Abhishek Banerjee- ইয়াস-বিধ্বস্তদের ভরসা দিতে গোটা দিন রাস্তায়, দক্ষিণ ২৪ পরগণা থেকে উত্তরে পা অভিষেকের

সন্দেশখালি পরিদর্শনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Abhishek Banerjee- কোরাকাঠি, ছোট তুষখালি, তুষখালি, ভাঙা তু্ষখালি, আতাপুর, মণিপুর, বয়ারমারি, আগারহাটি গ্রামের অবস্থা লঞ্চ থেকেই দেখেন তিনি।

  • Share this:

#সন্দেশখালি: নিজের সংসদীয় এলাকা নয়, তবু এলাকাবাসীর সমস্যা বুঝতে উত্তর ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ অংশ পরিদর্শন করলেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তর ২৪ পরগণার সন্দেশখালি মহকুমার একাধিক নদী পাশ্ববর্তী এলাকা জলপথে ঘুরে দেখেন তিনি। তাঁর সাথে ছিলেন রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, নারায়ণ গোস্বামী সহ একাধিক জেলা নেতৃত্ব। এ দিন দুপুর আড়াইটে নাগাদ ধামাখালি হেলিপ্যাড গ্রাউন্ডে আসেন অভিষেক। তারপর জলপথে সন্দেশখালির একাধিক পঞ্চায়েত ঘুরে দেখেন তিনি৷ কোরাকাঠি, ছোট তুষখালি, তুষখালি, ভাঙা তু্ষখালি, আতাপুর, মণিপুর, বয়ারমারি, আগারহাটি গ্রামের অবস্থা লঞ্চ থেকেই দেখেন তিনি।

বিদ্যাধরী নদী ধরে জলযান এগোলেই দেখা যাচ্ছে নদীর দু'ধারে ত্রাণের অপেক্ষায় প্রচুর মানুষ দাঁড়িয়ে আছেন। সন্দেশখালি বিধানসভার ১৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ১৫টি গ্রাম পঞ্চায়েত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একাধিক নদী বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই মুহূর্তে প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ আছেন ত্রাণ শিবিরে। এই সব মানুষদের প্রকৃত অবস্থা কী তা বুঝতেই এদিন প্রায় ৫৫ মিনিট পরিদর্শন করেন তিনি৷ ধামাখালি ফেরি ঘাট থেকে কোরাকাঠি অবধি দেখেন তিনি।

অভিষেককে দেখতে এদিন ভিড় জমিয়েছিলেন বহু মানুষ। এদিন এলাকা পরিদর্শন করার পরে অভিষেক বন্দোপাধ্যায় বলেন, "বহু মানুষ এখনও ত্রাণ শিবিরে আছেন। প্রশাসনের তরফ থেকে যাবতীয় সাহায্য করা হচ্ছে।  মানুষের পাশে দাঁড়াতে সকলকে বলা হয়েছে। তাই আমি নিজে জেলার সকলকে নিয়ে দেখলাম।"

স্থানীয়রা অবশ্য বাঁধ ভেঙে যাওয়া নিয়ে বারবার ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য জানিয়েছেন, "সরকার স্থায়ী সমাধান খোঁজার চেষ্টা করছে। সুন্দরবন থেকে শুরু করে দীঘা অবধি সব জায়গায় বাঁধের কাজ দেখা হচ্ছে। বারবার বাঁধ ভেঙে যাওয়ার কারণ দেখা হচ্ছে।" তবে নাম না করলেও রাজ্যের পূর্বতন সেচমন্ত্রী হিসাবে শুভেন্দুর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। এদিন রামপুরে একটি ত্রাণ শিবির পরিদর্শন করেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। প্রায় ৫০০ ব্যক্তি আছেন এই ত্রাণ শিবিরে। তাদের হাতে ত্রাণ তুলে দেন তিনি। একইসাথে যে কোনও ধরণের সাহায্যে দলীয় নেতাদের ঝাঁপিয়ে পড়তে বলেছেন তিনি।

Published by:Arka Deb
First published: