• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • 21 JULY TMC COMMEMORATING IN UP FIRST TIME WITH SPECIAL EFFORT AKD

21 July -TMC in UP|| উত্তরপ্রদেশে ২১ জুলাই, দুপুরে মমতার ভাষণ, বিকেলে অন্য 'ঝটকা'

উত্তরপ্রদেশের তৃণমূল পার্টি অফিসে সুখেন্দুশেখর রায়। চলছে তোরজোর।

21 July -TMC in UP||

  • Share this:

    #কলকাতা: শুধু বাংলার নয় উত্তরপ্রদেশের জোরকদমে চলছে ২১ জুলাই পালন। সূত্রের খবর উত্তরপ্রদেশের ২২টি কমিশনারেটে তৃণমূলের পার্টি অফিসগুলিকে ঢেলে সাজানো হয়েছে ২১ জুলাই স্মরণ অনুষ্ঠান উপলক্ষে। সেখানেই চলছে শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি অঞ্চলে স্ক্রিন টানিয়ে শহিদ দিবস উপলক্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভার্চুয়াল বক্তব্য শোনানো হবে। ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশের পৌঁছেও গিয়েছেন তৃণমূল সাংসদসুখেন্দু শেখর রায়।

    প্রসঙ্গত এদিন বিকেলে অন্য একটি চমকও রয়েছে। অক্সিজেনের ঘাটতিতে মৃতদের স্মরণ করে লখনউয়ের চৌরাহাটে একটি মিছিল করবেন ওই রাজ্যের তৃণমূল কর্মীরা। রাজনৈতিক মহলের ব্যখ্যা, হাথরাস কাণ্ড থেকে অক্সিজেনের ঘাটতি মৃত্যুর মতো ঘটনাগুলিকে সামনে রেখেই শহিদ দিবসকে আরও তাৎপর্যপূর্ণ করে তুলতে চাইছে তৃণমূল। অক্সিজেনের অভাবে মৃতদেরও শহিদের মর্যাদা দিতে চাইছে দল। রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক জল্পন বিধানসভার নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী দিতে পারে সেই কারণে এই তৎপরতা। বিশেষত সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে তৃণমূলের যে বোঝাপড়া, তাতে আগামী দিনে তৃণমূল যে আরও কোমর বেঁধে যোগীরাজ্যে নামবে তা তো বলাই বাহুল্য।

    ভোটতত্ত্বের অবতারণা সন্তর্পনে দূরে সরিয়ে রাখছেন সুখেন্দুশেখর রায়। বর্ষীয়ান সাংসদের কথায়, আমাদের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক (অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়) আগেই বলেছেন সংগঠন বিস্তারই আমাদের মূল লক্ষ্য। সেই কাজই শুরু করতে চলেছি। উত্তরপ্রদেশে আসা সেই কারণেই।

    রাজনৈতিক মহল বলছে এর আগে কখনও রাজ্যের বাইরে ২১ জুলাই নিয়ে ভিন রাজ্যে এতবড় তৎপরতা দেখা যায়নি তৃণমূলের। সাংসদ চলে যাচ্ছেন অন্য রাজ্যে ২১ এর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এই চিত্র তাৎপর্যপূর্ণ বৈকি। শুধুই উত্তরপ্রদেশকে সামনে রেখে তৃণমূলের এই তৎপরতা, এমন ভাবলে ভুল হবে। পর্যবেক্ষক মাত্রই মেনে নিচ্ছেন আসল লক্ষ্য ২০২৪। সেই ঘোড়াতে সওয়ার হতেই তৃণমূল আপাতত রাজ্যে রাজ্যে ছুটঠে ধুলো উড়িয়ে, টগবগিয়ে। চাইছে ডাক পৌঁছক দিল্লিতে। বর্তমান  শাসকের কানে।

    প্রতিবেদক- আবীর ঘোষাল।

    Published by:Arka Deb
    First published: