• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বধূহত্যার ঘটনায় উত্তপ্ত পার্কসার্কাস, বিক্ষোভ-অবরোধ তুলতে পুলিশের লাঠিচার্জ

বধূহত্যার ঘটনায় উত্তপ্ত পার্কসার্কাস, বিক্ষোভ-অবরোধ তুলতে পুলিশের লাঠিচার্জ

মহিলাকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় রণক্ষেত্র পার্ক সার্কাস এলাকা। দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে গত দেড় ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ পার্ক সার্কাস ৷ রাস্তায় ইঁট রেখে রাস্তা অবরোধ করে তিলজলার বাসিন্দারা প্রতিবেশী গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা করার অপরাধে দোষীদের গ্রেফতারের দাবি জানাতে থাকেন ৷

মহিলাকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় রণক্ষেত্র পার্ক সার্কাস এলাকা। দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে গত দেড় ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ পার্ক সার্কাস ৷ রাস্তায় ইঁট রেখে রাস্তা অবরোধ করে তিলজলার বাসিন্দারা প্রতিবেশী গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা করার অপরাধে দোষীদের গ্রেফতারের দাবি জানাতে থাকেন ৷

মহিলাকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় রণক্ষেত্র পার্ক সার্কাস এলাকা। দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে গত দেড় ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ পার্ক সার্কাস ৷ রাস্তায় ইঁট রেখে রাস্তা অবরোধ করে তিলজলার বাসিন্দারা প্রতিবেশী গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা করার অপরাধে দোষীদের গ্রেফতারের দাবি জানাতে থাকেন ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: মহিলাকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় রণক্ষেত্র পার্ক সার্কাস এলাকা। দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে গত দেড় ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ পার্ক সার্কাস ৷

    শুক্রবার তিলজলা থানা এলাকার বাসিন্দা নাজেয়া ফাইজিকে পুড়িয়ে খুনের অভিযোগ ওঠে স্বামী আবদুল এফাক সহ একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় স্বামী আবদুলকে। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে শনিবার পার্ক সার্কাস সেভেন পয়েন্ট ক্রসিংয়ে চার নম্বর ব্রিজের নিচে শুরু হয় অবরোধ। ইট দিয়ে রাস্তা আটকে দেওয়া হয়। এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভ সরাতে এলে পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বাধে। পুলিশকে লক্ষ করে ইট পাটকেল ছোড়া হয়। পোড়ানো হয় পুলিশের কুশপুতুল। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে লাঠি চালায় পুলিশ। বিক্ষোভের ঘটনায় মোট পঁচিশ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

    গুরুত্বপূর্ণ ওই ক্রসিংয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করতে বসানো হয় পুলিশ পিকেট। এলাকায় এখনও যথেষ্ট উত্তেজনা থাকায় মোতায়েন বিশাল পুলিশবাহিনী ৷

    ঘরে ঘরে চলছে ধনদেবীর আরাধনা ৷ অথচ তার আগের রাতেই ‘গৃহলক্ষ্মী’ -কে পুড়িয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল তিলজলায় ৷ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে বছর বাইশের বধূ নাজিয়া ফৈজকে পুড়িয়ে হত্যা করার অভিযোগ এনেছেন মৃতার আত্মীয়রা ৷ প্রায় চার বছর আগেই পেশায় প্রোমোটার আবদুল আফাকের সঙ্গে বিয়ে হয় নাজিয়ার ৷ তাদের দুই সন্তানও রয়েছে ৷ একজনের বয়স তিন ও অন্যজনের বয়স মাত্র ছয় মাস ৷ নাজিয়ার পরিবার জানিয়েছেন, বহুদিন ধরেই নাজিয়ার উপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে আবদুল ৷ এক মহিলার সঙ্গে আবদুলের বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল বলে জানিয়েছেন নাজিয়ার পরিবার ৷ সেই নিয়েই নাজিয়ার সঙ্গে চলত তাঁর নিত্য অশান্তি ৷ বিয়ে থেকে মুক্তি পেতে নাজিয়াকে মারধর করত আবদুল ৷ শুক্রবার নাজিয়ার পরিবারকে ফোন করে জানানো হয়, যে নাজিয়া আগুনে পুড়ে গিয়েছে ৷ হাসপাতালে গিয়ে নাজিয়ার শ্বশুরবাড়ির তরফ থেকে কী করে আগুন লাগল সেই নিয়ে কোনও স্পষ্ট তথ্য না পেয়ে নাজিয়ার পরিবারের সন্দেহ হয় ৷ পরে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তাঁরা ৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামী আবদুল আফাককে এদিন সকালে গ্রেফতার করে পুলিশ ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, জেরায় খুনের কথা স্বীকার করেছে আবদুল ৷

    First published: