বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

যৌনাঙ্গে ক্যান্সার আক্রান্ত বলে মিথ্যে প্রচার, টাকা আদায়! জেল হল এই মহিলার, চিনুন...

যৌনাঙ্গে ক্যান্সার আক্রান্ত বলে মিথ্যে প্রচার, টাকা আদায়! জেল হল এই মহিলার, চিনুন...

তবে বিয়ের পর ধীরেধীরে টোনিকে নিয়ে সন্দেহ শুরু হয় বন্ধুদের

  • Share this:

#ইংল্যান্ড: ক্যান্সারের মিথ্যে খবর ছড়িয়েছেন মহিলা৷ যৌনাঙ্গে ক্যান্সারের কথা জানিয়ে সকলের থেকে কুড়িয়েছেন সহানুভুতি৷ এমনকি নিজের এমন অসুস্থতার কথা বলে সকলের থেকে তুলেছেন আদার করেছেন টাকা৷ তবে তাঁর ভুয়ো রোগের কথা জানতে পেরে, তার নামে অভিযোগ ওঠে৷ শেষ পর্যন্ত আদালতে নিজের দোষ কবুল করেন ২৯ বছরের তরুণী৷ সকলের বিশ্বাসে আঘাত হেনেছেন তিনি, এ কথা বলেই তাকে শাস্তি দেন বিচারক৷

২০১৫র জুন মাসে টোনি স্ট্যানডন তার বন্ধুদের জানায় যে, সে ক্যান্সারে আক্রান্ত৷ টারমিনাল ভ্যাজাইনাল ক্যান্সারে (Terminal vaginal cancer) আক্রান্ত তিনি, এমনই জানানো হয় বন্ধুদের৷ এরপর থেকে বিভিন্ন সময় নিয়ম করে বন্ধুদের কাছে তার চিকিৎসার খবর সে জানাতে থাকে৷ এত নিঁখুতভাবে সেই সব তথ্য দিত টোনি যে, কোনও দিনও তার বন্ধুদের সন্দেহ পর্যন্ত হয়নি৷

এরপর টোনির বাবার ক্যান্সার ধরা পড়ে৷ বন্ধুদের সে জানায় যে তার বাবার শেষ ইচ্ছা মেয়ের বিয়ে দেখে যাওয়া৷ এরপর টোনির বিয়ের জন্য টাকা তোলার ব্যবস্থা করেন তার বন্ধুরা (GoFundMe)৷ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে সেই তথ্যও উঠে আসে৷ টোনির কঠিন শরীর খারাপ সহ তার বিয়ের জন্য টাকা তোলার ব্যবস্থা সহ সব খবরে দর্শকের চোখে জল আসে৷ ক্যান্সারের চিকিৎসার ফলে টোনির চুল উঠে যাওয়া মাথা দেখে সহানুভুতি দেখাতে শুরু করেন বহু মানুষ৷

তবে বিয়ের পর ধীরেধীরে টোনিকে নিয়ে সন্দেহ শুরু হয় বন্ধুদের এবং একটি ফোন কলে তাঁরা বুঝতে পারেন যে পুরোটাই মিথ্যে! ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার কথা কেন বন্ধুদের বলেছেন টোনি, সেটা জানা যায়নি, কিন্তু বন্ধুরা তাকে প্রশ্ন করতে শুরু করেন৷

আদালতে বিচারক জানান যে, এই মহিলা সকলের সঙ্গে মিথ্যাচার করেছে৷ বিশেষ করে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে যে সকলকে বোকা বানিয়েছে৷ সকলে তাকে সাহায্যর জন্য টাকা দিলেও, মূলত সেই টাকা ব্যবহার করা হয়েছে বিয়ে এবং ছুটি কাটাতে৷ ইতিমধ্যেই সেই টাকার বড় অংশ ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক এবং ৫ মাসের জেল হয়েছে টোনি স্ট্যানডনের৷

Published by: Pooja Basu
First published: December 23, 2020, 1:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर