অব কি বার ট্রাম্প সরকার, ট্রাম্পের জন্য নিজের স্লোগানই তুললেন মোদি

সামনের বছর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তার আগে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশে গিয়ে তাঁর হয়ে কার্যত প্রচারে নরেন্দ্র মোদি। বুঝিয়ে দিলেন কেন অব কি বার ট্রাম্প সরকারের স্লোগান৷ নরেন্দ্র মোদির কথায়, ট্রাম্পকেই দরকার, কারণ তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তিনি লড়াই করছেন৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 23, 2019 12:17 PM IST
অব কি বার ট্রাম্প সরকার, ট্রাম্পের জন্য নিজের স্লোগানই তুললেন মোদি
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 23, 2019 12:17 PM IST

#হিউস্টন: ট্রাম্পের দেশে মোদি। মোদির মঞ্চে ট্রাম্প। ট্রাম্পের হয়ে ভোটের স্লোগান তুললেন নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদি। মঞ্চ পেয়ে ভোটের আগে ঘর গোছানোর চেষ্টা করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্পও। প্রবাসী ভারতীয়দের উদ্দেশে দিলেন বার্তা। যে স্লোগান ছিল মোদির জন্য, মোদি সেই স্লোগান তুললেন ট্রাম্পের জন্য। স্লোগান হল, অব কি বার, ট্রাম্প সরকার৷

সামনের বছর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তার আগে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশে গিয়ে তাঁর হয়ে কার্যত প্রচারে নরেন্দ্র মোদি। বুঝিয়ে দিলেন কেন অব কি বার ট্রাম্প সরকারের স্লোগান৷ নরেন্দ্র মোদির কথায়, ট্রাম্পকেই দরকার, কারণ তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তিনি লড়াই করছেন৷

আমেরিকায় ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিনিদের ভোটব্যাঙ্কের গুরুত্ব ক্রমেই বাড়ছে। এ দিন টেক্সাসের হিউস্টনে মোদির সভায় হাজির হয়ে সেই প্রবাসী ভারতীয়দের মন জয়ের চেষ্টা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট তথা রিপাবলিকান পার্টির নেতা ডোনাল্ড ট্রাম্প। পাখির চোখ, ভোটের আগে ঘর গুছানো।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, যদি ফের ক্ষমতায় ফিরি তা হলে ডোনাল্ড ট্রাম্পের থেকে ভাল বন্ধু আর ভারত পাবে না৷

সোমবার নিউইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভার অধিবেশনের সময়ে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে পার্শ্ববৈঠক করার কথা ট্রাম্পের। মঙ্গলবার ফের তাঁর পার্শ্ববৈঠক হওয়ার কথা মোদির সঙ্গে। তার আগে, এ দিন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতের পাশে থাকার বার্তা দেন ট্রাম্প। বুঝিয়ে দেন সীমান্ত পারের সন্ত্রাস বরদাস্ত করা হবে না। যা কূটনৈতিকভাবে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ।

Loading...

অনুষ্ঠানের নাম হাউডি মোদি। মার্কিন মুলুকে মোদির সেই মঞ্চেই ট্রাম্প। একে অপরকে ভরিয়ে দেন প্রশংসায়। নরেন্দ্র মোদিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাও জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

First published: 12:17:17 PM Sep 23, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर