কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

"যাঁরা আইন ভাঙেন, তাঁদের আইনের পথ দেখাতে পেরে খুশি!" দিলীপের আইনি নোটিসে প্রতিক্রিয়া অভিষেকের

অভিষেক জানিয়েছেন যে, যাঁরা আইন ভাঙেন, তাঁরা প্রথমবার হলেও সেই আইনের ওপর ভরসা রেখেছেন এবং হেঁটেছেন আইনি পথে৷ তাতে তিনি অত্যন্ত খুশি হয়েছেন৷

  • Share this:

#কলকাতা: সোমবার সকালে ডায়মন্ডহারবার সাংসদের দেওয়া- 'আইনি মামলা করুন', এই চ্যালেঞ্জের জবাবে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ৷ আর রাতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর প্রতিক্রিয়ায় জানালেন, দিলীপবাবুর এই পদক্ষেপে তিনি খুশি৷ News18 বাংলাকে দেওয়া এক এক্সক্লুসিভ প্রতিক্রিয়ায় অভিষেক জানিয়েছেন যে, যাঁরা আইন ভাঙেন, তাঁরা প্রথমবার হলেও সেই আইনের ওপর ভরসা রেখেছেন এবং হেঁটেছেন আইনি পথে৷ তাতে তিনি অত্যন্ত খুশি হয়েছেন৷ বিশেষত অভিষেকের জন্যই যে দিপীলবাবু আইনের সাহায্য নিয়েছেন অর্থাৎ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে তাঁকে আইনের পথে হাঁটতে বাধ্য করেছেন, সেটাই তৃণমূল সাংসদকে খুশি করেছে৷ শেষ পর্যন্ত তৃণমূল নেতার জন্য হলেও দিলীপ ঘোষ সংবিধানের নিয়ম মেনেছেন, বলছেন অভিষেক৷ বিজেপি কোনও আইন মানে না, হিংসার রাজনীতি করে, অভিযোগ অভিষেকের৷ তবে শেষ পর্যন্ত সেই বিজেপি দলের নেতাকে যে আইনের পথ দেখাতে পেরেছেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ, তাতেই জয়ের হাসি হাসছেন তিনি৷

বিতর্কের সূত্রপাত রবিবার ৷ ভাইপো বলে আক্রমণের জবাবে সাতগাছিয়ার সভা থেকে গেরুয়া শিবিরকে যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেকের চ্যালেঞ্জ,‘ভাইপো বলে আমাকে বারবার টার্গেট করা হয়েছে। যে ভারতীয় জনতা পার্টি আমাকে বারবার ভাইপো বলে ডাকছে, তাদের সাহস থাকলে আমার নাম ধরে ডাকুক। বিজেপির ছোট, বড়, মাঝারি নেতারা আমাকে বারবার ভাইপো বলে ডেকে সমালোচনা করছেন ৷ কিন্তু কেউ নাম নিতে পারে না। বুকের পাটা থাকলে নাম নিয়ে বলুন। নাম নিয়ে বলার বুকের পাটা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও নেই ৷ যিনি আমার নাম নিয়ে মিথ্যে কথা বলেছেন, তাঁকে আমি আদালতের রাস্তা দেখিয়েছি। তাই বলছি, যদি সাহস থাকে, তাহলে আমার নাম নিয়ে কথা বলুন। ’

এখানেই শেষ নয়, অভিষেক আরও বলেন, ‘ভাববাচ্যে কথা বলে লাভ নেই ৷ এই তো আমি সরাসরি নাম নিয়ে বলছি ৷ রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ গুন্ডা। আমি নাম করে বলছি কৈলাস বিজয়বর্গীয় বহিরাগত। ক্ষমতা থাকলে আমার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিন, মামলা করে দেখান।’

অভিষেকের খোলা চ্যালেঞ্জের তৎক্ষণাৎ উত্তর দেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি, ‘বুকের পাটা আছে বলেই রাজনীতি করছি ৷ ডিসেম্বরে বুঝবে কার কত পাটা ৷ FIR করার দম আছে কিনা বুঝবে কিছুদিনেই ৷ দরকার হলে গুন্ডামি করব ৷’ এখানেই শেষ নয়, খোলা মঞ্চে দাঁড়িয়ে দিলীপ ঘোষের পাল্টা চ্যালেঞ্জ, ‘হ্যাঁ আমি গুন্ডা ৷ এতদিন তোমরা গুন্ডামি করেছ,এবার আমরা করব ৷’

ডায়মন্ডহারবার সাংসদের দেওয়া- 'আইনি মামলা করুন', এই চ্যালেঞ্জের জবাবে সোমবার আইনি নোটিশ পাঠালেন দিলীপ ঘোষ ৷ তিনি বলেন, ‘এসব কী, তিনি একটা দলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড, এতবড় একটা দায়িত্বে আছেন আর তার মুখের ভাষা এই! নাম নিয়ে একজন সাংসদকে উনি গুন্ডা বলছেন, এর দায়িত্ব তো ওনাকে নিতেই হবে ৷ আইনি পদক্ষেপ না নিলে লোকে ভাববে সত্যি তাই মেনে নিচ্ছি ৷ ’ আইনি নোটিশ ইমেলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে ৷ যদিও তার তরফে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া আসেনি ৷

(Input-Kamalika Sengupta)

Published by: Pooja Basu
First published: December 1, 2020, 12:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर