বিজেপি বিপদে পড়লেই এগিয়ে আসেন দিদি,বিজেপি-তৃণমূলের বিরুদ্ধে একযোগে সবর অধীর

বিজেপি বিপদে পড়লেই এগিয়ে আসেন দিদি,বিজেপি-তৃণমূলের বিরুদ্ধে একযোগে সবর অধীর

অধীর চৌধুরীর দাবী তিনি দিদি ও মোদীর ভাবনার মধ্যে কোন ফারাক দেখেন না

  • Share this:

#কলকাতা: 'বাংলায় চারজন নোবেল পুরস্কার পেয়েছে। সেই রাজ্যের রাজ্যপাল এমন কথা বললে দূর্ভাগ্যের। ধনকড় বরং ওই তীরগুলি মোদীকে দিয়ে দিন। মোদী পছন্দ মত দেশগুলিতে তীর মারুক।' বুধবার বারাসাত আদালতে মামলায় হাজিরা দিতে এসে কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী তোপ দাগেন রাজ্যপালের বিরুদ্ধে। একই সঙ্গে তৃণমুল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও তোপ দাগেন তিনি।

অধীর চৌধুরীর দাবী তিনি দিদি ও মোদীর ভাবনার মধ্যে কোন ফারাক দেখেন না। তার অভিযোগ বিজেপি বিপদে পড়লেই দিদি এগিয়ে আসেন। ইউ এ পি এ আইন পাশ কিংম্বা সি এ বি পাশের সময় দিদি বিজেপিকে সহযোগিতা করেছে। সিএএ সহ অন্যান্য ইস্যুকে সমর্থন জানিয়ে বনধকে বাংলায় ব্যার্থ করে দিদি মোদীকে বার্তা দিয়েছেন বলে অধীর চৌধুরীর অভিযোগ। তার দাবী মমতা এমন বলছেন যেন জীবনে বনধ দেখেনি। হিংসা দেখেনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেআইনি কজের আঁতুর ঘরে জন্মে সারা জীবন ভাঙ্গচুরের রাজনীতি করে এখন বনধের বিরোধিতা করছেন।

এই দিন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী স্বীকার করেন রাজ্যে কংগ্রেস ও বামেরা দূর্বল। তাদের দূর্বল করেছে তৃণমুল। আর তার জেরেই সাম্প্রদায়িক শক্তি রাজ্যে বেড়েছে। তাদের শক্তিকে তৃণমুল এভাবে না কমালে ধর্মীয় শক্তি রাজ্যে মাথা চাড়া দিতে পারতো না বলে অধীরের দাবি। অধীর চৌধুরী বলেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব সময় বিজেপির সহযোগী শক্তি। তবে বিজেপি দেশের অন্যান্য রাজ্যের মত এ রাজ্যকে টার্গেট করেছে বলে মেনে নেন তিনি। নিজের সোশ্যাল মিডিয়াপ মন্তব্যে যে কোন ধর্মযুদ্ধ শুরু করেননি তিনি, সেটাই মনে করেন অধীর চৌধুরী৷

First published: 02:53:25 PM Jan 15, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर