Abhishek Banerjee: গুরুদায়িত্ব পেয়েই গুরুজনদের কাছে অভিষেক, পার্থর পর গেলেন সুব্রত বক্সির বাড়িতে

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বা়ড়িতে অভিষেক৷

রাজ্য রাজনীতি থেকে একেবারে জাতীয় স্তরে অভিষেকের অভিষেক (Abhishek Banerjee)। রবিবার বেলা সাড়ে বারোটা নাগাদ অভিষেক এসে পৌঁছন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাকতলার বাড়িতে।

  • Share this:

#কলকাতা: গতকালই দল তাঁকে গুরু দায়িত্ব দিয়েছে। আর দায়িত্ব পেয়েই গুরুজনের  আশীর্বাদ নিতে আজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পৌঁছে যান তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে। বিকেলের দিকে তৃণমূলের আর এক শীর্ষ নেতা সুব্রত বক্সির বাড়িতেও যান অভিষেক৷

রাজ্য রাজনীতি থেকে একেবারে জাতীয় স্তরে অভিষেকের  অভিষেক। রবিবার বেলা সাড়ে বারোটা নাগাদ অভিষেক এসে পৌঁছন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাকতলার  বাড়িতে। টানা প্রায় দু' ঘণ্টা ধরে দু' জনের মধ্যে কথাবার্তা চলে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে দাবি, রাজনৈতিক জীবনের নতুন  ইনিংস শুরু করার আগে গুরুজনদের কাছ থেকে আশীর্বাদ নেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক পরামর্শও নেবেন তৃণমূলের নবনিযুক্ত সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। শুধু পার্থ চট্টোপাধ্যায়ই নন, দীর্ঘদিন ধরে দলের যাঁরা প্রথম দিন থেকে লড়াইয়ের সঙ্গী একে একে তাঁদের সঙ্গেও অভিষেক সাক্ষাৎ করবেন বলে খবর।

তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে গতকালই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম চূড়ান্ত হয়। সঙ্গে সঙ্গেই শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীরা তাঁকে স্বাগত জানান। সুব্রত মুখোপাধ্যায় থেকে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌগত রায় থেকে কাকলি ঘোষ দস্তিদার, ফিরহাদ হাকিম কিংবা চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের মতো শীর্ষ নেতৃত্ব বলেন, যোগ্য মানুষকে যোগ্য পদ দেওয়া হয়েছে। অভিষেকের জাতীয় রাজনীতির ময়দানে আত্মপ্রকাশে খুশি সবাই। গতকাল তৃণমূল ভবনে  নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  উপস্থিতিতে প্রথমে ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক তার পর ভার্চুয়ালি দলের সাংসদ, বিধায়ক, সভাপতি দের সঙ্গে বৈঠকে নেত্রী স্পষ্ট বার্তা দেন, স্বচ্ছতা বজায় রেখে কাজ করতে হবে। নতমস্তক হয়ে বিপদে মানুষের পাশে থাকতে হবে। কোভিড অথবা যে কোনও সমস্যায় পড়লেই প্রত্যেককে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

 নতুন রাজনৈতিক ইনিংস শুরু করার আগে  দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে ইয়াস  বিধ্বস্ত বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দুর্গত মানুষের সঙ্গে দেখা করেন অভিষেক। তাঁদের সমস্যার কথা শোনেন এবং আশ্বাস দেন পাশে থাকার। আজ, রবিবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে বেশ কিছুক্ষণ তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। বেলা সোয়া দুটো  নাগাদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর অভিষেকের সঙ্গে তাঁর সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চেয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে দলের বিস্তার লাভ হবে৷ অভিষেক গত বিধানসভা নির্বাচনে নিজেকে প্রমাণ করেছে। বিরোধীদের কার্যত খোঁচা দিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় আরও বলেন, ওঁর যোগ্যতা নিয়ে যাঁরা প্রশ্ন তোলে তাঁরা মানুষের থেকে আজ বিচ্ছিন্ন । আমাদের মধ্যে দল ও প্রশাসন কীভাবে নিজেদের মধ্যে সমন্বয় রেখে কাজ করবে সেই বিষয়ে যেমন  কথা হয়েছে, তেমনই সংগঠনকে কীভাবে  আরও মজবুত করা যায় তা নিয়েও অনেক কথা হয়েছে। আমি ওর পাশে সব সময় আছি।'

VENKATESWAR LAHIRI

Published by:Debamoy Ghosh
First published: