• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ‘ফর্ম ফিলাপের সময় দেওয়া ডকুমেন্ট ভুল হলে অ্যাডমিশন বাতিল’,পড়ুয়াদের হুঁশিয়ারি দিয়ে কলেজগুলিকে নির্দেশিকা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের

‘ফর্ম ফিলাপের সময় দেওয়া ডকুমেন্ট ভুল হলে অ্যাডমিশন বাতিল’,পড়ুয়াদের হুঁশিয়ারি দিয়ে কলেজগুলিকে নির্দেশিকা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের

অনেক কলেজের তরফেই অধ্যক্ষরা ইতিমধ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন বিভিন্ন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা বেশি নম্বর দিয়ে অনলাইনে তথ্য আপলোড করেছে। যার জেরে সমস্যার মুখে পড়েছেন কলেজের আধিকারিকরা।

অনেক কলেজের তরফেই অধ্যক্ষরা ইতিমধ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন বিভিন্ন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা বেশি নম্বর দিয়ে অনলাইনে তথ্য আপলোড করেছে। যার জেরে সমস্যার মুখে পড়েছেন কলেজের আধিকারিকরা।

অনেক কলেজের তরফেই অধ্যক্ষরা ইতিমধ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন বিভিন্ন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা বেশি নম্বর দিয়ে অনলাইনে তথ্য আপলোড করেছে। যার জেরে সমস্যার মুখে পড়েছেন কলেজের আধিকারিকরা।

  • Share this:

#কলকাতা: কলেজে ভর্তি হওয়ার সময় অনলাইনে যে সমস্ত তথ্য আপলোড করেছেন ছাত্রছাত্রীরা সেই সমস্ত আপলোড করা তথ্যের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়কে দেওয়া রেজিস্ট্রেশনের সময় যদি কোন ডকুমেন্টে ভুল ধরা পড়ে বা ভুল হয় তাহলে সেই ছাত্র বা ছাত্রীর অ্যাডমিশন বাতিল করে দেওয়া হবে। এমনটাই নির্দেশিকা জারি করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

স্নাতক স্তরে প্রথম বর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের রেজিস্ট্রেশন প্রসেস বা প্রক্রিয়া শুরু করেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন তথ্য গুলি ভেরিফিকেশন করিয়ে নেওয়া ফ্রি রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ার মধ্যেই পড়ে । অর্থাৎ অনলাইনে ছাত্র-ছাত্রীরা বিভিন্ন কলেজে ভর্তি হবার সময় যে সমস্ত মার্কশিট ও সার্টিফিকেট দিয়েছেন নম্বর আপলোডের মাধ্যমে সেই নম্বরের সঙ্গে যদি আসল মার্কশিটের কোনও রকম ভুল ভ্রান্তি থাকে তাহলে সেই ছাত্র বা ছাত্রীর  অ্যাডমিশন  প্রক্রিয়া বাতিল হতে পারে। তার জন্যই মূলত ভেরিফিকেশনের ওপর বাড়তি গুরুত্ব কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফের দিতে বলা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ প্রত্যেকটি কলেজের অধ্যক্ষ দের। কিভাবে ভেরিফিকেশন করতে হবে সেই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে  বিস্তারিত গাইডলাইন দিয়ে দেওয়া হয়েছে ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়াতে দেখতে হবে ছাত্র-ছাত্রীর নাম এবং তাদের অভিভাবকদের নাম উচ্চ মাধ্যমিকের মার্কশিট এবং অ্যাডমিট কার্ডে যে নাম রয়েছে সেই নামে লেখা রয়েছে নাকি। দ্বিতীয়ত, লিঙ্গ,কাস্ট ক্যাটাগরি এবং ন্যাশনালিটিও চেক করতে হবে। কোনভাবেই নেট থেকে যে সমস্ত কপি ডাউনলোড করা হয়েছে সেই সমস্ত তথ্য যাতে না দেওয়া হয়। কলেজ অধ্যক্ষদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে স্নাতক স্তরে প্রথম বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের ক্ষেত্রে যদি দেখা যায় ভর্তি হওয়ার সময় যে সমস্ত ডকুমেন্ট নম্বর আপলোড করেছেন ছাত্রছাত্রীরা সেগুলো যদি ভুল বা অবৈধ হয় তাহলে সেই ছাত্র ছাত্রীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া বাতিল করে দেওয়া হবে।।

চলতি বছরে উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের পরপরই রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে গুলিকে অনলাইনে ছাত্রভর্তি নিতে উচ্চশিক্ষার দফতরের তরফে  জানিয়ে দেওয়া হয় । সেই মোতাবেক রাজ্যজুড়ে সব কলেজে এবছর অনলাইনে ছাত্র ভর্তি করেছে। সব কলেজ নিজস্ব পদ্ধতিতে অনলাইনে ছাত্র ভর্তি করলেও তা নিয়ে অবশ্য বিতর্ক পিছু ছাড়েনি। কোন কোন কলেজে বিভিন্ন নামে এমনকি বিভিন্ন ফিল্ম স্টারের নামেও দেখা যায় মেধাতালিকায় নাম। আবার অনেক কলেজে অনলাইনে ভর্তি করার পরেও একাধিক প্রযুক্তিগত সমস্যা নিয়েও বিতর্ক হয়েছে।

শুধু তাই নয় অনেক কলেজের তরফেই অধ্যক্ষরা ইতিমধ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন বিভিন্ন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা বেশি নম্বর দিয়ে অনলাইনে তথ্য আপলোড করেছে। যার জেরে সমস্যার মুখে পড়েছেন কলেজের আধিকারিকরা। এই সংক্রান্ত অভিযোগের জন্যই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে এই সংক্রান্ত নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কলেজের অধ্যক্ষ দের বলেই মনে করা হচ্ছে। ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া আগামী ২৪ শে  ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করতে হবে বলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কলেজের অধ্যক্ষ দের নির্দেশিকা দিয়েছেন। আমি শুধু ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ায় নয় কলেজের তরফে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য পৃথক ভাবে নোটিশ দেওয়া হয়েছে অধ্যক্ষদের। সব মিলিয়ে প্রথম বর্ষের পড়ুয়াদের এখনও পর্যন্ত অফলাইনে অর্থাৎ ক্লাসরুমে ক্লাস চালু না হলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফের যাবতীয় প্রক্রিয়া কার্যত সেরে রাখা হচ্ছে।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published: