'দিলীপ ঘোষকে বহিষ্কার করুন', শীতলকুচি মন্তব্য নিয়ে মোদির কাছে 'অনুনয়' অভিষেকের

'দিলীপ ঘোষকে বহিষ্কার করুন', শীতলকুচি মন্তব্য নিয়ে মোদির কাছে 'অনুনয়' অভিষেকের

সভাস্থল থেকে দিলীপ ঘোষের পদত্যাগ দাবি করছেন, অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায়।

সভাস্থল থেকে হাতিয়ার করলেন দিলীপ ঘোষের বক্তব্য। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁর 'আর্জি', দিলীপ ঘোষকে বহিষ্কার করুক বিজেপি।

  • Share this:

    #চাকদহ: রক্তাক্ত বাংলা, কাঠগড়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনী  এবং বিজেপি। ঠিক এই ছবিটাই প্রচারের অস্ত্র করতে চাইছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দিনভর প্রচার সারলেন শীতলকুচির ঘটনাকে সামনে রেখেই। সভাস্থল থেকে হাতিয়ার করলেন দিলীপ ঘোষের বক্তব্য। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁর আর্জি,  দিলীপ ঘোষকে বহিষ্কার করুক বিজেপি।

    এ দিন বরানগরে পার্নো মিত্রের প্রচারে এসে দিলীপ ঘোষ মুখ খোলেন শীতলকুচি কাণ্ডে। তিনি বলেন, কেউ গায়ের জোর দেখালে তো আমরা আছি। আর বাড়াবাড়ি করলে জায়গায়-জায়গায় শীতলকুচি হবে।' দিলীপ ঘোষের এ হেন মন্তব্যে রাজ্য রাজনীতি আরও উত্তাল। অভিষেক যে এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করবে তা বলাই বাহুল্য। অভিষেক এদিন চাকদহের সভা থেকে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে  বলেন, "ন্যূনতম মনুষ্যত্ব থাকলে দিলীপ ঘোষকে বহিষ্কার করুন। আপনি বলছেন খারাপ ঘটনা, আর রাজ্য সভাপতি বলছেন বেশ হয়েছে, জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে।"

    প্রসঙ্গত এদিন তৃণমূলের পক্ষ থেকে একটি সাংবাদিক বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সেখান থেকে প্রশ্ন তোলা হয় যদি আত্মরক্ষার্থে গুলি চলবে, তবে সিসিটিভি ফুটেড কই ওই ঘটনার? অভিষেকও যুক্তি সাজালেন নিজের মতো করে। তাঁর প্রশ্ন, "এই  যাদের মেরেছে তাদের হাতে অস্ত্র ছিল? ঘিরে নিয়ে থাকলে শূন্যে গুলি চালান, বুকে কেন গুলি চালাচ্ছেন, তাদের অপরাধ তারা গরিব?"

    অভিষেক  মনে করছেন দিলীপ ঘোষের মন্তব্য় আখেরে বিজেপির ক্ষতিই করবে। তাঁর মতে,  আজকে যারা সভা করে বলছেন, জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে। আগামিদিন তাদের যোগ্য জবাব দেবে মানুষ। তিনি এই প্রসঙ্গে টেনে আনেন নেতাই নন্দীগ্রাম প্রসঙ্গ। তাঁর মতে আগামী দিনে সিপিএম-এর মতোই বিজেপিকে খুঁজতে হবে অনুবীক্ষণ যন্ত্রে।

    Published by:Arka Deb
    First published: