corona virus btn
corona virus btn
Loading

সঠিক সরকারি নির্দেশিকা না আসায় সকাল থেকেই অটো চলল না কলকাতার বেশিরভাগ জায়গায়

সঠিক সরকারি নির্দেশিকা না আসায় সকাল থেকেই অটো চলল না কলকাতার বেশিরভাগ জায়গায়

মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণায় জানিয়েছিলেন ২৭ তারিখ থেকে রাস্তায় নামবে অটো কিন্তু সরকারি নির্দেশিকা না আসায় রাস্তায় চলতে দেওয়া হল না

  • Share this:

#কলকাতা: একদিকে দুমাসের বেশি করোনা এর জন্য লক ডাউন,তারপর আমফান ঘূর্ণিঝড়, সব মিলিয়ে মহানগর কলকাতার অন্যতম লাইফলাইন অটো রিক্সা বন্ধ ছিল বহুদিন। অটোচলকদের পথে বসা ছাড়া অন্য উপায় ছিল না। জীবন ধারণের একমাত্র উপায় এই অটো চালানো বন্ধ হওযায় পরিবার নিয়ে চূড়ান্ত সমস্যায় পড়ে কয়েক হাজার অটোচালক।

গত ১৮ মে, নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘোষণা করেন,২৭ মে থেকে কলকাতা শহরে অটো পরিষেবা শুরু হবে। সেইমতই বুধবার সকাল থেকে গড়িয়া - গোল পার্ক, পার্ক সার্কাস - গড়িয়াহাট, বালিগঞ্জ - রাসবিহারী এভিনিউ, টালিগঞ্জ - গড়িয়া, টালিগঞ্জ - কবরদাঙা, শোভাবাজার - উল্টোদাঙা সহ বিভিন্ন রুটে অটো নিয়ে বেরোয় অটো চালকরা। কিন্তু বিধি বাম, রাস্তায় অটো নিয়ে নামতেই বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ বাধা দেয়। কারণ কোনো ট্রাফিক গার্ডের কাছেই অটো চালানোর প্রয়োজনীয় নির্দেশিকা এসে পৌঁছয় নি। ফলে সকালে অটো বার করলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই শহর কলকাতার বেশিরভাগ অটো বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়।

মুর্শেদ আলম,পার্ক সার্কাস - গড়িয়াহাট রুটে অটো চালান। সকাল বেলাই বাইপাসের পাশের ভি আই পি নগর থেকে অটো নিয়ে পার্ক সার্কাস চলে আসেন। বহু আশা নিয়ে এদিন তিনি অটো বার করেন। একটা ট্রিপ নিয়ে দুজন যাত্রী নিয়ে গড়িয়াহাট এর দিকে আসতেই বালিগঞ্জ ফাঁড়ির সামনে পুলিশ সার্জেন্ট অটো আটকায়। বলে, এখনো কোনো সরকারি নির্দেশিকা না আসায় অটো রাস্তায় চালানো যাবে না। মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে মুর্শেদের। মুর্শেদ একা নয়, আরো অসংখ্য অটো চালকই একপ্রকার ব্যর্থ মনোরথ হয়ে বাড়ি ফিরে যায়। বেলা বাড়তে যদিও কলকাতার বিভিন্ন ট্রাফিক পুলিশ গার্ডে অটো অটো চালানোর সরকারি বিজ্ঞপ্তি আসে এরপর বেলা একটার পর থেকে কলকাতার বিভিন্ন রুটে অটো চলাচল শুরু হয়।

তবে দুপুর একটার পর সরকারি নির্দেশিকা আসার পর অটো চলাচলের অনুমতি মিললেও বেশি ফাকটরি রাস্তা থেকে উধাও। কেননা একদিকে যেমন যাত্রী নেই, তেমন ভাবেই বেশিরভাগ অটো হতাশ হয়ে বাড়ি চলে গেছে। সরকারি নির্দেশিকা বিভ্রান্তির জেরে দীর্ঘ দুমাস বাদে অটো চলাচল শুরু হলেও প্রথমদিনই সেই পরিষেবা মুখ থুবরে পড়ে।টালিগঞ্জ রাসবিহারী এভিনিউ অটো ইউনিয়নের সদস্য ধীরাজ চক্রবর্তী জানান,' ১৮ ই মে, মুখ্যমন্ত্রী নবান্ন থেকে ঘোষণা করলেন অটো চলাচল হবে, ২৭ তারিখ থেকে। তাহলে এতদিন ধরে কি পুলিশ-প্রশাসন, পরিবহন দপ্তর ঘুমোচ্ছিল? আমরা অটোচালক না খেতে পেয়ে মরে যাচ্ছি,আমাদের কথা কেউ ভাবেনা! কেন এদিন সকাল থেকে এতো বিভ্রান্তি হলো?'

ABHIJIT CHANDA

Published by: Debalina Datta
First published: May 27, 2020, 4:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर