নিম্নমানের ‘সুতো’র গেরোয় প্রাণ গেল শিশুর ! আরেকজনের অবস্থা সঙ্কটজনক

নিম্নমানের ‘সুতো’র গেরোয় প্রাণ গেল শিশুর ! আরেকজনের অবস্থা সঙ্কটজনক

কলকাতার সরকারি হাসপাতালে প্রাণ গেল বাদুরিয়ার দশ দিনের শিশুর।

  • Share this:

#কলকাতা: চলতি মাসের ১৭ তারিখে বসিরহাট হাসপাতালে জন্ম হয় মোর্তজা হোসেনের ছেলের। জন্মের পরই জানা যায় শিশুটির মূত্রনালিতে একটি ছোট অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন। বাদুরিয়ার মোর্তজা কলকাতার সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরের দিন মঙ্গলবার অস্ত্রোপচার হয় হাসপাতালের সুতো দিয়ে। শনিবার সেই সেলাই কেটে যায় বলে জানতে পারে হোসেন পরিবার।

চিকিৎসকের থেকে জানতে চাইলে মোর্তজা জানতে পারেন সুতো নিম্ন মানের, সমস্যা সুতোয়, তাই ফের অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন।  শনিবারই ফের অস্ত্রোপচার করা হয় শুধুমাত্র সেলাইয়ের জন্য। শনিবার থেকেই প্রেডিয়াট্রিকের সার্জারি বিভাগে ফের রাখা হয় সদ্যজাতকে। বুধবার ফের সুতোর জন্য সেলাই কেটে যায়। মোর্তজা কিছুটা হলেও ক্ষুব্ধ হয়ে নতুন সুতো কিনে নেনে। সেই সুতো দোকান থেকে কিনতে মাত্র খরচ হয় ১২৯ টাকা। সেই সুতো দিয়ে বুধবার ফের অস্ত্রোপচার হয়, অস্ত্রোপচার সফল হলেও সদ্যোজাতের শারিরীক অবস্থা খারাপ হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টা ২৫ মিনিটে মারা যায় দশদিনের সদ্যজাত। মোর্তজা বৃহস্পতিবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দিয়ে ঘটনার তদন্তের দাবি করে হোসেন পরিবার।

অন্যদিকে, একই সমস্যায় যাদবপুরের অভিজিৎ মন্ডল।  তার সন্তানের বয়স তেরো দিন,  গত রবিবার টালিগঞ্জের সরকারি হাসপাতাল এম আর বাঙ্গুরে জন্ম হয়। একই সমস্যার জন্য অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেনে চিকিৎসক।  সেই নীল রতন সরকার হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করা হয় মঙ্গলবার।  রবিবার ফের নিম্ন মানের সুতোয় সুতো ছিঁড়ে যায়।  সোমবার ফের অস্ত্রোপচারের আগেই অভিজিৎ ১১১৬ টাকা খরচ করে সুতো কিনে আনেন। সেই সুতোয় অস্ত্রোপচার হবার পরেই বর্তমানে সদ্যোজাত অবস্থা স্থিতিশীল। যদিও চিন্তায় মণ্ডল পরিবার ৷ কারণ দু’বার অস্ত্রোপচার হওয়ার ফলে শিশুটি অবস্থা আশঙ্কাজনক।গোটা বিষয়টির তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে এনআরএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Susovan Bhattacharya

First published: February 28, 2020, 7:54 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर