২০ এপ্রিল হাওড়া জেলা প্রশাসন শহরের অতি স্পর্শকাতর এলাকায় ব্যাঙ্ক বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। ১৯ এপ্রিল ব্যাঙ্ক কার্যক্রমের সময় অতিক্রম করার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়ায় সমস্যায় পরে গ্রাহকরা | ২০ এপ্রিল সকালে ব্যাঙ্কের সামনে লাইন দিয়ে অপেক্ষায় থাকে গ্রাহকরা, সেদিনই পুলিশ ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষর তরফে ব্যাঙ্ক বন্ধের কথা জানিয়ে দেওয়া হয় | মূলত ব্যাঙ্কের কর্মীরা অতি স্পর্শকাতর এলাকায় কাজ করতে ভয় পাচ্ছিলেন । অন্য দিকে, ব্যাঙ্কের সামনে মানুষের ভিড় হচ্ছিল অনেক বেশি। সেক্ষত্রে করোনা ভাইরাস সাধারণের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই হাওড়ার জেলাশাসক রাতারাতি ব্যাঙ্ক বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন |

তারপর ধীরে ধীরে  গোটা হাওড়া শহরজুড়ে তৈরী হয় কোন্টাইনমেন্ট জোন । তার সাথে সাথে শহরের সব ব্যাঙ্ক পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয় | এরপর থেকে সমস্যায় পড়েন মূলত পেনশন ভোগীরা | মাসের প্রথমেও টাকা তুলতে না পেরে অনিশ্চিত জীবনের দিকে এগিয়ে যেতে থাকেন অনেক বৃদ্ধ-বৃদ্ধা । বন্ধ হয়ে যায় ওষুধ যোগানও, বার বার ব্যাঙ্ক ও গ্রাহকরা স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে গিয়ে ব্যাঙ্ক খোলার অনুরোধ জানানো হয় । অন্য দিকে ব্যাঙ্কের তরফে হাওড়ার জেলাশাসকের কাছে লিখিত আবেদন জানানো হয় যে এক সপ্তাহের জন্য ব্যাঙ্ক খোলা হোক । শুধুমাত্র পেনশন ভোগীদের জন্য । সোমবার থেকে দফায় দফায় পুলিশ ও সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে অবশেষে ঠিক হয় হাওড়া শহরের কোন্টাইনমেন্ট জোন নয়, এমন এলাকাগুলিতে শুধু মাত্রা ব্যাঙ্ক খোলা হবে । শুধু পেনশনভোগী নয়, সাধারণ গ্রাহকরাও এই পরিষেবা পাবেন | মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সকল ব্যাঙ্ক আধিকারিকদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয় |

কম  সংখ্যক কর্মী নিয়ে ও গ্রাহকদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে করতে হবে কাজ |   আজ বুধবার থেকে নির্দিষ্ট সময়েই খোলে ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক খোলার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ব্যাঙ্কের সামনে লাইন পড়তে থাকে। বেশিরভাগ ব্যাঙ্কের সামনেই দেখা যায়  বৃদ্ধ বৃদ্ধাদের | ব্যাঙ্কের কাজ যাতে দ্রুত হয়, তার জন্যই ব্যাঙ্কের তরফে একজন ভলেন্টিয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। লাইনে দাঁড়ানো গ্রাহকদের দরকারি স্লিপ তাঁদের হাতে দিয়ে দেওয়া হয় ।  এমনকি বয়স্ক মানুষদের টাকা তোলার স্লিপও লিখে দেওয়া হয় | তবে আজ বুধবার ব্যাঙ্ক খুললেও কাল থেকে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাঙ্কে হলিডে থাকায় চারদিন ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে | অর্থাৎ আজকের পর ফের শহরে ব্যাঙ্ক পরিষেবা চালু হবে আগামী সোমবার |

যার জেরে  ব্যাঙ্কের সামনে লাইন আরও দীর্ঘ হতে থাকে | অন্যদিকে শিবপুরের কিছু ব্যাঙ্ক খুললেও দু’ঘন্টা পর পুলিশ গিয়ে সেই ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দেওয়া হয়, পুলিশের দাবি ব্যাঙ্কগুলি কনটেন্টমেন্ট জোনের বাইরে থাকলেও গ্রহকরা বেশির ভাগই কনটেন্টমেন্ট এলাকার হওয়ায় সংক্রমণের একটা আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছিল | এবং ভিড়ও অতিরিক্ত হয়ে যাওয়ায় এই এলাকার ব্যাঙ্ক বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় |

Published by:Simli Raha
First published: