মুখোমুখি সিপিএম-বিজেপির মিছিল, JNU-র প্রতিবাদ মিছিলে উত্তপ্ত যাদবপুরের সুলেখা মোড়

মুখোমুখি সিপিএম-বিজেপির মিছিল, JNU-র প্রতিবাদ মিছিলে উত্তপ্ত যাদবপুরের সুলেখা মোড়

মিছিল পাল্টা মিছিলে উত্তেজনা ছড়ায় সুলেখা মোড়ে ৷ সুলেখা মোড়ে ২টি মিছিল আটকাল পুলিশ ৷ টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি ৷

  • Share this:

#কলকাতা: JNU-র প্রতিবাদে মিছিলে উত্তেজনা ৷ যাদবপুরের সুলেখা মোড় মুখোমুখি সিপিএম-বিজেপির মিছিল ৷ মিছিল পাল্টা মিছিলে উত্তেজনা ছড়ায় সুলেখা মোড়ে ৷ সুলেখা মোড়ে ২টি মিছিল আটকাল পুলিশ ৷ টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি ৷

মিছিল-পালটা মিছিলে উত্তপ্ত যাদবপুর। সুলেখা মোড়ে মুখোমুখি বিজেপি ও যাদবপুরের পড়ুয়ারা। দু’পক্ষের মধ্যে বচসা। হাতাহাতি। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি। পড়ুয়াদের উপর পুলিশের বেধড়ক লাঠি। পরে দুঃখপ্রকাশ।

৩ মিছিলে রণক্ষেত্র যাদবপুর। সোমবার সন্ধেয়, মিছিল-পালটা মিছিলে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সুলেখা মোড়। CAA-NRC-র সমর্থনে বাঘাযতীন থেকে যাদবপুরের দিকে এগোতে থাকে বিজেপির মিছিল। পালটা JNU-এ হামলার ঘটনার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাঘাযতীনের দিকে এগোয় যাদবপুরের পড়ুয়াদের মিছিল। পথে নামে বামেরাও। ৮ তারিখ সাধারণ ধর্মঘটের সমর্থন সুকান্ত সেতু হয়ে যাদবপুরের দিকে এগোয় তাদের মিছিল। এই তিন মিছিলকেই সুলেখা মোড়ে আটকে দেয় পুলিশ। তখন বিজেপি ও যাদবপুরের পড়ুয়ারা একেবারে মুখোমুখি। দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় বচসা। সেখান থেকে হাতাহাতি।

বিজেপির একজনকে পড়ুয়ারা মারছেন সেই ছবি আছে। বামেদের মিছিল থেকে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা হয়। কিন্তু, এতে ছবিটা বদলায়নি। একদিকে যাদবপুরের পড়ুয়াদের স্লোগান, উলটো দিকে বিজেপির টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ। পোড়া টায়ার লেগে আহত হন ডিসি এসএসডি সুদীপ সরকার। পরিস্থিতি ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠতে থাকে। লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ।

পুলিশের ডিসি এসসডি সুদীপ সরকার জানান, ' ভুল বোঝাবুঝি থেকে হয়েছে। আমরা কখনওই পড়ুয়াদের উপরলাঠি চালাতেচাইনি। আমরা কথা বলছি।' রাতে সুলেখা মোড় অবরোধ করেন যাদবপুরের পড়ুয়ারা।

First published: January 6, 2020, 7:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर