• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BABUL SUPRIYO WRITES FACEBOOK POST ON JUDGE HIM BY HIS DEEDS NOT BY THE RUMORS SB

Babul Supriyo Facebook Post: মুকুল-তৃণমূলকে 'ফলো', শাসকের সঙ্গে 'ঘনিষ্ঠতা'! জল্পনার জবাব বাবুল সুপ্রিয়র

বাবুলকে নিয়ে তুঙ্গে জল্পনা

Babul Supriyo Facebook Post: আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে তুঙ্গে উঠেছে জল্পনা। তাহলে কি এবার তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াচ্ছেন সদ্য প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী?

  • Share this:

    #কলকাতা: নরেন্দ্র মোদি সরকারের গঠিত নতুন মন্ত্রিসভা থেকে নাম বাদ পড়েছেন ৭ বছরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র (Babul Supriyo)। আর সেই মন্ত্রিত্ব হারানোর পর থেকেই একের পর এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন আসানসোলের সাংসদ। শুধু তাই নয়, মন্ত্রিত্ব হারানোর পর থেকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তাঁর সংঘাত বারবার প্রকাশ্যে আসছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজনীতির থেকে গান নিয়ে বেশি 'মন' দিয়েছেন বাবুল। এমনকী, সোশ্যাল মিডিয়ায় হঠাৎ তৎপরতার পরই ট্যুইটারে এবার মুকুল রায় ও তৃণমূল কংগ্রেসকে ফলো করা শুরু করেছেন বাবুল সুপ্রিয়। ফলে আসানসোলের সাংসদকে তুঙ্গে উঠেছে জল্পনা। তাহলে কি এবার তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াচ্ছেন সদ্য প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী? তাঁকে নিয়ে শুরু হওয়া জল্পনা নিয়ে এবার নিজেই মুখ খুললেন বাবুল।

    তাঁকে নিয়ে চলা নানা জল্পনার প্রেক্ষিতে বাবুল রবিবার রাতেই ফেসবুকে লিখেছেন, 'নানা গুজব আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে। অনেকেই তা শুনেই প্রতিক্রিয়া দিতে, ট্রোল করতে, নোংরা গালিগালাজ করতে ছুটে আসছেন। দয়া করে, এসবের মধ্যে আমাকে জড়াবেন না। আমার করা কাজ দিয়ে আমাকে বিচার করুন, গুজব দিয়ে নয়।'

    দিন কয়েক আগেই মন্ত্রিসভায় রদবদল করেছেন নরেন্দ্র মোদি। তারুণ্যে জোর দেওয়ার কথা বললেও রাজনৈতিরক মহল বলছে, আসলে ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের অঙ্ক কষেই মোদি রদবদল করেছেন মন্ত্রিসভায়। ফলে বাদ পড়েছে বহু ডাকসাইটে মন্ত্রীও। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা আবার এও বলছেন, আসলে তারুণ্য নয়, পারফরম্যান্সকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। আর সেই কারণেই তরুণ মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ও বাদ গিয়েছেন তাঁর তালিকা থেকে।

    গত কয়েকদিনে এ নিয়ে নানা জল্পনা ছড়িয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও গান নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। কিন্তু তারই মধ্যে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তাঁর সংঘাতও বারবার স্পষ্ট হয়েছে। যেন রাজনীতি থেকে কিছুটা দূরত্বই রক্ষা করেছিলেন। এরই মধ্যে তৃণমূল ও মুকুল রায়কে ফলো করা বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে নতুন জল্পনার সৃষ্টি করেছে। এই পরিস্থিতিতে দিলীপ ঘোষও বারবার বাবুলকে কটাক্ষের সুরেই আক্রমণ শানিয়েছেন। বিজেপি রাজ্য সভাপতি কিছুটা শ্লেষের সুরেই বলেছিলেন, 'বাবুল সক্রিয় মন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু মন্ত্রী থাকাকালীন তো মুখ্যমন্ত্রী কম গালমন্দ করেননি। এখন হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন বাবুল।’ এরপরই দিলীপ ঘোষের উদ্দেশে বাবুল সরাসরি লেখেন, 'রাজ্য সভাপতি হিসেবে 'মনের আনন্দে' দিলীপদা অনেক কিছুই বলেন | আবারও বললেন, আমি শুনলাম | কিন্তু এই উক্তিটি কেন করলেন সেটা যদি এবারকার জন্য আমি 'স্বজ্ঞানে' বুঝেও না বুঝি তো ক্ষতি কি?? এটাই আমার প্রতিক্রিয়া ! আমার "হাঁফ ছেড়ে বাঁচাতে" দিলীপদা আনন্দ পেয়েছেন এতেই আমি আনন্দিত ! উনি রাজ্য সভাপতি - সবার শ্রদ্ধার পাত্র ! আমিও আন্তরিক শ্রদ্ধা জানালাম প্রিয় দিলীপদাকে !!' এমনই পরিস্থিতির মধ্যে বাবুলের তৃণমূলী হাওয়া নিয়েও চূড়ান্ত জল্পনা। তারই মধ্যে বাবুলের নতুন ফেসবুক পোস্ট নতুন করে জল্পনা তৈরি করল।
    Published by:Suman Biswas
    First published: