• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ASANSOL BJP MP BABUL SUPRIYOS FACEBOOK POST CREATE CONTROVERSY ONE MORE TIME SB

Babul Supriyo: 'আমার মনের হদিশ তো দিইনি আমি', মন্ত্রিত্ব হারিয়ে কী ভাবছেন বাবুল সুপ্রিয়!

বাবুলের 'মনোকষ্ট'

Babul Supriyo: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজনীতির থেকে গান নিয়ে বেশি 'মন' দিয়েছেন আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, কিন্তু তাতেও মাঝেমধ্যেই বেরিয়ে পড়ছে তাঁর হতাশা।

  • Share this:

    #কলকাতা: নরেন্দ্র মোদি সরকারের নতুন মন্ত্রিসভা থেকে নাম বাদ পড়েছেন ৭ বছরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)। আর সেই মন্ত্রিত্ব হারানোর পরের দিন থেকেই একের পর এক ফেসবুক পোস্ট করে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন বাবুল। এমনকী মন্ত্রিত্ব হারানোর পরই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তাঁর সংঘাত বারবার প্রকাশ্যে আসছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজনীতির থেকে গান নিয়ে বেশি 'মন' দিয়েছেন আসানসোলের সাংসদ, কিন্তু তাতেও মাঝেমধ্যেই বেরিয়ে পড়ছে তাঁর হতাশা। শনিবার ফের তিনি লিখেছেন, 'আমার মনের কোণের বাইরে" কারোকে আমার মনের হদিশ তো দিইনি আমি - দেবোও না। তাহলে তা নিয়ে এতো কথা কেন।'

    মন্ত্রিত্ব হারানোর পরই ফেসবুকে বাবুল লিখেছিলেন, 'হ্যাঁ, যেখানে ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে, সেখানে কিছু আগুন তো থাকবেই। যাঁরা আমাকে ভালোবাসে, সেই বন্ধু, মিডিয়ার ফোন আমি ধরতে পারছি না। হ্যাঁ, আমি মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেছি। আমাকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে।' পরে আবার ‘শুধরে’ নিয়ে বাবুল লেখেন, ‘ইস্তফা দিতে বলা হয়েছিল কথাটা হয়ত এভাবে ব্যবহার করা ঠিক নয়।’ মন্তব্যের পুনরায় ব্যাখ্যা করলেও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পোস্টে যে কিছুটা অভিমান মেশানো ছিল, তা ওই দিন স্পষ্ট হয়ে যায়।

    ফের বাবুলের পোস্ট ফের বাবুলের পোস্ট

    এরপরই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কিছুটা শ্লেষের সুরেই বলেছিলেন, বাবুল হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন। বাবুল সক্রিয় মন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু মন্ত্রী থাকাকালীন তো মুখ্যমন্ত্রী কম গালমন্দ করেননি। এখন হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন বাবুল।’ এরপরই দিলীপ ঘোষের উদ্দেশে বাবুল সরাসরি লেখেন, 'রাজ্য সভাপতি হিসেবে 'মনের আনন্দে' দিলীপদা অনেক কিছুই বলেন | আবারও বললেন, আমি শুনলাম | কিন্তু এই উক্তিটি কেন করলেন সেটা যদি এবারকার জন্য আমি 'স্বজ্ঞানে' বুঝেও না বুঝি তো ক্ষতি কি?? এটাই আমার প্রতিক্রিয়া ! আমার "হাঁফ ছেড়ে বাঁচাতে" দিলীপদা আনন্দ পেয়েছেন এতেই আমি আনন্দিত ! উনি রাজ্য সভাপতি - সবার শ্রদ্ধার পাত্র ! আমিও আন্তরিক শ্রদ্ধা জানালাম প্রিয় দিলীপদাকে !!'

    তাতে যেন আগুনে আরও ঘৃতাহুতি পড়ে। বাবুলের নাম উল্লেখ না করে 'বেসুরো'দের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দেন দিলীপ ঘোষ। এরই মধ্যে দিল্লি উড়ে গিয়েছেন তিনি। সেখানে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে বাবুলদের নিয়ে তিনি কোনও অভিযোগ করেন কিনা, সেটাই এখন দেখার। যদিও আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় যে মন্ত্রিত্ব হারিয়ে মনোকষ্টে ভুগছেন, তা স্পষ্ট বলেই মত বিজেপির বড় অংশের। তাঁর ইদানীং সময়ের ফেসবুক পোস্ট সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: