corona virus btn
corona virus btn
Loading

এক্স বয়ফ্রেন্ডকে ফাঁসাতে যৌনাঙ্গ আঠা দিয়ে সেঁটে পুলিশের কাছে হাজির যুবতী

এক্স বয়ফ্রেন্ডকে ফাঁসাতে যৌনাঙ্গ আঠা দিয়ে সেঁটে পুলিশের কাছে হাজির যুবতী

এমনও করতে পারে কেউ, সেটা এখনও বিশ্বাস করতে উঠতে পারছেন না

  • Share this:

#‌মাদ্রিদ:‌ অবাক করা ঘটনা বললেও কম বলা হয়। এমন ঘটনা খুব একটা দেখা যায় না। খুব জোর কী শোনা যায়, প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকাকে শিক্ষা দিতে কেউ মিথ্যে অভিযোগ করে, কেউ খুন খারাপি পর্যন্ত করে বসে। কিন্তু নিজের ক্ষতি করে উল্টে প্রেমিককে ফাঁসানোর অদ্ভুত পরিকল্পনা কেউ করে নাকি?‌ কিন্তু তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে। স্পেনের বেমবিমব্রে শহরে। সেই ঘটনা দেখে পুলিশ পর্যন্ত থতমত খেয়ে গিয়েছে। এমনও করতে পারে কেউ, সেটা এখনও বিশ্বাস করতে উঠতে পারছেন না তাঁরা। একটি সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে সব সত্যি সামনে এলেও কোথাও যেন অবাক হওয়া শেষ হচ্ছে না।

কী ঘটেছিল?‌ এই শহরে থাকেন ৩৬ বছরের একটি মহিলা। যাঁর প্রাক্তন প্রেমিকের নাম ইভান রিকো। তাঁকে ঘিরেই যত অভিযোগ করার করেন ওই মহিলা। তিনি পুলিশের কাছে গিয়ে বলেন, ইভান তাঁকে তাঁর বাড়ির সামনে থেকে অপহরণ করেছে। এবং তাঁরপর শারীরিক অত্যাচার করে অর্ধনগ্ন অবস্থায় রাস্তার জঙ্গলের পাশে ফেলে রেখে দিয়ে গিয়েছে। শুধু তাই নয়, এমনই পাশবিক অত্যাচার সে করেছে, যে মেয়ের যৌনাঙ্গে আঠা দিয়ে আটকে দিয়েছে সে। পুলিশের কাছে তেমনই অভিযোগ করেছিলেন ওই মহিলা। কিন্তু পরে দেখা গেল, সবটাই বানানো।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ভেনেসা ঘেস্তো না ওই মহিলা নিজেই নিজের জন্য ছুরি আর আঠা কিনছেন। তাই দেখে পুলিশের সন্দেহ হওয়ায় তাঁরা মহিলার দাবি ভালো করে খতিয়ে দেখার চেষ্টা করেন। সেখানেও সিসিটিভি ফুটেজের সাহায্য নেওয়া হয়। দেখা যায়, ওই মহিলা যেখান দিয়ে কালো গাড়ি যাওয়ার দাবি করেছিলেন, সেখান দিয়ে সেই সময়ে কোনও কালো গাড়ি যায়নি। এরপর ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বেশ কয়েকদিন ধরে জেরার পর মহিলা স্বীকার করেন, যে তিনি ইচ্ছা করে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। তাঁর প্রাক্তন প্রেমিককে ফাঁসাতে। আদালত এই ঘটনায় একন নির্দোষ মানু্ষকে ফাঁসানোর অভিযোগে ওই মহিলাকে দশ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। এছাড়াও, প্রাক্তন প্রেমিকের মানহানী করার জন্য ক্ষতিপূরণ বাবদ ২৫ হাজার ইউরো দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: September 7, 2020, 1:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर