• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ''ভার্চুয়াল অমিত" করোনা আবহেই শুরু বিজেপির একুশের ওয়ার্ম আপ 

''ভার্চুয়াল অমিত" করোনা আবহেই শুরু বিজেপির একুশের ওয়ার্ম আপ 

কেন্দ্রের শীর্ষ স্তরে থাবা কোভিড 19-এর ৷ করোনায় আক্রান্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ৷ চিকিৎসকের পরামর্শে ভর্তি রয়েছেন হাসপাতালে৷ সূত্রের খবর, গুড়গাঁওয়ের মেদান্তা হাসপাতালে ভর্তি ৫৫ বছরের শাহ৷ দিল্লির এইমস থেকে যাচ্ছে চিকিৎসকদের দল ৷

কেন্দ্রের শীর্ষ স্তরে থাবা কোভিড 19-এর ৷ করোনায় আক্রান্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ৷ চিকিৎসকের পরামর্শে ভর্তি রয়েছেন হাসপাতালে৷ সূত্রের খবর, গুড়গাঁওয়ের মেদান্তা হাসপাতালে ভর্তি ৫৫ বছরের শাহ৷ দিল্লির এইমস থেকে যাচ্ছে চিকিৎসকদের দল ৷

গোটা রাজ্যের নেতাকর্মী ও লক্ষাধিক সমর্থকদের কাছে অমিতের বার্তা পৌঁছে দিতে শাহের ভাষণ ও অনুষ্ঠানটি ফেসবুক ও সোশ্য়াল মিডিয়ায় সরসরি লাইভ সম্প্রচারের ব্যবস্থা করবে রাজ্য বিজেপি।

  • Share this:

ARUP DUTTA

#কলকাতা: সশরীরে নয়।  রাজ্যে পরিবর্তনের দামামা বাজাতে পর্দায় আবির্ভূত হবেন তিনি। তিনি মানে অমিত শাহ। টেলি প্রযুক্তির ভাষায় যাকে বলে ভার্চুয়াল মিটিং।  সৌজন্যে করোনা। করোনা আবহের মধ্যেই শুরু হয়ে গেল নির্বাচনের রাজনীতি। চলতি বছরের শেষে নভেম্বরে ভোট বিহারে। আর, তারপরেই ২১ শের মাঝামাঝি এ রাজ্যে বিধানসভা ভোট।  সঙ্গে আরও চারটি রাজ্যেও বিধানসভা ভোট। সেগুলি হল, কেরল, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি ও অসম। রাজনৈতিক দিক থেকে বিজেপির কাছে এই পাঁচ রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমাদের রাজ্যের ভোট। কারণ, এই পাঁচ রাজ্যের মধ্যে একমাত্র পশ্চিমবঙ্গেই পরিবর্তন ও বিজেপির সম্ভবনা খুবই উজ্জ্বল বলে মনে করছে বিজেপি ও রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

বাকি, বিহারে বড়জোর ক্ষমতাসীন নীতিশ কুমারের সঙ্গে জোট করে কিছু আসন বাড়াতে পারে বিজেপি। একইভাবে বাকি তিন রাজ্যেই বিজেপির ক্ষমতা দখলের কোনও সম্ভবনা নেই বললেই চলে। তাই পাখির চোখ পশ্চিমবঙ্গ। আর, তার প্রমাণ করোনা, লকডাউনের মধ্যেই এ রাজ্যেকে সামনে রেখে রাজনৈতিক কর্মসূচি শুরু করে দেওয়া। কিন্তু, করোনা ও লকডাউনের জেরে বিশ্ব পরিস্থিতি যেভাবে বদলে গিয়েছে, তা থেকে বাদ যায়নি আমাদের দেশও। সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে এখন কথায় কথায় ব্রিগেড বা জেলায় জেলায় সভা করা সম্ভব নয়। কিন্তু, তা বলে  ভোট,  রাজ্যে রাজ্যে ক্ষমতা দখলের লড়াই তো আর থেমে থাকবে না। তাই  ২১-এর ওয়ার্ম আপ শুরু করতে ''ভার্চুয়াল মিটিং"-এর মাধ্যমে পার্টি কর্মীদের উজ্জীবিত করা ও জনমত তৈরির চেষ্টা শুরুর দায়িত্ব ফের নিজের কাঁধেই তুলে নিলেন মোদীর বিশ্বস্ত সেনাপতি অমিত শাহ। নতুন করে সূচির কোনও পরিবর্তন আর না হলে, ৮  জুনের বদলে ৯ জুন বিহার ও পশ্চিমবঙ্গের জন্য ভার্চুয়াল মিটিং দিয়ে কর্মসূচি শুরু করবেন অমিত শাহ। এরপর, সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা থেকে শুরু করে কেন্দ্র ও রাজ্যস্তরের একাধিক নেতৃত্ব এ ধরনের সভা করবেন।

এ রাজ্যে অমিত শাহের প্রথম সভার জন্য রাঢ় বাংলার পাঁচটি মন্ডলকে বেছে নিয়েছেন অমিত নিজেই। অর্থাৎ, সেই জঙ্গলমহল। বিগত  লোকসভা ভোটে যা গেরুয়া হয়ে গিয়েছে। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ চান, এ রাজ্যের জন্য সভা করুন অমিত শাহ। বাকিটা, রাজ্য নেতারাই সামলে নেবেন। তবে, অমিত শাহের প্রথম সভার জন্য নিদৃষ্ট মন্ডলের এক হাজার নেতা সরাসরি যুক্ত থাকলেও, গোটা রাজ্যের নেতাকর্মী ও লক্ষাধিক  সমর্থকদের কাছে অমিতের বার্তা পৌঁছে দিতে শাহের ভাষণ ও অনুষ্ঠানটি ফেসবুক ও সোশ্য়াল মিডিয়ায় সরসরি লাইভ সম্প্রচারের ব্যবস্থা করবে রাজ্য বিজেপি। প্রতিপক্ষ শিবিরের এই প্রস্তুতি নিয়ে মুখে মন্তব্য এড়িয়ে গেলেও, সতর্ক তৃণমূল ও তার ভোট যুদ্ধের চাণক্য প্রশান্ত কিশোর। তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা ও আমফানকে রাজ্যের আগামী বিধানসভা নির্বাচনের ইস্যু বানিয়ে বিজেপির রণকৌশল ভেস্তে দিতে পাল্টা ঘুঁটি সাজাচ্ছেন প্রশান্ত।

Published by:Simli Raha
First published: