ঐতিহ্যের দশ অবতার তাস, বাবুবাগান সর্বজনীন মণ্ডপ সাজাতে ডাক ফৌজদারদের

ঐতিহ্যের দশ অবতার তাস, বাবুবাগান সর্বজনীন মণ্ডপ সাজাতে ডাক ফৌজদারদের

আধুনিক তিন পাত্তি ডিজিটাল খেলায় মত্ত দেশ। কে মনে রেখেছে রাজ-রাজড়াদের দশ অবতার তাস খেলার কথা? গোলাকার তাসে বিষ্ণুর দশ অবতারের ছবি।

  • Share this:

#কলকাতা: আধুনিক তিন পাত্তি ডিজিটাল খেলায় মত্ত দেশ। কে মনে রেখেছে রাজ-রাজড়াদের দশ অবতার তাস খেলার কথা? গোলাকার তাসে বিষ্ণুর দশ অবতারের ছবি। সঙ্গে প্রতীক। আজ ব্রাত্য। দশ অবতারে কঠিন জীবনযুদ্ধ বিষ্ণুপুরের ফৌজদারদের । বাপ-ঠাকুর্দার ঐতিহ্যে আর পেট ভরে না। পেট চালাতে তাই পেশা বদল। অন্য পাড়ায় গিয়ে লটারির টিকিট বিক্রি করে কোনওরকমে দিনযাপন। এবার কলকাতার পুজোয় মণ্ডপ সাজাতে ডাক পড়েছে ফৌজদারদের। তবে পেটের টানে ঐতিহ্যের গোলাকার তাস আজ ত্রিভূজাকার।

রাজা রাজরাদের তাস খেলা। ব্যাপারই আলাদা। গোলাকার তাসে বিষ্ণুর দশ অবতার । মৎস্য,কুর্ম, বরাহ, নরসিংহ, বামন, পরশুরাম, রাম, বলরাম, জগন্নাথ ও কলি। এদের প্রতীক হিসেবে ব্যবহার করা হয় মাছ, কাছিম, শঙ্খ, চক্র, ঘটি, কুঠার, তির, গদা, পদ্ম ও তলোয়ার। সকাল, দুপর, বিকেল, সন্ধা, রাত। একেক সময়ে একেক অবতারে খেলার নিয়ম। একশো কুড়ি তাসের এক সেট। খেলতে লাগে পাঁচজন। একেরজন পাবে চব্বিশটি করে তাস।

দিল্লিতে গাঞ্জিপা তাসের খেলা দেখে মুগ্ধ হন বিষ্ণুপুরের রাজা বীর হাম্বি। বাঁকুড়ায় ফিরে সেনাপ্রধান কার্তিক ফৌজদারকে এইরকম তাস তৈরির নির্দেশ দেন। গোলাকার তাসে দশ অবতার ছবি ও প্রতীক এঁকে দেন কার্তিক। সেই শুরু। ধীরে ধীরে শিল্পীর তকমা পান ফৌজদাররা। বর্তমানে সেই ধারা ধরে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে হতাশ বিদ্যুৎ ফৌজদার, তাঁর স্ত্রী মঞ্জু ফৌজদার, ও তাঁর ভাই প্রশান্ত ফৌজদার। এবার বাবুবাগান সর্বজনীন পুজো মণ্ডপ সাজাতে ডাক পড়েছে এই ফৌজদার পরিবারের।

মণ্ডপ সাজানোর বরাত। তাই ফরমায়েশমত তাসের আকার এখানে গোল নয়। ত্রিভূজাকার। তাই সই। বিল্ুপ্তপ্রায় শিল্পকে সকলের সামনে তুলে ধরতে এটুকু সমঝোতা করতে আজ আর পিছপা নন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের ফৌজদাররা।

দশ অবতার তাস আঁকার বরাত নেই । লটারির টিকিট বিক্রি করে কোনওরকমে দিন চলে। তাও লুকিয়ে চুরিয়ে। পরিবারের ঐতিহ্য বাঁচিয়ে। কিন্তু এভাবে কদিন? ডিজিটাল তিন পাত্তির যূগে ঐতিহ্যের দশ অবতার তাসের থিমে কি ফিরবে কপাল? অপেক্ষায় বিষ্ণুপুরের ফৌজদার পরিবার।

First published: 06:54:53 PM Sep 05, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर