• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ফের মামলার ফাঁসে আটক টেট, থমকে যাবে প্রাথমিকে নিয়োগ ?

ফের মামলার ফাঁসে আটক টেট, থমকে যাবে প্রাথমিকে নিয়োগ ?

স্বস্তি নেই টেট পরীক্ষার্থীদের ৷ ফের প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা ৷

স্বস্তি নেই টেট পরীক্ষার্থীদের ৷ ফের প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা ৷

স্বস্তি নেই টেট পরীক্ষার্থীদের ৷ ফের প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

     #কলকাতা: স্বস্তি নেই টেট পরীক্ষার্থীদের ৷ ফের প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা ৷ বৃহস্পতিবার মামলাকারীরা হলফনামা জমা না দেওয়ায় রিভিউ পিটিশন মামলার রায় স্থগিত রাখেন ৷ টেট মামলায় বিচারপতি সিএস কারনানের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ফের কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হল মামলা ৷ ডিভিশন বেঞ্চের কাছে রায়ে স্থগিতাদেশ চেয়ে মামলা করেছেন আবেদনকারী ৷ ফলে নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে ৷ মামলার শুনানি হবে ২৬ সেপ্টেম্বর ৷

    বহু প্রতীক্ষার পর আইনি জট কাটিয়ে ১৪ সেপ্টেম্বর টেট পরীক্ষার ফল প্রকাশের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই টেটের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে নতুন করে মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাইকোর্টে ৷  বিচারপতি সি এস কারনানের বেঞ্চে মামলকারী চিন্ময় দলুই রিভিউ পিটিশন দাখিল করেন ৷

    সেই মামলার শুনানিতে রাজ্যকে মোট কত পরীক্ষার্থী টেট পরীক্ষা দিয়েছিল, কত জন পাস করেছে এবং একইসঙ্গে কত জন প্রশিক্ষিত পরীক্ষার্থী ও কত জন প্রশিক্ষণহীন পরীক্ষা দিয়েছিলেন,তাদের পাসের পরিসংখ্যান সংক্রান্ত তথ্য রাজ্যকে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি সিএস কারনান ৷

    আরও পড়ুন

    কী প্রক্রিয়ায় হতে চলেছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ? দেখে নিন

    গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাজ্যের পক্ষে অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল রিপোর্ট দিয়ে জানায়, পরীক্ষায় বসেছিলেন প্রায় ২২ লক্ষ চাকরিপ্রার্থী ৷ প্রশিক্ষিত ও প্রশিক্ষণহীনদের পরিসংখ্যান এখনই দেওয়া অসুবিধের ৷ টেট উত্তীর্ণদের ইন্টারভিউয়ের পরই পরিসংখ্যান স্পষ্ট করতে পারবে রাজ্য ৷

    আরও পড়ুন

    বদলাচ্ছে উচ্চপ্রাথমিকেরও নিয়োগ প্রক্রিয়া, দেখে নিন কেমন হবে SSC ইন্টারভিউ

    রাজ্যের জবাবে সন্তুষ্ট বিচারপতি সি এস কারনান, মামলাকারীদেরই অতিরিক্ত হলফনামা দিয়ে অনিয়ম খুঁজে দিতে বলেন ৷ একইসঙ্গে টেটে ফল প্রকাশে কোনও অস্বচ্ছতা খুঁজে পায়নি হাইকোর্ট বলে জানানো হয় ৷ তাই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়ায় কোনওরকম স্থগিতাদেশ দেয়নি আদালত।

    এই রায়ে অসন্তুষ্ট মামলাকারীরা স্থগিতাদেশ চেয়ে ফের ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন জানিয়েছেন ৷ মামলাকারীদের তরফে অভিযোগ করা হয়, টেট-তথ্য আড়াল করছে রাজ্য। অন্য এক মামলাকারীর আইনজীবী জানান, সারদা-নারদার মতো প্রাথমিক টেটও বড় একটি কেলেঙ্কারি।

    আরও পড়ুন

    টেটের ফল প্রকাশের পরও নিয়োগ সংক্রান্ত বহু প্রশ্ন রয়ে গিয়েছে মনে, জেনে নিন উত্তর

    এমনকি ১৯ তারিখ বিচারপতির কাছে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়ারও আর্জি জানিয়েছিলেন মামলাকারীরা ৷ এরপরই বিচারপতি মামলাকারীরদের অতিরিক্ত হলফনামা জমার নির্দেশ দেন। হলফনামায় প্রাথমিক টেটের অনিয়ম সংক্রান্ত তথ্য দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। সরকারি নথির উপর ভিত্তি করেই হলফনামার নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি কারনান।

    নতুন করে স্থগিতাদেশ চেয়ে মামলা করায় নিয়োগ প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে ৷ টেটের ফল প্রকাশের পরই রাজ্যের পরিকল্পনা ছিল পুজোর মধ্যেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করার ৷ সেই মতো কিছুদিনের মধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষকপদের ইন্টারভিউয়ের বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশের কথা ৷ নতুন করে টেট নিয়ে মামলা দায়ের হওয়ায় আবারও আদালতের রায়ের উপর নির্ভর করে ঝুলে রইল টেটে সফল পরীক্ষার্তীদের ভবিষ্যৎ ৷

    যদিও প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মাণিক বন্দ্যোপাধ্যায় আশ্বস্ত করেছেন,  যথাসময়েই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি বেরোবে ৷

    First published: