corona virus btn
corona virus btn
Loading

একবালপুর গণধর্ষণ কাণ্ডে গ্রেফতার ৫, ঘটনার দ্রুত চার্জশিট দিতে চায় পুলিশ

একবালপুর গণধর্ষণ কাণ্ডে গ্রেফতার ৫, ঘটনার দ্রুত চার্জশিট দিতে চায় পুলিশ
representative image

আদালত চলতি মাসের ১০ তারিখ পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয়

  • Share this:

#কলকাতা: তিনটি থানার সমন্বয়ে দ্রুত গ্রেফতার করা সম্ভব হল একবালপুরের গণধর্ষণ কান্ডে অভিযুক্তদের। শুক্রবার রাতেই গ্রেফতার হয় বছর একুশের মহেশতলার বাসিন্দা অমরজিৎ চৌপাল ওরফে রাহুল ও  পর্ণশ্রীর বাসিন্দা বছর পঁচিশের মনোজ শর্মা।

দুই অভিযুক্তকে সাহায্য করে বছর চব্বিশের একবালপুরের বাসিন্দা বিকাশ মল্লিক ও ভিন রাজ্যের বাসিন্দা ঋত্বিক রাম। চার অভিযুক্তকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পৃথক ভাবে জানতে চাইলে অভিযুক্তদের বয়ানে  একাধিক অসঙ্গতি ধরা পড়ে। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত চার অভিযুক্তকে এক টেবিলে বসিয়ে জানতে চাওয়া হয় ঘটনার সত্যতা। পুলিশের দীর্ঘ জেরায় চার অভিযুক্ত নিজেদের দোষ স্বীকার করলেও তদন্তকারীদের প্রশ্ন ছিল, একটি ফ্ল্যাটের ঘর নিয়ে। অফিসার বারবার জানতে চান এই ঘটনার জন্য ঘরের সন্ধান কে দিয়েছিল ? কে সেই ঘরের চাবি পেল?  সে প্রশ্নের উত্তর না দিলেও  অভিযুক্তরা  জানায় পর্ণশ্রীর নাবালিকাকে অমরজিৎ চৌপাল পার্টির কথা বলে একটি দোকানে দেখা করে। সেখানে চলে আসে মনোজ। বাইকে করে সেই নাবালিকাকে নিয়ে আসা হয় একটি ফ্ল্যাটের ঘরে। সেখানে ঋত্বিক ও বিকাশ ছাড়াও ছিল আরও এক ব্যাক্তি।

এই ঘটনায় প্রথমে চারজনকে গ্রেফতার করে আলিপুর কোর্টে পেশ করা হয়। পরে সঞ্জয় মিরধা নামে একবালপুরের আরেক বাসিন্দাকে গ্রেফতার করা হয়। এই ঘটনায় সঞ্জয় ঘরের চাবি দিয়ে সাহায্য করেছিল বলে জানায়  অন্য অভিযুক্তরা। অভিযুক্ত চারজনকে আদালতে পেশ করার পরই সরকারি আইনজীবী সৌরিন ঘোষাল জানান,  এই ঘটনায় পুলিশি হেফাজতের প্রয়োজন আছে। নাবালিকার গোপন জবানবন্দিও দরকার। এই ঘটনার দ্রুত চার্জশিট দিতে চায় পুলিশ। আদালত চলতি মাসের ১০ তারিখ পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয়। অন্য অভিযুক্ত সঞ্জয়কে রবিবার আলিপুর আদালতে পেশ করা হবে।

Susovan Bhattacharjee

First published: February 8, 2020, 8:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर