Assembly on CSF : নিরাপত্তারক্ষী-সংবাদমাধ্যমের ধস্তাধস্তির জের, কেন্দ্রীয় বাহিনীর ঢোকায় নিষেধাজ্ঞা বিধানসভায়!

বিধানসভায় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে 'না'

রীতিমতো বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হল আজ, শুক্রবার থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর (Central Security Force) কোনও সদস্যকে ঢুকতে দেওয়া হবে না সভা চত্বরে।

  • Share this:

#কলকাতা : বৃহস্পতিবারের একটি 'অপ্রীতিকর ঘটনার' পরেই বড়সড়ো সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বিধানসভায় (Assembly House)। রীতিমতো বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হল আজ, শুক্রবার থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর (Central Security Force) কোনও সদস্যকে ঢুকতে দেওয়া হবে না সভা চত্বরে। জানানো হয়েছে ৬ মে বিধানসভা চত্বরে সংবাদ কর্মীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনীর (CSF) এর যে বাদানুবাদ ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে তারই পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার বিধানসভায় বিকেলের দিকে শপথ নিতে পৌঁছন বিজেপির নন্দীগ্রামের (Nandigram) বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী (Subhendu Adhikari)। শপথ গ্রহণের পরে এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন শুভেন্দু। কিছুক্ষণ কথা বলার পর যখন তিনি বিধানসভা চত্বর ছেড়ে বেরোচ্ছেন ঠিক তখনই সংবাদমাধ্যমের একাংশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি বেধে যায় শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষীদের। বচসা থেকে ধাক্কাধাক্কি পর্যন্ত গড়ায় ঘটনা।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তাবাহিনীর বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ তোলেন সংবাদকর্মীরা। ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে এই নিয়ে বিধানসভায় লিখিত অভিযোগও জানান তাঁরা। এরপরেই সিদ্ধান্ত হয় আজ থেকে বিধানসভায় ঢুকতে পারবে না কেন্দ্রীয় বাহিনী। সকালেই বিধানসভা কর্তৃপক্ষের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ঘোষণা করা হয় এই নিষেধাজ্ঞা।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার বিধানসভায় বিধায়ক পদে শপথ গ্রহণ করেন বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী৷ এদিন বেশ বেলা করে দুপুর ৩.৪৫ নাগাদ বিধানসভায় ঢোকেন শুভেন্দু। সে সময় বিধানসভা কক্ষ ছেড়ে বেরোচ্ছিলেন তৃণমূলের কেশপুরের বিধায়ক শিউলি সাহা। শুভেন্দুর সঙ্গে ছিলেন তাপসী মণ্ডল, মনোজ টিজ্ঞা, সুদীপ মুখোপাধ্যায় প্রমুখ। প্রায় শূন্য বিধানসভায় শপথবাক্য পাঠ করেন শুভেন্দু। তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান প্রোটেম স্পিকার সুব্রত মুখোপাধ্যায়। উল্লেখ্য শুক্রবার বিধানসভায় শপথ বাক্য পাঠ করেন বিজেপির আরেক ডাকসাইটে নেতা মুকুল রায়। শপথ নেন অগ্নিমিত্রা পলও। তৃণমূলের সুশান্ত মাহাতোও এদিন শপথ নেন বিধানসভায়। ১৪৮ জন বিধায়ক শপথ গ্রহণ করেন শুক্রবার।

আবির ঘোষাল

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: