কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মহালয়ার দিনেই ফের যাত্রা শুরু, দীর্ঘ ১১ বছর পর সরাসরি লন্ডনের মাটি ছোঁবে কলকাতার বিমান

মহালয়ার দিনেই ফের যাত্রা শুরু, দীর্ঘ ১১ বছর পর সরাসরি লন্ডনের মাটি ছোঁবে কলকাতার বিমান
প্রতীকী ছবি

মাঝের সময়টা দীর্ঘ এগারো বছর। এক দশকেরও বেশি সময় পরে ফের লন্ডনের মাটি ছোঁবে কলকাতা থেকে সরাসরি উড়ে আসা বিমান।

  • Share this:

#কলকাতা: মাঝের সময়টা দীর্ঘ এগারো বছর। এক দশকেরও বেশি সময় পরে ফের লন্ডনের মাটি ছোঁবে কলকাতা থেকে সরাসরি উড়ে আসা বিমান। সিঙ্গুর থেকে টাটার চলে যাওয়া, নন্দীগ্রামে জমি আন্দোলন, এ সবের মধ্যেই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল লন্ডন-কলকাতা উড়ান। শিল্পবিমুখ বাংলার দুর্নামে যুক্ত হয়েছিল আরও একটি মাইলস্টোন। প্রায় ১১ বছর পরে লক্ষ্মীবার, দেবীপক্ষের আবাহনের সঙ্গে সঙ্গেই ফের শুরু হচ্ছে লন্ডন-কলকাতা সরাসরি বিমান পরিষেবা। স্বভাবতই, এমন এক ইতিবাচক পদক্ষেপকে ঘিরে নতুন করে আশায় বুক বাঁধছে এ রাজ্যের শিল্পমহল।

মাঝখানের এই এগারো বছর, যে সময় বন্ধনীতে হিথরোর মাটি ছোঁয়নি কলকাতার বিমান, সে সময়ে লন্ডন যেতে অনেক হ্যাপা পোহাতে হয়েছে কলকাতাবাসীকে। অতিরিক্ত গাঁটের কড়ি খরচ করে অনেক শহর পাড়ি দিয়ে যেতে হয়েছে লন্ডন। সে কথা মনে করিয়ে দিচ্ছিলেন চিকিৎসা ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত কলকাতার বাসিন্দা গৌরব আগরওয়াল। তাঁর বাবা শরণ আগরওয়াল ছিলেন কলকাতা-লন্ডন উড়ানের নিয়মিত যাত্রী। শরণ বলেন, "আগে এক বিমানে লন্ডনে পৌঁছে যাওয়ার সুবিধেই ছিল বেশি। বারবার নামা-ওঠা করা, সময়ে পৌঁছে অন্য শহর থেকে বিমান ধরার ঝক্কি, সে সব ভাবলেই টেনশন হত। এখন আবার সে সব ভাবার দিন শেষ।" গৌরবের দাবি, "এতে শুধু যাত্রা অনেক বেশি মসৃণ হবে না। লন্ডন থেকে ব্যবসা কলকাতায় আনার সুযোগও বাড়বে।"

মারিয়াম কাজি বৃহস্পতিবার লন্ডনের বিমানে যাচ্ছেন বিলেতে মাস্টার্স করতে। তাঁর মা ফারহা কাজীও এক সময় যাতায়াত করেছেন কলকাতা-লন্ডন। মারিয়ামের কথায়, "এই সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু না হলে হয়তো এমন কোভিড পরিস্থিতিতে লন্ডন যাওয়াই হয়ে উঠত না। যত বার নামব, উঠব, তত বার তো সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়বে। সরাসরি বিমানে সে সব ভয় অনেক কম।"

সপ্তাহে দু'দিন করে আপাতত শুরু হচ্ছে কলকাতা-লন্ডন উড়ান। বৃহস্পতিবার ও রবিবার কলকাতা থেকে হিথরোর উদ্দেশে রওনা দেবে বিমান। আর লন্ডন থেকে আসবে বুধবার ও শনিবার। তবে যাত্রী বাড়লে খুব শীঘ্রই এই পরিষেবা সপ্তাহে দু'দিন থেকে বেড়ে তিন দিন হবে, এমনই আশা ট্রাভেল এজেন্ট ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবির। তিনি বলেন, "আগে আমরা ইকোনমি ক্লাসে প্রতি উড়ানে দেড়শো টিকিট বুকিং করতাম। কোভিড পরিস্থিতিতেও ওই সংখ্যা একশো হচ্ছে। তাই, আমরা আশাবাদী। শুধু কলকাতা নয়, পূর্ব ভারতের নিরিখে এই উড়ান শিল্পের নিরিখে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।" বৃহস্পতিবারের উড়ানে অবশ্য সাকুল্যে ৭০জন যাত্রী লন্ডন যাচ্ছেন। তবে এই সংখ্যা ক্রমেই বাড়বে, অন্তত শিল্পমহলের এমনটাই আশা।

SHALINI DATTA

Published by: Shubhagata Dey
First published: September 16, 2020, 11:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर