• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • অব্যাহত অটো দৌরাত্ম্য, রেষারেষি নিয়ে বাস ও অটো চালকের গন্ডগোলে উত্তপ্ত লেকটাউন

অব্যাহত অটো দৌরাত্ম্য, রেষারেষি নিয়ে বাস ও অটো চালকের গন্ডগোলে উত্তপ্ত লেকটাউন

১১ দফা আচরণবিধি, রাজ্য সরকারের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও কলকাতায় অব্যাহত অটোর দাদাগিরি ৷ এরকমই দাদাগিরির আরও একটি দৃষ্টান্তের সাক্ষী রইল লেকটাউন ৷

১১ দফা আচরণবিধি, রাজ্য সরকারের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও কলকাতায় অব্যাহত অটোর দাদাগিরি ৷ এরকমই দাদাগিরির আরও একটি দৃষ্টান্তের সাক্ষী রইল লেকটাউন ৷

১১ দফা আচরণবিধি, রাজ্য সরকারের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও কলকাতায় অব্যাহত অটোর দাদাগিরি ৷ এরকমই দাদাগিরির আরও একটি দৃষ্টান্তের সাক্ষী রইল লেকটাউন ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: ১১ দফা আচরণবিধি, রাজ্য সরকারের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও কলকাতায় অব্যাহত অটোর দাদাগিরি ৷ এরকমই দাদাগিরির আরও একটি দৃষ্টান্তের সাক্ষী রইল লেকটাউন ৷ বৃহস্পতিবার সকালে অটোর সঙ্গে একটি বাসের রেষারেষি নিয়ে বেঁধে যায় গন্ডগোল ৷ অটোচালক রাস্তা আটকে ভাঙচুর চালায় বাসে ৷ ভাঙা কাচ ছিটকে আহত হন বাসের বেশ কয়েকজন যাত্রী ৷ ঘটনার জেরে ভিআইপি রোডে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয় ৷

    প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এদিন সকালে ভিআইপি রোডের উপর খড়িবাড়ি থেকে আহিরীটোলাগামী একটি বাস ও উল্টোডাঙাগামী একটি অটোর মধ্যে প্রবল রেষারেষি চলছিল ৷ শ্রীভূমির কাছাকাছি অটোটিকে ওভারটেক করে এগিয়ে যায় বাসটি ৷ তাতে ক্রুদ্ধ অটোচালক গতি বাড়িয়ে বাসটির সামনে রাস্তা আটকে দাঁড়ায় এবং দাবী করে বাসটি অটোকে ধাক্কা মেরেছে ৷ এরপর চালককে নামিয়ে চলে মারধর ৷ ইটের টুকরো ছুঁড়ে ভেঙে দেওয়া হয় ২১১ নম্বর রুটের ওই বাসের কাচ ৷ ইটের ঘায়ে ও ভাঙা কাচের টুকরোয় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন বাসের যাত্রী ৷ অভিযুক্ত অটোচালকের সঙ্গে বাসের চালককে মারধর ও ভাঙচুরে যোগ দেয় আরও দুই সতীর্থ অটোচালক ৷ প্রবল ঝামেলায় থমকে যায় ভিআইপি রোডে যান চলাচল ৷

    পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে ৷ তিন অটোচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছেন যাত্রীরা ৷

    কখনও যাত্রীকে মারধর, বেপরোয়া ড্রাইভিংয়ে দুর্ঘটনা কখনও আবার খোদ মন্ত্রীকে চোখরাঙানি ৷ ১১ দফা শর্ত ও আচরণবিধিও লাগাম টানতে পারেনি কলকাতার অটো দৌরাত্ম্যে ৷ রাজ্য সরকারের মৌখিক সতর্কতা ও আচরণবিধিতে আদপে যে কোনও কাজই হয়নি তা আরও একবার প্রমাণ করল এদিনের ঘটনা ৷

    First published: