• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • AFTER RESIGNS FROM CONGRESS SUSHMITA DEV MIGHT TO JOIN TMC SHE IS COMING TO KOLKATA SB

Sushmita Dev Resigns: 'অসম নিজের মেয়েকে চায়' তত্ত্বেই সুস্মিতাকে চায় তৃণমূল? কলকাতায় তৈরি হবে রুটম্যাপ

মমতা ও সুস্মিতা

Sushmita Dev Resigns: অখিল গগৈয়ের তৃণমূলে যোগদান এখনও দিনের আলো না দেখলেও অনেকেরই ধারণা, সুস্মিতা যেভাবে দল ছেড়ে দিলেন, তাতে তাঁর তৃণমূলে যোগদান সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

  • Share this:

    #কলকাতা: কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধিকে চিঠি লিখে কংগ্রেস ছাড়লেন দলের প্রাক্তন সাংসদ তথা মহিলা কংগ্রেসের সভানেত্রী সুস্মিতা দেব। অসমের শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ সুস্মিতা দল ছাড়ার পরেই জল্পনা শুরু হয়েছে, তবে কি এ বার তৃণমূলে যোগ দেবেন তিনি? সেই জল্পনা উসকেই সোমবারই কলকাতায় আসছেন সুস্মিতা। সূত্রের খবর, তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক হতে পারে তাঁর। সিএএ বিরোধী আন্দোলনের মুখ অখিল গগৈকেও দলে এনে অসমে সংগঠন মজবুত করার চেষ্টা চালিয়েছিল তৃণমূল। অখিলের তৃণমূলে যোগদান এখনও দিনের আলো না দেখলেও অনেকেরই ধারণা, সুস্মিতা যেভাবে দল ছেড়ে দিলেন, তাতে তাঁর তৃণমূলে যোগদান সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

    কিন্তু কেন সুস্মিতাকে দলে টানতে তৎপরতা বাড়িয়েছে এ রাজ্যের শাসক দল? রাজনৈতিক মহল বলছে, সুস্মিতার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক জ্ঞান। কংগ্রেসের সর্বভারতীয় মহিলা সংগঠনের শীর্ষে থেকেও দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। তাছাড়াও সন্তোষ দেবের কন্যা হিসেবেও দেশের রাজনীতিতে সুস্মিতার একটা গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হয়েছে। সর্বোপরি, মহিলা মুখ হিসেবে অসমে সুস্মিতা দেবই হতে পারেন তৃণমূলের ট্রাম্প কার্ড। এ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে 'বাংলা নিজের মেয়েকে চায়' স্লোগানে ভর করে তৃতীয় বারের মতো ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে অসমেও একজন মহিলাকে সামনে রেখে এগোলে ডিভিডেন্ট মিলতে পারে বলে মনে করছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

    অপরদিকে, সুস্মিতার দলত্যাগে বিড়ম্বনায় পড়েছে কংগ্রেসে। সুস্মিতা দেবের পদত্যাগ প্রসঙ্গে কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালার বক্তব্য, "সুস্মিতা ভালো মানুষ। ভালো রাজনীতিক। তিনি কেন আচমকা দল ছাড়লেন তা আমাদের জানা নেই। কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধি এখনও সুস্মিতার পদত্যাগপত্র পাননি। সুস্মিতার মোবাইল ফোন বন্ধ। তার সঙ্গে কথা না বলে দল কোনও মন্তব্য করবে না।" কিন্তু কংগ্রেসের 'বিদ্রোহী' নেতা কপিল সিব্বল রীতিমতো দলীয় নেতৃত্বকেই নিশানা করেছেন।

    সনিয়াকে লেখা চিঠিতে সুস্মিতা বলেন, ‘জাতীয় কংগ্রেসের সঙ্গে তিন দশকের সম্পর্ক শেষ করছি। আমার পাশে থাকার জন্য সতীর্থ ও দলের নেতা-মন্ত্রীদের ধন্যবাদ। তিন দশকের স্মৃতি আমি সারা জীবন মনে রাখব।’ এ ছাড়া পথ প্রদর্শন ও সহযোগিতার জন্য সনিয়াকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন সুস্মিতা।

    Published by:Suman Biswas
    First published: