দক্ষিণ দমদমে ভয়াবহ আকার ডেঙ্গির, এখনও পযর্ন্ত মৃত ৫, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩৯২

দক্ষিণ দমদমে ভয়াবহ আকার ডেঙ্গির, এখনও পযর্ন্ত মৃত ৫, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩৯২
ডেঙ্গিতে বাড়ছে মৃত্যু

গত বছর আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৬৮, এ'বছর তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৯২জনে

  • Share this:

#কলকাতা: দক্ষিণ দমদমে আতঙ্ক বাড়াচ্ছে ডেঙ্গি! এখনও পর্যন্ত ডেঙ্গিতে মৃত ৫, আক্রান্ত বহু। গত বছর আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৬৮, এ'বছর তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৯২জনে। পুরসভার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর ক্ষোভ, ডেঙ্গি মোকাবিলায় হেলদোলহীন পুরসভা।

ডেঙ্গি নিয়ে পুরপ্রধান পাঁচু রায়ের সাফাই, '' রাজ্য ৪৪ হাজার ডেঙ্গি আক্রান্ত। তার নিরিখে পরিস্থিতি উদ্বেগের নয়। ৫ জন ডেঙ্গিতে মৃত,আক্রান্ত ৪০০।'' তিনি আরও জানান, '' এই পরিস্থিতি বিপজ্জনক নয়। জ্বর হলেও অনেকে পরীক্ষা করাচ্ছেন না! সব পুকুর পরিষ্কার করা সম্ভব নয়!''

কলকাতায় ক্রমশ ভয়াবহ আকার নিয়েছে ডেঙ্গি। ডেঙ্গিতে মৃত্যু হয় ৩ বছরের শিশুর। লেকটাউনের বাসিন্দা আহর্ষি ধরের। চিকিত্‍সা চলছিল পার্ক সার্কাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে৷ সোমবার তার মৃত্যু হয়েছে।

শুধু কলকাতা নয়, ডেঙ্গি প্রকোপ গোটা রাজ্যেই৷ শহরের ডেঙ্গি পরিস্থিতি মারাত্মক হারে মাথাচাড়া দিয়েছে বলে সতর্ক হয়েছে কলকাতা পুরসভা। সঙ্কট মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই জরুরি বৈঠক করেছেন পুরসভার শীর্ষস্থানীয় কর্তারা। স্বাস্থ্যভবনেও বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত দেড় মাসে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা ৷ ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ১১ হাজার ৷ রাজ্যে ২৩ হাজার বাসিন্দা ডেঙ্গি আক্রান্ত ৷ সরকারি হিসেবে ডেঙ্গিতে মৃত ২৩ ৷

কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডেঙ্গির বিষয়ে তাঁরা সংবেদনশীল। সব রকমের ব্যবস্থা নিচ্ছে পুরসভা৷ বুলবুল বিধ্বস্ত সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ, হাসনাবাদসহ বিস্তীর্ণ এলাকাতেও বাড়ছে ডেঙ্গি আতঙ্ক। ঝড়ের পর এলাকার বিভিন্ন পুকুরে পড়ে রয়েছে গাছের ডাল, আবর্জনা। আবর্জনায় বাড়ছে দূষণ। সঙ্গে মশার দাপট। তারমধ্যেই ফের হাবড়ায় জ্বরে মৃত্যু হয়েছে এক মহিলার।

ঘুর্ণিঝড় বুলবুল তছনছ করে দিয়ে গিয়েছে সবকিছু। এক সপ্তাহ পরও বেসামাল পরিস্থিতি। এরমধ্যেই উত্তর চব্বিশ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জ, সন্দেশখালি-সহ হাসনাবাদের বিস্তীর্ণ এলাকায় বাড়ছে ডেঙ্গি আতঙ্ক। একে বৃষ্টির জমা জল। তার উপর ঝড়ে উড়ে আসা গাছ ও গাছের পাতা পুকুরে পড়ে, পচে দূষণ ছড়াচ্ছে। বাড়ছে মশার উপদ্রব। স্থানীয় পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে উদাসীনতার অভিযোগ।

First published: 04:05:20 PM Nov 18, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर