একই ম্যাচে দু' বার শূন্য! IPL-এর ইতিহাসে প্রথমবার লজ্জার নজির গড়লেন পুরান

একই ম্যাচে দু' বার শূন্য! IPL-এর ইতিহাসে প্রথমবার লজ্জার নজির গড়লেন পুরান
ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান৷

প্রথম শ্রেণির এবং টেস্ট ক্রিকেটে দুই ইনিংসে অনেক ব্যাটসম্যানই শূন্য রানে আউট হয়েছেন৷ যাকে ইংরেজিতে ক্রিকেটীয় ভাষায় বলা হয় 'Pair'৷

  • Share this:

    #দুবাই: IPL-এ কিংগস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে এটি তাঁর দ্বিতীয় মরশুম৷ কিন্তু চলতি আইপিএল-এ তাঁর প্রথম ম্যাচটির স্মৃতি যত দ্রুত সম্ভব ভুলে যেতে চাইবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান৷ কারণ একই ম্যাচে দু'বার শূন্য রানে আউট হতে হল তাঁকে৷ আইপিএল-এর ইতিহাসে পুরানই প্রথম ক্রিকেটার, যিনি এমন নজির গড়লেন৷

    দিল্লির দেওয়া ১৫৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে পঞ্জাব ব্যাট করার দু'টি উইকেট হারানোর পর ক্রিজে আসেন পুরান৷ কিন্তু পাওয়ার প্লে-র শেষ ওভারে শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি৷ যদিও ময়াঙ্ক আগরওয়ালের দুরন্ত ব্যাটিংয়ের সৌজন্যে ম্যাচ প্রায় জিতে ফেলেছিল পঞ্জাব৷ কিন্তু শেষ মুহূর্তের নাটকে খেলা গড়ায় সুপার ওভারে৷

    সুপার ওভারে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় পঞ্জাব৷ দ্বিতীয় বলেই ফিরে যান অধিনায়ক কে এল রাহুল৷ এর পরই রাবাডার বলে ফের একবার শূন্য রানে আউট হয়ে যান পুরান৷ আইপিএল-এর ইতিহাসে এর আগে কোনও ব্যাটসম্যানই এ ভাবে দু' বার একই ম্যাচে শূ্ন্য রানে আউট হননি৷


    প্রথম শ্রেণির এবং টেস্ট ক্রিকেটে দুই ইনিংসে অনেক ব্যাটসম্যানই শূন্য রানে আউট হয়েছেন৷ যাকে ইংরেজিতে ক্রিকেটীয় ভাষায় বলা হয় 'Pair'৷ কিন্তু টি টোয়েন্টিতে যেহেতু সুপার ওভারে করা রানকে ব্যাটসম্যানের ব্যক্তিগত পরিসংখ্যানে সরকারি ভাবে যোগ করা হয় না, তাই গোটা ম্যাচে কোনও ব্যাটসম্যান দু' বার শূন্য করলে তাকে 'Unofficial Pair' বলা হয়৷

    পুরানের আগে টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে এমন নজির আছে দু' জনের৷ ২০১৩ সালের ২৫ জুলাই প্রথম বার এই নজির গড়েছিলেন পাকিস্তানের শোয়েব মালিক৷ করাচির একটি টুর্নামেন্টে হাবিব ব্যাঙ্কের বিরুদ্ধে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের হয়ে একটি টি টোয়েন্টি ম্যাচে দু' বার শূন্য রানে আউট হন তিনি৷ তাও আবার দু' বারই প্রথম বলে আউট হয়েছিলেন মালিক৷

    এর পর ২০১৪ সালের ১০ জানুয়ারি বিগ ব্যাশ লিগে অস্ট্রেলিয়ার মোইজেস হেনরিকেস একই ম্যাচে দু' বার শূন্য রান করে আউট হয়ে যান৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: