• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ২১ জুলাইয়ের ঐতিহাসিক সভা ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে, কোন কোন রুটে আসবে মিছিল

২১ জুলাইয়ের ঐতিহাসিক সভা ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে, কোন কোন রুটে আসবে মিছিল

বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখা। তারপরও হয়নি কোনও বিজয় উৎসব।

বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখা। তারপরও হয়নি কোনও বিজয় উৎসব।

বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখা। তারপরও হয়নি কোনও বিজয় উৎসব।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখা। তারপরও হয়নি কোনও বিজয় উৎসব। এবার তাই শহিদ তর্পণের মধ্যে দিয়েই, ২১ জুলাই কার্যত বিজয় উৎসব পালন করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

    ত্রিস্তরীয় বিশাল মঞ্চ। মঞ্চের তিনটি অংশে বসবেন বিভিন্ন নেতা-কর্মী ও অতিথিরা। মঞ্চের নীচে প্রথামতোই থাকছে শহীদ বেদি। মঞ্চের ডানদিকে মূল অংশে দাঁড়িয়েই বক্তৃতা দেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দ্বিতীয় অংশে থাকবেন শহিদ পরিবারের সদস্যিরা। মূল মঞ্চকেই ঘিরে থাকবে ৩০০ রও বেশি সিসিটিভি।

    বৃহস্পতিবার, ২১ জুলাই  সব পথ ধর্মতলামুখী । তৃণমূল কংগ্রেসের ২১ জুলাইয়ের সভাতেও আরও একবার সবপথ মিশবে ভিক্টোরিয়া হাউসে। তৃণমূল সরকার দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর প্রথম শহিদ দিবস।

    ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জেলা থেকে কলকাতায় পৌঁছে গিয়েছেন তৃণমূল কর্মীরা ৷ সল্টলেক স্টেডিয়ামে আছেন ৫০-৬০ হাজার কর্মী ৷ সেখানেই তাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে ৷ সেই সমস্ত ব্যবস্থা খতিয়ে দেখছেন বিধায়ক সুজিত বসু ৷

    রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সভায় যোগ দেবেন রেকর্ড সংখ্যক মানুষ। বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নির্দিষ্ট রুটে পৌঁছনো যাবে সভাস্থলে।

    শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মিটিং এসে মিশবে, মিটিং আসবে যে যে পথে তা হল,

    -শিয়ালদহ - মৌলালি - এস এন ব্যানার্জি রোড হয়ে ধর্মতলায় সভাস্থল

    -হাওড়া স্টেশন  থেকে টি বোর্ড হয়ে ধর্মতলায় সভাস্থল

    -রাসবিহারী  থেকে  হাজরা - রবীন্দ্র সদন- বিড়লা তারামণ্ডল  হয়ে সভাস্থল

    -বর্ধমান- হাওড়া- পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর - দ্বিতীয় হুগলি সেতু হয়ে ময়দানে গাড়ি রেখে পায়ে হেঁটে সভাস্থল

    আগামিকাল সভায় যোগ দিতে আসা রেকর্ড সংখ্যক লোক যে হাজারখানেক গাড়ি করে আসবে, তা রাখার ব্যবস্থা হয়েছে হেস্টিংস, পলাশি গেট, ইস্টবেঙ্গল তাঁবুর সামনে ৷ কিছু গাড়ি রাখা হবে বিড়লা প্ল্যানেটোরিয়াম, অল ইন্ডিয়া রেডিওর সামনের নির্দিষ্ট জায়গায় ৷ তবে ভিআইপিদের গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য রয়েছে  আলাদা ব্যবস্থা ৷ ময়দানের উত্তর ও দক্ষিণ অংশের দুটি প্রান্তে ৪ হাজার গাড়ি পার্ক করার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে ৷

    সভায় যোগ দেবেন কয়েক লক্ষ মানুষ। তার সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই থাকছে নিরাপত্তার আয়োজন। বিশৃঙ্খলা এড়াতে নজরদারির জন্য গতবারের থেকে এবার দ্বিগুণেরও বেশি সিসিটিভি থাকছে ৷ নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকছেন ২৩ ডিসি, ৬০ এসি,১৬০ ইনস্পেক্টর ও ৪০০ এসআই ৷

    এছাড়াও থাকবেন প্রায় ২০০ মহিলা পুলিশকর্মী ৷  জয়েন্ট সিপি পদমর্যাদার অফিসারাও থাকবেন নিরাপত্তার দায়িত্বে ৷ এছাড়া সভাস্থলে রাখা থাকবে অ্যাম্বুল্যান্স, ক্যুইক রেসপন্স টিম, হেভি রেডিও ফ্লাইং স্কোয়াড ৷ ঐতিহাসিক সভা ঘিরে তাই রীতিমতো যুদ্ধের প্রস্তুতি।

    First published: