• associate partner
corona virus btn
corona virus btn
Loading

IPL 2020: হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিয়ে বিহুর ছন্দে মাতলেন রিয়ান পরাগ, দেখুন ভিডিও!

IPL 2020: হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিয়ে বিহুর ছন্দে মাতলেন রিয়ান পরাগ, দেখুন ভিডিও!

ম্যাচে মাঝের সময়টায় কী পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, সে কথাও বলছিলেন রিয়ান পরাগ। তিনি জানান, শেষ চার ওভার খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

  • Share this:

চলতি IPL সিজনে পর পর চারবার হারের পর খানিকটা ছন্দ হারিয়েছিল। তবে গতকাল দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামের মাটিতে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জয় কিছুটা হলেও অক্সিজেন দিল রাজস্থান রয়্যালসকে। শুরুটা নড়বড়ে হলেও রাহুল তেওয়াটিয়া ও রিয়ান পরাগের নেতৃত্বে রুদ্ধশ্বাস জয় ছিনিয়ে নিল রাজস্থান। আর তার পর তরুণ রিয়ান পরাগের বিহু নাচ মন জিতে নিল ক্রিকেটপ্রেমীদের। ইতিমধ্যেই রিয়ানের এই নাচ ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ১৫৮ রান তোলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ওপেনিংয়ে জনি বেয়ারস্টোর ব্যাট না চললেও ওয়ার্নার স্বমহিমায় ছিলেন। প্রথমে ওয়ার্নারের ৩৮ বলে ৪৮ রান, পরে মণীশ পাণ্ডের ৪৪ বলে ৫৪ রানের সুবাদে হায়দরাবাদের স্কোর ১৫০ পেরিয়ে যায়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালো করতে পারেনি রাজস্থান রয়্যালস। বেন স্টোকস বা বাটলার কারও ব্যাটই চলেনি গতকাল। ৫ রানে আউট হয়ে যান অধিনায়ক স্টিভ স্মিথও। ভালো ফর্মে থাকা সঞ্জু স্যামসনও মাত্র ২৬ রানে ফিরে যান। ৭৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে একটা সময় রাজস্থানের জয়ের আশা ক্ষীণ হয়ে আসছিল। এই সময় ম্যাচের হাল ধরেন রাহুল তেওটিয়া ও তরুণ খেলোয়াড় রিয়ান পরাগ। দলের তরুণ ব্রিগেডের হাত ধরে ছয় নম্বর উইকেটে ৮৫ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ওঠে। রাহুলের ২৮ বলে ৪৫ রানের পাশাপাশি ২৬ বলে ৪২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন রিয়ান।

View this post on Instagram

When you're happy and you know it ☺️😊🕺🕺#Dream11IPL #SRHvRR

A post shared by IPL (@iplt20) on

তবে শেষ ওভারে জমে ওঠে ম্যাচ। পাঁচ উইকেট বাকি থাকতে ১৯ ওভারের পাঁচ নম্বর বলে খলিল আহমেদকে ছয় উপহার দেন রিয়ান। আর এর পরের মুহূর্ত গতকালের ম্যাচে স্মরণীয় হয়ে যায়। অসমের ১৮ বছরের তরুণ ব্যাট হেলমেট ছেড়ে মেতে ওঠেন বিহুর ছন্দে। তাঁর এই সেলিব্রেশন স্টাইল ইতিমধ্যেই নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।

ম্যাচের শেষে নিজের বিহু নিয়ে অবশ্য অকপট এই তরুণ ক্রিকেটার। তাঁর কথায়, এই কঠিন পরিস্থিতিগুলি ভালোবাসেন তিনি। যখনই দল তাঁকে চায়, তিনি সর্বতো ভাবে চেষ্টা করেন লক্ষ্যপূরণের । আর লক্ষ্য পূরণ হয়ে গেলেই আনন্দে মেতে ওঠেন। কাল তারই এক ঝলক দেখা গেল অসমের ঐতিহ্যশালী বিহু নাচে।

ম্যাচে মাঝের সময়টায় কী পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, সে কথাও বলছিলেন রিয়ান পরাগ। তিনি জানান, শেষ চার ওভার খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ হাতে মাত্র চার ওভার। এর মধ্যে রশিদ খানেরও একটা ওভার ছিল। তাই রাহুল তেওটিয়ার সঙ্গে পরিকল্পনা করেই এগোতে হচ্ছিল। রশিদ খানের ওভারটায় রান করার দায়িত্ব নিয়েছিলেন রাহুল। শেষমেশ পুরো পরিকল্পনা সফল হল। এক বল থাকতেই জিতল রাজস্থান।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: October 12, 2020, 1:48 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर