corona virus btn
corona virus btn
Loading

মদের কালোবাজারি রুখতে আবগারি দফতরকে চিঠি যুবলীগের

মদের কালোবাজারি রুখতে আবগারি দফতরকে চিঠি যুবলীগের

লকডাউনের বাজারে রমরমিয়ে চলছে মদের কালোবাজারি

  • Share this:

#কলকাতা: লকডাউন চলছে। হাতে অঢেল সময়। বাইরে মাঝে মধ্যেই আকাশ কালো করে নেমে আসছে বৃষ্টি। সূরা প্রেমীরা এই আবহাওয়াকে আহ্লাদ করে নাম দিয়েছে 'আবগারি ওয়েদার'। কিন্তু আবগারি ওয়েদার হলে কী হবে? আসল জিনিসটাই তো নেই। ওটা ছাড়া কী 'আবগারি ওয়েদার' জমে?  লকডাউনের মধ্যে 'আবগারি ওয়েদার'কে স্পেশাল করতে জলের মতোই টাকা খরচ করতে হবে। আর এই সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির মানুষ কালোবাজারি শুরু করেছে। এরফলে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে চলেছে প্রচুর মানুষ। এই অভিযোগ জানিয়ে রাজ্যের আবগারি দফতরকে চিঠি দিল ফরওয়ার্ড ব্লকের যুব সংগঠন যুবলীগ। এই বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ করারও দাবি জানানো হয়েছে সংগঠনের পক্ষ থেকে। অর্থাৎ মদের কালোবাজারি চলবে না!

এতটা পড়ে যদি কেউ মনে করেন যুবলীগ মদের কালোবাজারি বন্ধ করতে চাওয়া মনে সূরা প্রেমীদের পক্ষে কথা বলছেন তাহলে একদমই ভুল ভাবছেন। কারণ মদের বিরুদ্ধেই দীর্ঘদিন আন্দোলন করছে যুবলীগ। যুবলীগের নেতা সুদীপ বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছেন, 'আমরা মদমুক্ত বাংলা চাই। আজ সারাদেশ করোনা  আক্রান্ত। দেশ আজ মহামারীর শিকার। এই পরিস্থিতিতে মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে বিভক্ত। এক শ্রেণীর মানুষ আজ শুধুমাত্র খাবারের জন্য লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। অন্যশ্রেণী মদের জন্য কালোবাজারিদের শিকার হচ্ছেন। সমাজে মদের প্রভাব সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকারক। বিজ্ঞান বলছে তিন পেগ মদ খেলে এক ঘণ্টায়আয়ু কমে। 'দ্য  ল্যনসেট পাবলিক হেলথ'-এর গবেষনায় উঠে এসেছে, মদ্যপানের কারণে  ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। এছাড়াও মদের কারণেই আইন শৃঙ্খলার অবনতি। তার প্রমাণ বিহার। লকডাউনে মদের দোকান বন্ধ। কঠোর ভাবে তা রাজ্যে পালন হচ্ছে। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিজেদের মুনাফা লোটার স্বার্থে দেশকে এই বিপদের মধ্যে ঠেলে দিচ্ছে। আর কিছু বেকার যুবককে একাজে ব্যবহার করে বিপথে পরিচালিত করছে। এটা বন্ধ করার জন্য প্রশাসনকে পদক্ষেপ করতে হবে। এই দাবি জানিয়েই চিঠি দেওয়া হয়েছে আবগারি দফতরকে।

UJJAL ROY

 
Published by: Rukmini Mazumder
First published: April 27, 2020, 10:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर