4th phase Election: রাত পোহালেই ভোটচতুর্থী, উত্তর থেকে দক্ষিণ মুড়ে ফেলছে ৭৯৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী

4th phase Election: রাত পোহালেই ভোটচতুর্থী, উত্তর থেকে দক্ষিণ মুড়ে ফেলছে ৭৯৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী

চার জেলায় সু্ষ্ঠুভাবে ভোট করা কেন্দ্রীয় বাহিনীর চ্যালেঞ্জ।

চার জেলায় ভোট (West Bengal Assembly Election 2021) হতে চলেছে ৪১টি আসনে। ফলে বাড়ছে আধাসেনাও।

  • Share this:

#কলকাতা: তিন পর্বের ভোট শেষ হয়েছে। সিআরপিএফ নিয়ে তরজায় নেমে গিয়েছে যুযুধান শিবির। অভিযোগের শেষ নেই। আর এই ডামাডোলের মধ্যেই শুরু হচ্ছে আরও এক দফা ভোট। চতুর্থ দফায় ভোটের পরিধিও বাড়ছে। চার জেলায় ভোট (West Bengal Assembly Election 2021)  হতে চলেছে ৪১টি আসনে। ফলে বাড়ছে আধাসেনাও। এই দফায় মোতায়েন করা হচ্ছে ৭৯৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী।

এর মধ্যে আলিপুরদুয়ারে মোতায়েন থাকছে ৯৯ কোম্পানি।বারুইপুরে থাকছে ৪৫ কোম্পানি। চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটে থাকবে ৮৪ কোম্পানি‌। কোচবিহার ইতিমধ্যেই পৌঁছেছে ১৮৮ কোম্পানি। ডায়মন্ড হারবারে রাখা হচ্ছে ৩৯ কোম্পানি। হুগলি গ্রামীণ অঞ্চলের জন্য বরাদ্দ ৯১ কোম্পানি। হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটে রাখা হচ্ছে ১০৩ কোম্পানি। হাওড়া গ্রামীণে ৩৭ কোম্পানি আধাসেনা মোতায়েন হয়েছে। জলপাইগুড়িতে ৬ কোম্পানি আধাসেনা মোতায়েন হয়েছে। এরই পাশাপাশি কলকাতা পুলিশ কমিশনারেট ১০১ কোম্পানি মোতায়েন থাকছে। চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটে থাকবে ৭৩ কোম্পানি।

সূত্রের খবর, অন্য তিনটি দফার মতোই যে এলাকায় একটি বুথ সেখানে ৪ জন জওয়ান থাকবেন। আর মাল্টি প্রেমাইজে বা যেখানে দুই থেকে চারটি বুথ রয়েছে সেখানে থাকবেন আটজন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান। পাঁচ থেকে আটটি বুথ রয়েছে এমন ভোটকেন্দ্রে থাকবে দেড় সেকশন কেন্দ্রীয় বাহিনী অর্থাৎ মোট ১২ জন।

তৃতীয় দফায় হাওড়ারর উলুবেড়িয়ায় ইভিএম পাওয়া গিয়েছিল। আরামবাগে আক্রান্ত হন তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডল। আহত হন বিজেপি প্রার্থী পাপিয়া অধিকারী। এছাড়াও ভোটারদের প্রভাবিত করা থেকে শুরু করে পরিচয়পত্র দেখতে চাওয়া একাধিক অভিযোগ রয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্য জনসভা থেকে ক্ষোভ জানান দিয়েছে। বাহিনীকে ঘেরাও করার নিদানের জন্য তাঁকে চিঠিও পাঠানো হয়েছে কমিশনের তরফে। এর মধ্যে সুষ্ঠুভাবে ভোটপরিচালনা করাটা কমিশনের চ্যালঞ্জ।

প্রসঙ্গত এই দফায় ভোচ হতে চলেছে কলকাতার একটি অংশেও। কলকাতা পুলিশের আওতায় রয়েছে এমন ২৩৪৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে। গোলমালের আশঙ্কায় ইতিমধ্যেই পুলিশি নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। নাকাতল্লাশি চলছে দিন দুয়েক আগে থেকেই। সূত্রের খবর কলকাতা লাগোয়া এলাকাগুলিতে থাকবে বাহিনীর ৯৪টি কুইক রেসপন্স টিম। রাস্তায় টহল দেবে অন্তত ৭৫টি আরটি ভ্যান। থাকবে ১২০টির বেশি সেক্টর মোবাইল।

Published by:Arka Deb
First published: