বারুইপুরে ফিরল মরা মুরগির স্মৃতি,পাচারের সময় ধরা পড়ল ৫-৬ বস্তা মরা মুরগি

বারুইপুরে ফিরল মরা মুরগির স্মৃতি,পাচারের সময় ধরা পড়ল ৫-৬ বস্তা মরা মুরগি
  • Share this:

#বারুইপুর: বারুইপুরে ফিরল মরা মুরগির স্মৃতি। শুক্রবার রাতে ম‍্যাটাডোরে করে পাচারের সময় বারুইপুরে ধরা পড়ল কয়েক বস্তা মরা মুরগি। গ্রেফতার ২ পাচারকারী। কোনও হোটেলে এই মরা মুরগি পাচার করা হচ্ছিল কীনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বারুইপুরে উদ্ধার হল কয়েক বস্তা মরা মুরগি। শুক্রবার রাতে বারুইপুর পদ্মপুকুর বাইপাসে চলছিল ট্রাফিকের চেকিং। সেই সময়ই ম‍্যাটাডোর থেকে উদ্ধার হয় মরা মুরগি। ধৃতদের দাবি, মাছের খাবারের জন‍্য বারুইপুরের সূর্যপুরের একটি পোলট্রি থেকে তারা এই মরা মুরগি নিয়ে আসছিল।

ধৃতদের কথায় অসঙ্গতি থাকায় তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ৷ এই ঘটনায় ফিরে এসেছে দু বছর আগের মরা মুরগির স্মৃতি। বাদুড়িয়া, লেকটাউন, নিউটাউন জুড়ে ছড়িয়েছিল মরা মুরগির কারবার। বাদুড়িয়ায় পাচারের সময় ধরা পড়ে মরা মুরগি। তদন্তে নেমে নিউটাউনের এক ফ্রিজার থেকে উদ্ধার হয় ৮০০ কেজি মরা মুরগি। অভিযুক্ত কউসর আলি ঢালির মাংসের আউটলেট ছিল লেকটাউনের দক্ষিণদাঁড়িতেও। তাঁর খদ্দেরের তালিকায় উঠে আসে বেশ কয়েকটি নামি রেস্তোরাঁর নামও।

ধৃত দীপঙ্কর ধাড়া ও মণিরুল শেখ সোনারপুরের বাসিন্দা। শনিবার বারুইপুর জেলা আদালতে পেশ করলে তাদের ১৪ দিনের জেল হেফাজত হয়। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পোলট্রি মালিকের খোঁজ করছে পুলিশ। মরা মুরগি কোনও হোটেলে পাচার করা হত কীনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

First published: January 18, 2020, 5:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर