• associate partner
corona virus btn
corona virus btn
Loading

KKR vs RR: মর্গ্যানের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের পর কামিন্স-বরুণের দুরন্ত বোলিং,৬০ রানে জিতে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখল কেকেআর

KKR vs RR: মর্গ্যানের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের পর কামিন্স-বরুণের দুরন্ত বোলিং,৬০ রানে জিতে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখল কেকেআর
Photo Courtesy: IPLT20.com/BCCI
  • Share this:

কলকাতা নাইট রাইডার্স: ১৯১/৭ (২০ ওভার)

রাজস্থান রয়্যালস: ১৩১/৯ (২০ ওভার)

৬০ রানে জয়ী কলকাতা নাইট রাইডার্স

ম্যান অফ দ্য ম্যাচ- প্যাট কামিন্স

#দুবাই: ২০২০-তে সবকিছুই যেন অদ্ভূত ৷ আইপিএলের লিগ ম্যাচ পর্ব প্রায় শেষ হওয়ার পথে ৷ কিন্তু এখনও ঠিক হল না প্লে অফের জন্য কোয়ালিফাই করবে কোন চারটি দল ৷ শীর্ষে থাকা মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বাদে এখনও বাকি তিনটি জায়গার জন্য লড়াইয়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি দল ৷ রাজস্থানকে রবিবার ৬০ রানে হারিয়ে প্লে অফে ওঠার আশা জিইয়ে রাখল কলকাতা নাইট রাইডার্স ৷ সেইসঙ্গে ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবলে আট নম্বর থেকে সোজা চার নম্বরে উঠে এল শাহরুখ খানের দল ৷

তবে ম্যাচ জিতলেও প্লে অফে কোয়ালিফাই করতে এখনও অন্যদের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে কেকেআরকে ৷ কারণ একটাই, রবিবারের ম্যাচ জিতে আগের তুলনায় নেট রান রেটে (-০.২১৪) কিছুটা উন্নতি করলেও আরসিবি (-০.১৪৫) এবং সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (+০.৫৫৫)-এর থেকে এখনও পিছিয়ে কেকেআর ৷ দুবাইয়ে এদিন ৮১ বা তার বেশি রানে রাজস্থানকে হারাতে পারলে নেট রান রেটের বিচারে বিরাটদের টপকে দু’নম্বরে উঠে আসত কেকেআর ৷ একসময়ে রাজস্থান মাত্র ৩৭ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর মনে হচ্ছিল, সেই কাজটা করে ফেলতে পারবে নাইটরা ৷ কিন্তু শেষপর্যন্ত তা হয়নি ৷ ২০ ওভারই ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রান করে রাজস্থান ৷

এদিনের ম্যাচ হারায় টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেল রাজস্থান রয়্যালস। রবিবার জিতলেও অবশ্য বলা যাচ্ছে না প্লে অফে পৌঁছে গিয়েছে অইন মর্গ্যানের দল। বরং কলকাতাকে অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। রান রেটের বিচারেই স্থির হবে নাইটদের প্লে অফ ভাগ্য। হায়দরাবাদের নেট রান রেট অত্যন্ত ভাল হওয়ায় মঙ্গলবার শারজায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ম্যাচে ওয়ার্নাররা যাতে হারেন, সেই প্রার্থনায় এখন মর্গ্যান ব্রিগেড এবং কেকেআর সমর্থকরা ৷

এদিন টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান করে কলকাতা নাইট রাইডার্স ৷ অধিনায়ক অইন মর্গ্যানের ৩৫ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের ঝোড়ো ইনিংসের সুবাদেই বড় রানের স্কোর খাঁড়া করতে সক্ষম হয় কেকেআর ৷ একসময় ৯৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল কলকাতা ৷ সেখান থেকে একাই দলকে টেনে নিয়ে যান অধিনায়ক মর্গ্যান ৷

রবিবারের মরণ-বাঁচনের ম্যাচে কলকাতা দলে ফেরেন আন্দ্রে রাসেল। প্লে অফে ওঠার লড়াইয়ে ম্যাচ জিততে তো হতই ৷ পাশাপাশি নেট রান রেটের যতটা উন্নতি করা যায় ততোটাই ভাল ৷ ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় কেকেআর ৷ ম্যাচের দ্বিতীয় বলেই নীতিশ রানাকে আউট করেন জোফ্রা আর্চার। দ্রুত উইকেট হারালেও শুভমান গিল নিজের দুর্দান্ত ফর্ম বজায় রেখেছিলেন রাজস্থানের বিরুদ্ধেও ৷ শেষপর্যন্ত ৩৬ রান করে আউট হন তিনি ৷ রাহুল ত্রিপাঠির সঙ্গে ৭২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন গিল ৷ শূন্য রান করে প্যাভিলিয়ানে ফেরেন সুনীল নারিন ৷ তিনটে ছক্কা মেরে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন অ্যান্দ্রে রাসেল ৷ কিন্তু ১১ বলে ২৫ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি ৷ পাট কামিন্স করেন ১১ বলে ১৫ রান ৷ এদিনও ব্যাট হাতে চূড়ান্ত ব্যর্থ দীনেশ কার্তিক ৷ তেওয়াটিয়ার প্রথম বলেই আউট হন তিনি ৷

Photo Courtesy: IPLT20.com/BCCI Photo Courtesy: IPLT20.com/BCCI

রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভার থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং শুরু করে রাজস্থান রয়্যালস। প্যাট কামিন্সের প্রথম ওভার থেকে আসে ১৯ রান। সেই ওভারে মার হজম করলেও রবিন উথাপ্পাকে (৬) ফেরান কামিন্স।

এ দিন কলকাতার জয়ের নায়ক অইন মর্গ্যান এবং কামিন্স। ব্যাট হাতে মর্গ্যান ৩৫ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের দুরন্ত ইনিংস খেললেন। আর বল করতে নেমে কামিন্স ভাঙলেন রাজস্থানকে। মর্গ্যান রুখে না দাঁড়ালে আরও কম রান করত কলকাতা। অন্যদিকে ৪ ওভার বল করে ৩৪ রান দিয়ে চার রাজস্থানের চার উইকেট নিতে সফল কামিন্স ৷ যার মধ্যে স্টোকস,স্মিথের উইকেটও রয়েছে ৷

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: November 1, 2020, 11:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर