• associate partner
corona virus btn
corona virus btn
Loading

IPL 2020: কট আউট না হিট উইকেট? রশিদ খানের আউট নিয়ে এখনও রহস্য!

IPL 2020: কট আউট না হিট উইকেট? রশিদ খানের আউট নিয়ে এখনও রহস্য!
Twitter screenshot | IPL 2020.

মঙ্গলবার IPL-এর ২৯তম ম্যাচে যাবতীয় নাটকের উপাদানে ভর্তি ছিল।

  • Share this:

#দুবাই: ম্যাচ শেষের পর পেরিয়ে গিয়েছে ২৪ ঘণ্টা। সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে লাইফ লাইন পেয়েছে হারতে হারতে খাদের ধারে চলে যাওয়া মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। কিন্তু এখনও অব্যাহত হায়দরাবাদের আফগান তারকা রশিদ খানের আউট নিয়ে বিতর্ক৷ কী ভাবে আউট হয়েছেন রশিদ- হিট উইকেট না কট আউট? IPL-এর স্কোরকার্ড তাঁকে হিট উইকেট দেখালেও তা কি আদৌ বিধিসম্মত? এমসিসির ক্রিকেট ম্যানুয়াল ঠিক কী বলছে? এমনই হাজার প্রশ্নে সরগরম ক্রিকেট মহল৷ একপক্ষ যখন IPL-এর স্কোরকার্ড তুলে ধরছেন, তখন অন্য পক্ষের হাতিয়ার এমসিসির আইন। তাঁদের মতে, হিট উইকেট নয়, রশিদকে ক্যাচ আউট দেওয়াই বিধিসম্মত।

মঙ্গলবার IPL-এর ২৯তম ম্যাচে যাবতীয় নাটকের উপাদানে ভর্তি ছিল হায়দরাবাদের ইনিংসের ১৯তম ওভার। প্রথম চার বলে আঁটোসাঁটো বোলিংয়ে হায়দরাবাদকে বেঁধে রেখেছিলেন শার্দূল ঠাকুর। পঞ্চম বলটি ছিল ইয়র্কার৷ ৭ বলে ২২ রান চাই এমন পরিস্থিতিতে মরিয়া হয়ে ব্যাট চালান রশিদ। ব্যাটে লেগে বল চলে যায় সরাসরি ফিল্ডার দীপক চহারের হাতে। কিন্তু তার আগেই রশিদের পিছনের পা আঘাত করে স্ট্যাম্পে। বেল পড়ে যায়। অর্থাৎ একই বলে দু'ভাবে আউট হন রশিদ- হিট উইকেট এবং কট আউট। কিন্তু IPL-এর স্কোরকার্ডে রশিদকে হিট উইকেট দেখানো হয়। আর তা নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। রীতিমতো এমসিসি ক্রিকেট ম্যানুয়াল বের করে ক্রিকেটপ্রেমীদের একাংশের দাবি, আইন অনুযায়ী কট আউট হয়েছেন রশিদ, হিট উইকেট হননি।

এমসিসি ম্যনুয়ালের ৩৩.৫ এবং ৩৩.১ ধারা এই বিষয়ে সুস্পষ্ট বক্তব্য রেখেছে। সোজা কথায় বললে, যদি কোনও ব্যাটসম্যান একই বলে বোল্ড হওয়া বাদে অন্য কোনও রকম ভাবে আউট হন এবং পাশাপাশি ক্যাচ আউটও হন, তা হলে তাঁকে কট আউট হিসাবেই গণ্য করতে হবে। অর্থাৎ, একই বলে হিট উইকেট বা এলবিডবলিউ-এর পাশাপাশি যদি কেউ ক্যাচ আউট হন, তা হলে তাঁর নামের পাশে কট আউট লেখাই এমসিসির বিধিসম্মত।

এই প্রসঙ্গে এমসিসওর আরও দু'টি ধারায় চোখ বুলিয়ে নেওয়া যেতে পারে।

৩৩.১ ধারায় আলোচনা করা হয়েছে কট আউট প্রসঙ্গে। ওই ধারা অনুযায়ী, যদি একজন বোলার একটি বৈধ ডেলিভারি করেন (যেটি নো-বল নয়) এবং সেই ডেলিভারি ব্যাটসম্যানের ব্যাট ছুঁয়ে মাটি স্পর্শ না করে সরাসরি কোনও ফিল্ডারের হাতে জমা পড়ে, তা হলে ওই ব্যাটসম্যানকে কট আউট দেওয়া হবে। যদি ব্যাটসম্যান একই ডেলিভারিতে হিট উইকেটও হন, তা হলেও কট আউটই দিতে হবে।

৩২.১ ধারা আলোচনা করেছে বোল্ড আউট নিয়ে। সেখানে বলা হয়েছে, একটি বৈধ ডেলিভারি যদি ব্যাটসম্যানের ব্যাট বা শরীরের যে কোনও অংশ ছুঁয়ে উইকেটে আঘাত করে এবং বেল পড়ে যায়, তা হলে ব্যাটসম্যানকে বোল্ড আউট দিতে হবে। যদি স্ট্যাম্পে লাগার আগে বল কোনও খেলোয়াড় বা আম্পায়ারের গায়ে লাগে তা হলে ব্যাটসম্যানকে বোল্ড আউট দেওয়া যাবে না।

এই আইনগুলি তুলে ধরেই রশিদের আউট নিয়ে সরব ক্রীড়ামোদীরা। তাঁদের দাবি, এমসিসি ম্যানুয়ালে বলা হয়েছে একই বলে হিট উইকেট এবং কট আউট হলে দ্বিতীয়টি অগ্রাধিকার পাবে। কিন্তু আইপিএল সেই নিয়ম মানেনি।

Published by: Debalina Datta
First published: October 14, 2020, 3:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर