সাবধান ! স্কিমারের সাহায্যেই এটিএম থেকে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের তথ্য চুরি

সাবধান ! স্কিমারের সাহায্যেই এটিএম থেকে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের তথ্য চুরি

Representational Image

  • Share this:

    #কলকাতা: ফের এটিএম জালিয়াতির শিকার শহরের বাসিন্দারা। যাদবপুর এলাকার একের পর এক বাসিন্দার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব হাজার হাজার টাকা। এখনও পর্যন্ত যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ২৫জন গ্রাহক। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, অ্যান্টি স্কিমার ডিভাইস না বসানো এটিএমগুলিকেই টার্গেট করছে ফ্রডস্টাররা।

    - এটিএম জালিয়াতির শিকার শহরের বাসিন্দারা  - মোবাইলে একের পর এক টাকা কাটার এসএমএস  - অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হাজার হাজার টাকা 

    এক বেসরকারি সংস্থার কর্মী অনিশা ভাদুড়ি। যাদবপুর এলাকায় ভাড়া থাকেন। এটিএম জালিয়াতির শিকার হয়ে মাসের শুরুতেই ২৫ হাজার টাকা খুইয়েছেন তরুণী। বাকি মাস কীভাবে চলবে তা ভেবেই মাথা হাত।

    চাকরিসূত্রে দীর্ঘদিন ধরেই কলকাতায় থাকেন বহরমপুরের দীপ সাহা। বাঘাযতীনে ভাড়ার ফ্ল্যাটে সংসার। ভেবেছিলেন, জানুয়ারিতে দাদার বিয়ের জন্য টাকা দিয়ে পরিবারকে সাহায্য করবেন। কিন্তু তারই আগে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও সাড়ে ৩৫ হাজার টাকা।

    অনিশা বা দীপ একা নন। সম্প্রতি এটিএম জালিয়াতির শিকার হয়েছেন যাদবপুর এলাকার অনেক বাসিন্দাই। তাঁদের অনেকেরই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যাদবপুরে নয়। তবে টাকা তুলতে বেশিরভাগ সময়ে এলাকার এটিএমই ব্যবহার করেন। রবিবার থেকে এখনও পর্যন্ত ২৫ জনেরও বেশি মানুষ যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। সংখ্যাটা আরও বাড়বে বলেই ধারণা পুলিশের। ইতিমধ্যে এটিএম জালিয়াতির তদন্তে নেমেছে লালবাজারের ব্যাঙ্ক ফ্রড শাখা। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে,

    শহরে এটিএম জালিয়াতি

    - এই প্রতারণা স্কিমারদের কাজ - ছোট ডিভাইসের সাহায্যে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের তথ্য চুরি করে স্কিমাররা - জালিয়াতি রুখতে অনেক এটিএমে বসানো হয়েছে অ্যান্টি স্কিমার ডিভাইস - অ্যান্টি স্কিমার ডিভাইস না বসানো এটিএমগুলিকেই টার্গেট করেছে ফ্রডস্টাররা - যাদবপুরের সুলেখা, আনন্দপল্লির বাসিন্দাই মূলত জালিয়াতির শিকার - সব টাকা দিল্লি থেকে তোলা হয়েছে

    জালিয়াতি প্রকাশ্যে আসার পর শহরের সবকটি এটিএম পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছে লালবাজার। এটিএমে অ্যান্টি স্কিমার ডিভাইস না বসানো থাকলে, ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষকে তা জানাতে বলা হয়েছে।

    First published: