• associate partner
corona virus btn
corona virus btn
Loading

#IPL 2020: ম্যাচ গড়াপেটার চেষ্টা! UAE-তে পৌঁছেছে বুকিরা! বিসিসিআইয়ের স্বীকারোক্তিতে চাঞ্চল্য

#IPL 2020: ম্যাচ গড়াপেটার চেষ্টা! UAE-তে পৌঁছেছে বুকিরা! বিসিসিআইয়ের স্বীকারোক্তিতে চাঞ্চল্য

সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে পৌঁছে গেছে বুকিদের দল সেটা মেনে নিয়েছেন দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান। এমনকি বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি আশেপাশে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গিয়েছে বুকিদের।

  • Share this:

#দুবাই: চলতি আইপিএলে ম্যাচ গড়াপেটার চেষ্টা। ফের আইপিএলে বুকি যোগ,  বিসিসিআইয়ের স্বীকারোক্তিতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বোর্ডের দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান অজিত সিং জানিয়েছেন, ‘‌‘দুবাইয়ে অনেক বুকিই ইতিমধ্যে পৌঁছেছে। কিন্তু কোনওভাবেই তারা এগোতে পারছে না। এখনও পর্যন্ত সবকিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী চলছে। এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ড এবং স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে মিলে কাজ করছে দুর্নীতি দমন শাখা।"

দু'সপ্তাহ যেতে না যেতেই চলতি আইপিএল জমজমাট। একাধিক হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচ দেখেছে ক্রিকেটমহল। সেঞ্চুরি পাশাপাশি দুটি সুপার ওভার ম্যাচ হয়ে গিয়েছে দু-সপ্তাহের মধ্যে। এই পরিস্থিতিতে প্রত্যেকবারের মতো চলতি আইপিএল ম্যাচ গড়াপেটার আশঙ্কা উঠেছে। সেই আশঙ্কা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে অজিত সিংয়ের মন্তব্য। ইতিমধ্যেই যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে পৌঁছে গিয়েছে বুকিদের দল সেটা মেনে নিয়েছেন দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান। এমনকি বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি আশেপাশে তাঁদের ঘোরাঘুরি করতে দেখা গিয়েছে। সেটাও জানতে পরেছে বোর্ড। তবে বুকিদের পৌঁছনোর খবর স্বীকার করলেও অজিত সিং আশ্বস্ত করেছেন বুকিরা এখনও কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি আইপিএলে। এই বিষয়ে ক্রিকেটার এবং ফ্র্যাঞ্চাইজিরাও সতর্ক রয়েছে।

এমনিতে অন্যবারের থেকে আইপিএল ঘিরে অনেক বেশি সতর্ক বিসিসিআই। করোনা আবহে একাধিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে তৈরি হয়েছে বায়ো-বাবল। ক্রিকেটারদের গতিবিধিতে প্রথম থেকে নজর রাখা হচ্ছে। যাতে কোনোভাবেই ক্রিকেটাররা জৈব সুরক্ষা বলয় ভাঙতে না পারে সেই জন্য প্রত্যেককে ট্র্যাকার দেওয়া হয়েছে। সুরক্ষা বলয়ের বাইরে গেলেই মুহুর্তের মধ্যে জানা যাবে সেই তথ্য। বুকিদের খবর সামনে আসতে জৈব সুরক্ষা বলয় নিরাপত্তা নিয়ে আরও কড়াকড়ি হয়েছে বিসিসিআই।

প্রত্যেক ক্রিকেটারের সোশ্যাল মিডিয়ার উপরে উঠে নজরদারি রয়েছে। কোন বুকি সেখানে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে দুর্নীতি দমন শাখা। নির্দিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া কেউ ক্রিকেটারদের ধারে কাছে আসতে না পারে সে ব্যাপারে প্রতিমুহূর্তে নজরদারি চালানো হচ্ছে। বুকি যোগ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান অজিত সিং কড়া আইন আনার পক্ষেও সওয়াল করেছেন।

২০১৩ সালে আইপিএলে গড়াপেটা সংক্রান্ত বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছিল। স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে গ্রেফতার হয়েছিলেন শ্রীসন্থ-সহ রাজস্থান রয়্যালসের তিন ক্রিকেটার। চেন্নাই সুপার কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস-কে দু’বছরের জন্য সাসপেন্ড করে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত লোধা কমিটি। সেই সঙ্গে ম্যাচ গড়াপেটায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে গুরুনাথ মইয়াপ্পন এবং রাজ কুন্দ্রাকে ক্রিকেট থেকে আজীবন নির্বাসিত করা হয়েছে।

ERON ROY BURMAN

Published by: Shubhagata Dey
First published: October 2, 2020, 8:36 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर