corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোমরে পিস্তল নিয়ে শহীদ মিনারে হাজির, ধুন্ধুমার অমিত শাহের সভাস্থলে

কোমরে পিস্তল নিয়ে শহীদ মিনারে হাজির, ধুন্ধুমার অমিত শাহের সভাস্থলে

ধুন্ধুমার শহীদ মিনার চত্তরে।

  • Share this:

#কলকাতা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সভা বলে কথা। কার্যত নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছিল কলকাতা। শহীদ মিনার চত্ত্বর তখন হাই সিকিউরিটি জোন। প্রত্যেককে তল্লাশি করে তবেই সভাস্থলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। একটি দেশলাই বা লাইটার থাকলেও বাইরে রেখে যেতে হচ্ছে। এরই মধ্যে মেটাল ডিটেক্টরের বিশেষ শব্দ শুনে সন্দেহ হয় কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীদের। ওই ব্যক্তিকে তল্লাশি করতেই দেখা যায় তার কোমরে গোঁজা রয়েছে পিস্তল। সঙ্গে সঙ্গেই তৎপরতা শুরু হয়ে যায় নিরাপত্তারক্ষীদের মধ্যে। ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আধিকারিকরা। সভায় আসা বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা ঘিরে ধরেন ওই ব্যাক্তিকে। বেশ কিছুক্ষণ জেরা করার পর ওই ব্যাক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হয় বৈধ কাগজ থাকায়। যদিও সঙ্গে অস্ত্র থাকায় ওই ব্যক্তিকে সভাস্থলে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

পিস্তল নিয়ে তিনি কেন এসেছিলেন সভাতে?

নিজেকে যদু নন্দী পরিচয় দেওয়া ওই ব্যক্তির দাবি, 'তিনি দুর্গাপুরের বাসিন্দা। অবসরপ্রাপ্ত সিআরপিএফ জওয়ান। বর্তমানে বিজেপি কর্মী। তাঁর উপর আক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থেকেই সবসময় এই অস্ত্র নিয়ে ঘোরা।' তবে অমিত শাহ-র সভা দেখতে না পেয়ে চলে যাওয়াটা দুর্ভাগ্যজনক বলেই জানিয়েছেন তিনি।

তবে এই রকম নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয়ের কাছাকাছি কেউ পিস্তল নিয়ে চলে আসায় খুব স্বাভাবিক ভাবে সভাস্থলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। উত্তর ২৪ পরগনা থেকে আসা স্বপন দাস নামে এক বিজেপি কর্মী বলেন, 'এই রকম ভাবে পিস্তল নিয়ে আসাটা কোনও ভাবেই সমর্থন করা যায় না। বিশেষ করে এইরকম একটা সভায়। এখানে ভুল বার্তা যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যার দায় নিতে হয় দলকে।' সভায় আসা হওড়ার বাসিন্দা সুমনা সাহা জানান, 'এখানে অমিত শাহের সভাতে অনেকেই পরিবার নিয়ে এসেছেন। বন্দুক দেখে অনেকেই আতঙ্কিত। বড় কোনও অঘটন ঘটেনি এটাই অনেক।'

Published by: Shubhagata Dey
First published: March 1, 2020, 8:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर