6th phase Bengal Election: ষষ্ঠ দফায় সবচেয়ে বড় মাথাব্যথা ব্যারাকপুর, প্রস্তুতিতে ফাঁক রাখছে না কমিশন

6th phase Bengal Election: ষষ্ঠ দফায় সবচেয়ে বড় মাথাব্যথা ব্যারাকপুর, প্রস্তুতিতে ফাঁক রাখছে না কমিশন

চলছে কমিশনের টহলদারি। ফাইল চিত্র

কোনও ভাবেই যাতে শীতলকুচির মতো কোনও ঘটনা না ঘটে, তা সুনিশ্চিত করতেই এই পদক্ষেপ।

  • Share this:

    #কলকাতা: ষষ্ঠ দফায় ভোট ৪ জেলার ৪৩টি কেন্দ্রে। কিন্তু কমিশনের ঘুম কাড়ছে ব্যারাকপুর। বিশেষত ভোটের  ৪৮ ঘণ্টা আগে বোমাবাজির ঘটনায় কপালে ভাঁজ পড়েছে। সব মিলিয়ে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কোমর বেঁধে নামছেন কমিশন কমিশন। সাধারণ ভাবে একজন পর্যবেক্ষক দুই বা তিনটি আসনের দায়িত্বে থাকেন। ব্যরাকপুর মহকুমার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত দায়িত্বও  দেওয়া হচ্ছে। কোনও ভাবেই যাতে শীতলকুচির মতো কোনও ঘটনা না ঘটে, তা সুনিশ্চিত করতেই এই পদক্ষেপ। সব মিলিয়ে দুজন পুলিশ অবজারভার আর চারজন জেনারেল অবজারভার থাকবেন ব্যারাকপুর মহকুমার জন্য।

    ষষ্ঠ দফার ভোটে কমিশনের বিশেষ তালিকায় সবার প্রথম নামই  ব্যারাকপুর। দিন দুয়েক আগেই ভিডিও কনফারেন্সে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র ব্যারাকপুর নিয়ে বিশেষ গুরুত্ব দিতে বলেছেন উত্তর ২৪ পরগনা ডিস্ট্রিক্ট ইলেকশন অফিসার বা জেলাশাসককে। তিনি স্পষ্ট বলেন, ব্যারাকপুর খুব সংবেদনশীল অঞ্চল, অনেক স্পর্শকাতর' জায়গা, আপনারা বিশেষভাবে নজর রাখুন। ব্যারাকপুর এর প্রত্যেকটি বুথই অতিসংবেদনশীল। ব্যারাকপুরের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে অভিযোগ আছে।" পাশাপাশি ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনারকে বিশেষ করে ও সতর্ক থাকতে বলেন গত কালকের ভিডিও কনফারেন্সে। সব মিলিয়ে কমিশনের  ষষ্ঠ দফার ভোটে ব্যারাকপুরই মাথাব্যথা।

    ষষ্ঠ দফায় ব্যারাকপুরে অতিরিক্ত পাঁচটি QRT ভ্যান রাখার সিদ্ধান্ত কমিশনের। একইসঙ্গে প্রিভেন্টিভ অ্যারেস্ট আরো বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। পুলিশ কমিশনারকে সতর্ক করা হয়েছে। শুধু ব্য়ারাকপুর শিল্পাঞ্চলেই ১০৭ কোম্পানি পুলিশ নিয়োগ করা হচ্ছে।

    ইতিমধ্যেই অর্জুন সিংয়ের বাড়ির সামনে বোমাবাজির ঘটনার খবর পাওয়া গিয়েছে। টিটাগড়ে বোমা বাঁধতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে একজনের। বিচ্ছিন্ন অশান্তির খবর এসেছে জগদ্দল থেকে। এই পরিস্থিতিতে প্রমাদ গুনছে কমিশন।আশেপাশের থানাগুলিকে সতর্ক করা হয়েছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: