• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • 3 LAKHS 81 THOUSANDS PEOPLE APPLY FOR DUARE TRAN AFTER CYCLONE YAAS SB

Duare Tran: 'দুয়ারে ত্রাণে' আবেদন জমা ৩ লক্ষ ৮১হাজার! খতিয়ে দেখেই ক্ষতিপূরণ দেবে সরকার

দুয়ারে ত্রাণে মিলবে ক্ষতিপূরণ

Duare Tran: দুয়ারে ত্রাণের জন্য আবেদনপত্র জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শেষ হয়ে গিয়েছে। ভেরিফিকেশন করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: ইয়াস বিধ্বস্ত ঘূর্ণিঝড়ের পরে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য রাজ্য সরকার দুয়ারে ত্রাণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সেই দুয়ারে ত্রাণ কর্মসূচির আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে। নবান্ন সূত্রে খবর, দুয়ারের ত্রাণ প্রকল্পের আবেদন জমা পড়েছে প্রায় ৩ লক্ষ ৮১ হাজার। সবথেকে বেশি আবেদন জমা পড়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা থেকে। নবান্ন সূত্রে খবর দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা থেকে আবেদন জমা পড়েছে ১৬২৩৭১ জনের। পূর্ব মেদিনীপুর থেকে আবেদন জমা পড়েছে ১১৭৬৫১জনের। উত্তর ২৪ পরগনা থেকে আবেদন জমা পড়েছে ৫১৭৮৪ টি। পশ্চিম মেদিনীপুর থেকে আবেদন জমা পড়েছে ৩০০৩৯টি। হাওড়া থেকে আবেদন জমা পড়েছে ১৮৮০১টি। হুগলি থেকে আবেদন জমা পড়েছে ৩০২ জনের। বীরভূম থেকে আবেদন জমা পড়েছে ২৫২ জনের।

আবেদনপত্র জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শেষ হয়ে গিয়েছে। ভেরিফিকেশন করার প্রক্রিয়াও ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। নবান্ন সূত্রে জানা গেছে, ভেরিফিকেশন পর্ব শেষ করে ৪০ শতাংশ রিপোর্ট জমা পড়ে গেছে। তবে আবেদনপত্র যাঁরা জমা দিয়েছেন, সেই সব জায়গায় সরকারি আধিকারিকরা গিয়ে জিআই ট্যাগ করে রিপোর্ট দিচ্ছেন বলেই নবান্ন সূত্রে খবর। অর্থাৎ তাদের ছবি তুলে এবং জমা দেওয়া আধার কার্ডের সঙ্গে মিল রয়েছে কিনা, সেই বিষয়ে যাবতীয় তথ্য খতিয়ে দেখছেন আধিকারিকরা। মূলত দুয়ারে ত্রাণ প্রকল্পে বাড়ি ভাঙা থেকে শুরু করে গবাদি পশুর মৃত্যু সহ একাধিক ক্ষেত্রে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রেও একাধিক আবেদনপত্রও জমা পড়েছে। যার মধ্যে বাড়ি ভাঙার আবেদনপত্র সবথেকে বেশি জমা পড়েছে বলেই নবান্ন সূত্রে খবর।

নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, যতসংখ্যক আবেদনপত্র জমা পড়েছে তার মধ্যে দু লক্ষ ৪৭ হাজার বাড়ি ভাঙার আবেদনপত্র জমা পড়েছে। এরমধ্যে আংশিক ভাঙার আবেদন জমা পড়েছে ১লক্ষ ৪২৩৭ টি।বাকি বাড়ির পুরো অংশ ভাঙা পড়েছে বলেই আবেদন জমা পড়েছে। পাশাপাশি পানের বরজ ক্ষতি হয়েছে এমন আবেদন জমা পড়েছে ২০৪৩২ টি। চাষের জমি ক্ষতি হয়েছে এমন আবেদন জমা পড়েছে ৩৪৯৪২টি। গবাদি পশু মৃত্যু হয়েছে এমন আবেদন জমা পড়েছে ৪২০৬৮টি। নবান্ন সূত্রে খবর যত সংখ্যক আবেদন জমা পড়েছে তার মধ্যে ৪০ শতাংশ ভেরিফিকেশন পর্ব ইতিমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে ব্যাংক মারফত। ইতিমধ্যেই রাজ্য প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের তরফে একাধিকবার এই বিষয় নিয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে বলেই নবান্ন সূত্রে খবর।

Published by:Suman Biswas
First published: