যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ভোটে এবার সম্মুখ সমরে এবিভিপি

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ভোটে এবার সম্মুখ সমরে এবিভিপি

ইঞ্জিনিয়ারিং ও কলা বিভাগের মূল আসনের প্রত্যেকটিতেই প্রার্থী দিচ্ছে এবিভিপি

  • Share this:

#কলকাতা: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ভোটে এবার সম্মুখ সমরে এবিভিপি। শেষবারের ছাত্রভোটে নির্দল হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও এবার সরাসরি প্রতিদ্বন্দিতায় যাচ্ছে এবিভিপি। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি হতে চলেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রভোট। এই ভোটের মদ্দা হিসেবে তাঁরা বেছে নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বহিরাগতদের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করাকে ৷ এই বার্তাই তুলে ধরবেন তাঁরা ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে। পাশাপাশি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের ইতিবাচক দিকও তুলে ধরা হবে বলে জানিয়েছে এবিভিপি নেতৃত্ব।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং ও কলা বিভাগের মূল আসনগুলির প্রত্যেকটিতেই প্রার্থী দিতে চলেছে এই দল। মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া। মঙ্গলবার অথবা বুধবার মনোনয়নপত্র জমা দেবেন তারা। যদিও এবিভিপির প্রার্থী দেওয়া নিয়ে চিন্তিত নয় এসএফআই ও ডিএসএফের মতো ছাত্র সংগঠনগুলি। তবে এবিভিপিকে আটকাতে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করা হবে বলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনগুলির তরফে জানানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা বিভাগের মূল পাঁচটি আসন ও ইঞ্জিনিয়ারিং-এর মূল আসনগুলিতে প্রার্থী দিতে চলেছে এবিভিপি। এবিভিপির তরফে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সুরঞ্জন সরকার জানিয়েছেন, ' আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হবে। বিজ্ঞান বিভাগ ছাড়া বাকি বিভাগের ক্ষেত্রে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।'  শুধু মূল আসনগুলি নয়, ক্লাস প্রতিনিধির আসনগুলিতেও প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা হবে বলে জানিয়েছেন এবিভিপির নেতারা।

ডিএসএফ সংগঠনের তরফে ছাত্রনেতা অভিক পাল জানিয়েছেন, ' গত ৪২ বছর ধরে আমরা ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ছাত্ররাই সংসদ দখলে রেখেছি। ছাত্ররা আমাদের ওপরেই আস্থা রেখেছেন। ভোটে লড়াই করার অধিকার সবার আছে।' অন্যদিকে, এসএফআই-এর তরফে ছাত্রনেতা দেবরাজ দেবনাথের দাবি, ' ওরা নির্বাচনে লড়়লেও ছাত্র-ছাত্রীরা ওদের ভোট দেবে না। ওদের বিরুদ্ধে ইউনিয়ন রুম  ভাঙচুরের অভিযোগ আছে।'

গতবছর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র আসা নিয়ে ক্যাম্পাসে তুলকালাম হয়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর উপস্থিতিতেই ইউনিয়ন রুম ভাংচুরের অভিযোগ ওঠে এবিভিপি র বিরুদ্ধে। তবে এই অভিযোগ ভোট বাক্সে প্রভাব ফেলবে না বলেই দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের এবিভিপির সদস্যদের।

Somraj Bandopadhyay

First published: February 3, 2020, 6:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर