• Home
  • »
  • News
  • »
  • ipl
  • »
  • আবু ধাবিতে মুখোমুখি দিল্লি-হায়দরাবাদ, দেখে নিন কারা বদলাতে পারেন ম্যাচের রং

আবু ধাবিতে মুখোমুখি দিল্লি-হায়দরাবাদ, দেখে নিন কারা বদলাতে পারেন ম্যাচের রং

দুই দলের কোন প্লেয়াররা ম্যাচে হতে পারেন ‘কি-ফ্যাক্টর’, আসুন দেখে নেওয়া যাক ৷

দুই দলের কোন প্লেয়াররা ম্যাচে হতে পারেন ‘কি-ফ্যাক্টর’, আসুন দেখে নেওয়া যাক ৷

দুই দলের কোন প্লেয়াররা ম্যাচে হতে পারেন ‘কি-ফ্যাক্টর’, আসুন দেখে নেওয়া যাক ৷

  • Share this:

#আবুধাবি: আবুধাবিতে আজ, মঙ্গলবার মুখোমুখি হচ্ছে দিল্লি ক্যাপিটালস ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ইতিমধ্যেই চলতি টুর্নামেন্টের দু'টি ম্যাচ জিতে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। অন্য দিকে এখনও খাতা খুলতে পারেনি হায়দরাবাদ। তাই এদিনের ম্যাচে জেতার জন্য মরিয়া দুই দল। এক দিকে হায়দরাবাদ চাইছে জয়ের মুখ দেখতে, তেমনই দিল্লি মুখিয়ে রয়েছে নিজেদের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে। এই পরিস্থিতিতে দুই দলের কোন প্লেয়াররা ম্যাচে হতে পারেন ‘কি-ফ্যাক্টর’, আসুন দেখে নেওয়া যাক-

রাবাদা (দিল্লি) বনাম জনি বেয়ারস্টো (হায়দরাবাদ)

আইপিএল ২০২০-র দু'টি ম্যাচেই দিল্লি ক্যাপিটালসের জয়ের অন্যতম কারিগর কাগিসো রাবাডা। বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার তিনি। ২০টি আইপিএল ম্যাচ খেলে তাঁর ঝুলিতে ৩৬টি উইকেট রয়েছে। তাঁর বোলিং গড় ১৬.৯৪ ও স্ট্রাইক রেট ১২.৭২। এই ট্র্যাক রেকর্ডকে অবহেলা করলে কিন্তু সমস্যায় পড়তে হতে পারে বিপক্ষকে।

অন্য দিকে, সানরাইজার্স দলে ওপেনিংয়ে জনি বেয়ারস্টো আছেন। যে  ১৫০-র উপর স্ট্রাইক রেট। তাই পাওয়ার প্লে-তে রাবাডা-বেয়ারস্টোর লড়াই অনেকটাই নির্ধারণ করে দেবে ম্যাচের ভবিষ্যত।

ঋষভ পন্থ (দিল্লি) বনাম রশিদ খান (হায়দরাবাদ)

মিডল অর্ডারে দিল্লির ট্রাম্পকার্ড ঋষভ পন্থ। যে কোনও সময়ে ম্যাচের রং বদলে দিতে পারেন তিনি। তাঁর ব্যাটের উপর অনেকটাই নির্ভর করে দিল্লির বড় রানের লক্ষ্যমাত্রা। রান তাড়া করতে নামলেও এই প্লেয়ারটির গুরুত্ব রয়েছে দলে। তাছাড়া আইপিএল ইতিহাসে আছে তাঁর তৃতীয় সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট।

মাঝের ওভারে এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম সেরা স্পিনার রশিদ খানের মুখোমুখি হতে পারেন ঋষভ। আইপিএল-এ রশিদের বোলিং ইকোনমি বিপক্ষকে চিন্তায় ফেলতে বাধ্য করবে। তাই ঋষভ আর রশিদের এই লড়াইটা ম্যাচের রং বদলানোর ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ।

পৃথ্বী শ (দিল্লি) বনাম ভুবনেশ্বর কুমার (হায়দরাবাদ)

দুবাইয়ে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ৪৩ বলে ৬৪ করে ইতিমধ্যেই প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন পৃথ্বী। আইপিএলে তাঁর স্ট্রাইক রেট ১৪০-র উপরে। তাঁর ব্যাটিংবুকে কিন্তু সব ধরনের শট রয়েছে। তাই পাওয়ার প্লে-তে যে কোনও সময় ভয়ানক হয়ে উঠতে পারেন পৃথ্বী।

অন্যদিকে, আইপিএল-এ হায়দরাবাদের হয়ে সব চেয়ে বেশি উইকেট পেয়েছেন ভুবনেশ্বর কুমার। ৮৮ ম্যাচে তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ১০৯টি উইকেট। একটি ম্যাচে পাঁচটি উইকেট তোলার রেকর্ডও রয়েছে। ইয়র্কারের পাশাপাশি লেন্থ ও স্পেসে বদল এনে যে কোনও সময় ব্যাটসম্যানকে বোকা বানাতে পারেন এই মিডিয়াম পেসার। পাওয়ার প্লে-তে রান খরচ করার বিষয়েও অত্যন্ত কৃপণ ভুবনেশ্বর। তাই পাওয়ার প্লে-তে এই লড়াইটাও জমবে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: