কলকাতা

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফুলবাগান মেট্রো চালু হওয়ায় কমছে অটোয় যাত্রী সংখ্যা, বিপাকে অটো চালকরা

ফুলবাগান মেট্রো চালু হওয়ায় কমছে অটোয় যাত্রী সংখ্যা, বিপাকে অটো চালকরা

অটোয় ভাড়া লাগত ২৫ টাকা। এখন মেট্রোয় এই যাত্রা পথ পেরোতে সময় লাগছে ১০ থেকে ১২ মিনিট। খরচ হচ্ছে মাত্র ১০ টাকা।

  • Share this:

#কলকাতা: ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন চালু হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন অটো চালকরা। ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনের পাশেই রয়েছে অটো স্ট্যান্ড। যেখান থেকে করুণাময়ী পর্যন্ত অটো পাওয়া যায়। এই দূরত্ব যেতে অটোয় ভাড়া লাগত ২৫ টাকা। এখন মেট্রোয় এই যাত্রা পথ পেরোতে সময় লাগছে ১০ থেকে ১২ মিনিট। খরচ হচ্ছে মাত্র ১০ টাকা। ফলে বেশি টাকা ভাড়া গুণে অটোয় যেতে চাইছেন না কেউই ৷

পাশাপাশি গা ঘেঁষে বসে যাতায়াত এড়িয়ে যেতে চাইছেন যাত্রীরা। তবে বাণিজ্যিক ভাবে প্রথম দিনের যাত্রায় অবশ্য ব্যাপক ভিড় হয়েছে এমনটা নয়। তবে প্রত্যেকেই আশাবাদী বাস বা অটো নয়, মেট্রোই তাদের পক্ষে সুবিধাজনক। সুনন্দা ঘোষ। ফুলবাগানের এই বাসিন্দা প্রতি মুহূর্তে যাতায়াত করেন সিটি সেন্টার। তিনি জানাচ্ছেন, আগে সিটি সেন্টার যেতে তাকে বদল করতে হত দু'বার অটো। খরচ হত এক পিঠেই ২৫ টাকা। যাতায়াতের খরচ ছিল ৫০ টাকা। এখন সেটা ২০ টাকায় হয়ে গিয়েছে। তিনি নিজেই জানাচ্ছেন, "কেন আর বাস বা অটোয় যাব। কম সময়ে আরামদায়ক যাত্রা। তাই মেট্রোতেই যাচ্ছি।" একই সুর সঞ্জয় দাসের। তিনি জানাচ্ছেন ছেলেকে নিয়ে করুণাময়ী পর্যন্ত গৃহ শিক্ষকের কাছে পড়াতে নিয়ে যান। হয় স্কুটার বা বাইক নয়তো অটো ভরসা ছিল। এবার অবশ্য "মেট্রোই তো ভরসা আমাদের। কেন অটো বা স্কুটার, বাইকে যাব? আবহাওয়া, সাথে এই করোনা দুটোই আমাদের চিন্তায় ফেলে দেয়। এখন একেবারে নিশ্চিন্ত আমরা।" প্রথম দিনের সফরেই অনেকে শুধুমাত্র স্মার্ট কার্ড নিয়ে গিয়েছেন। এতেই আশঙ্কার মেঘ দেখছে অটো চালকরা।

ফুলবাগান থেকে সল্টলেক প্রায় ২০০ অটো চলাচল করে। এদের অনেকেই করুণাময়ী, সিটি সেন্টার বা সেক্টর ফাইভের যাত্রী। যাদের অটো বদলে গন্তব্যে পৌঁছতে হত। এবার শুধুমাত্র এক মেট্রোয় গন্তব্যে  পৌঁছে যেতে পারছেন তারা। দীর্ঘদিন ধরেই এই রুটে অটো চালান অজয় দাস। তিনি জানাচ্ছেন, ‘‘লকডাউনে রোজগার ছিল না। এবার আরও বিপাকে পড়লাম। যদিও প্রথম দিনে যাত্রী হয়েছে মাত্র ২১২ মেট্রোয়। ’’

আবীর ঘোষাল

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: October 6, 2020, 9:45 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर