corona virus btn
corona virus btn
Loading

লোকাল ট্রেন ও মেট্রো চালুর দাবি ব্যাঙ্ক কর্মীদের

লোকাল ট্রেন ও মেট্রো চালুর দাবি ব্যাঙ্ক কর্মীদের
Representational Image

দাবি যোগাযোগ ব্যবস্থা মসৃণ না হলে পরিষেবায় ব্যাঘাত ঘটবে। ইতিমধ্যেই তাদের বিভিন্ন শাখায় ব্যাঙ্ক কর্মীরা যথাযথ সময়ে পৌঁছতে পারছেন না।

  • Share this:

#কলকাতা: এবার ট্রেন চালানোর দাবিতে সরব হল ব্যাঙ্ক অফিসারদের সংগঠন। তাদের দাবি যোগাযোগ ব্যবস্থা মসৃণ না হলে পরিষেবায় ব্যাঘাত ঘটবে। ইতিমধ্যেই তাদের বিভিন্ন শাখায় ব্যাঙ্ক কর্মীরা যথাযথ সময়ে পৌঁছতে পারছেন না। যার ফলে আসল সমস্যায় পড়তে চলেছেন গ্রাহকরা।

লকডাউনের প্রথম থেকেই ব্যাঙ্কিং পরিষেবা স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা হয়েছে দেশজুড়ে। ব্যতিক্রম নয় পশ্চিমবঙ্গ। মাঝে মাঝে পরিষেবা বন্ধ রাখলেও মস্ত বড় ব্যাঘাত কিছু ঘটেনি। বিশেষ করে কেন্দ্রীয় স্কিমের টাকা নেওয়ার জন্যে ব্যাঙ্কে রাজ্য জুড়ে লম্বা লাইন দেখা গিয়েছে। এবার এই পরিষেবা দিতে গিয়ে ভুগতে হচ্ছে তাদের সহকর্মীদের। এমনটাই অভিযোগ আনল অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্কিং অফিসার্স কনফেডারেশন। সংগঠনের অভিযোগ, প্রত্যেক কর্মীর পক্ষে ব্যক্তিগত গাড়িতে আসা যাওয়া করা সম্ভব নয়।

বিশেষ করে জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। বাস পরিষেবা চালু করা হলেও সকলে সেই পরিষেবার আওতায় পড়ছেন না। এই অবস্থায় অফিসার সংগঠন চাইছে অবিলম্বে রেল পরিষেবা চালু করা হোক। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় দাস জানাচ্ছেন, "রেল ছাড়া যাতায়াত করা চরম অসুবিধা। লোকাল ট্রেন ও মেট্রো চালু করা হোক। তা না হলে এই আমাদের সহকর্মীরা যাতায়াত করতে পারবেন না।"

ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশনের তরফ থেকে হাওড়া ও শিয়ালদহ ডিভিশনের এডিআরএম-এর সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। ট্রেন চালানোর বিষয়ে তারা কথা বলেছেন। যদিও রেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে রাজ্য রেল চালানো নিয়ে কোনও আবেদন করেনি। ফলে লোকাল ট্রেন বা মেট্রো চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা এখনই নেই। ব্যাংক ইউনিয়নের বক্তব্য,তাদের দুই সহকর্মী অপটু ভাবে গাড়ি চালাতে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন। পা ভেঙেছে। এই অবস্থায় তাদের বক্তব্য, ভাল পরিষেবা পেতে গেলে তাদেরও সুবিধা দিতে হবে৷ সাহায্য চেয়ে তারা দ্বারস্থ হচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রীর। একই সাথে তাদের দাবি, রেল চালু না হলে স্টাফ স্পেশালে উঠতে দেওয়া হোক। যদিও তাতে রাজি নয় রেল।

আবীর ঘোষাল

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: June 25, 2020, 6:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर