দিলীপের মান ভাঙানো মন্তব্যে বাড়ল বিতর্ক, পরিষদীয় বৈঠকে ডাক পেলেন না বৈশাখী

শোভনের অপেক্ষায় প্রায় ৫০ মিনিট রাস্তায়

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 21, 2019 02:06 PM IST
দিলীপের মান ভাঙানো মন্তব্যে বাড়ল বিতর্ক, পরিষদীয় বৈঠকে ডাক পেলেন না বৈশাখী
Photo -Video Grab
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 21, 2019 02:06 PM IST

#কলকাতা: দিল্লিতে শোভন-বৈশাখীর যোগদানের দিন অস্বস্তি বাড়িয়েছিলেন দেবশ্রী রায়। আর মঙ্গলবার বিজেপি রাজ্য দফতরে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সংবর্ধনার আগে অস্বস্তি বাড়ল দু'পক্ষেই। রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বৈশাখী। রাজ্য সভাপতির বক্তব্যের প্রতিবাদ জানালেন প্রকাশ্যেই।

সোমবার রাজ্য বিজেপির টুইটে শুরু বিতর্ক। সূত্রের খবর, শুধু শোভনের নাম দেখে রেগে যান বৈশাখী। ঘনিষ্ঠ মহলে জানান, মঙ্গলবার রাজ্য বিজেপি দফতরে যাবেন না। বৈশাখীর অবস্থানকে সমর্থন করেন শোভনও। খবর গড়ায় দিল্লি পর্যন্ত। দিল্লির নির্দেশেই ভুল শুধরে নেয় রাজ্য বিজেপি। ক্ষমা চাওয়া হয় শোভন-বৈশাখীর কাছে। তবুও এদিন বেলা পর্যন্ত চলে টালবাহানা। এরমধ্যে আর এক বিতর্ক। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের মান ভাঙাতে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্য....

নির্ধারিত সময়ের প্রায় আধঘণ্টা পর শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গেই বিজেপির রাজ্য দফতরে আসেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। হাজির থাকেন শোভনের সঙ্গে সংবর্ধনায়। কিন্তু সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্য বিজেপি সভাপতিকে পালটা জবাব দিয়ে দিলীপের অস্বস্তি বাড়ালেন বৈশাখী।

প্রথম দিনেই কী সংঘাত শুরু ? বৈশাখীর জবাবে এই প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলের। তবে এখানেই শেষ নয়। বিকেল চারটে তেইশ থেকে পাঁচটা দশ পর্যন্ত আবার অন্য ছবি রাজ্য বিজেপি দফতরের সঙ্গে।

বিকেল ৪.২৩

Loading...

--------------

দফতরের মধ্যে চলছে বিজেপির পরিষদীয় দলের বৈঠক। বাইরে গাড়িতে অপেক্ষায় বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন এই বৈঠকে শোভনের সঙ্গে যোগ দিতে গেলে বৈশাখীকে বাইরে অপেক্ষা করতে অনুরোধ করা হয়।

বিকেল ৫

----------------

বৈঠক শেষ করে দফতরে বাইরে আসেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। দফতরের সামনে তাঁর হাতে ফুল দেন কর্মীরা।

বিকেল ৫.০৫

-----------------

গাড়িতে ওঠেন শোভন। সেখানেই শুরু বৈশাখীর সঙ্গে খানিকক্ষণের আলোচনা।

বিকেল ৫.১০

--------------------

অবশেষে বেড়িয়ে যায় তাঁদের গাড়ি।

রাজনৈতিক মহলের দাবি, প্রথম দিনেই রাজ্য বিজেপিতে ঝড় তুললেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। বুঝিয়ে দিলেন প্রয়োজনে লড়াই জারি রাখবেন তিনি।

আরও দেখুন

First published: 02:06:56 PM Aug 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर