Home /News /international /
Viral News: ‘এই’ পবিত্র গাছের নিচে দাঁড়িয়ে নগ্ন ফটোশ্যুট, তারপর মহিলা পড়লেন বড় বিপদের মুখে

Viral News: ‘এই’ পবিত্র গাছের নিচে দাঁড়িয়ে নগ্ন ফটোশ্যুট, তারপর মহিলা পড়লেন বড় বিপদের মুখে

Woman clicked vulgar photo under sacred tree in Bali in Indonesia

Woman clicked vulgar photo under sacred tree in Bali in Indonesia

দেখে নিন ভাইরাল নিউজ হওয়া সেই মহিলার ‘এই’ ভিডিও

  • Share this:

    #বালি: প্রত্যেক মানুষ নিজের জীবনে এমন জিনিস খোঁজে যাতে অটুট আস্থা ও বিশ্বাস জরুরি হয়৷ এই জিনিসগুলিতে এতটা পবিত্রতা মানা হয় তার বিষয়ে কখনও খারাপ জিনিস ভাবা হয় না৷ এমন অবস্থায় কোনও জায়গার অপমান করা নিয়ে জোর বিবাদ তৈরি হয়ে যায়৷ আসলে এই অবস্থায় রাশিয়ান মহিলার সঙ্গে হয়েছে৷  ইন্দোনেশিয়া স্থিত একটি পবিত্র গাছকে (Woman clicked vulgar photo under sacred tree in Bali, Indonesia) অপমান করেন, যার পরে তাঁকে কঠোর সাজা মেলে৷

    দ্য সান ওয়েবসাইটের রিপোর্ট অনুযায়ি রাশিয়ার যোগা ট্রেনর (Russian yoga trainer vulgar photo under holy tree) অলিনা যোগা ইনস্টাগ্রামে অত্যন্ত জনপ্রিয়৷ তাঁর অ্যাকাউন্টে ১৭ হাজার ফলোয়ার্স রয়েছে৷ যাঁরা যোগা শেখাতে পারে৷ তিনি লাইফস্টাইলের সঙ্গে যুক্ত জিনিস শেয়ার করে৷ সম্প্রতি আলিনা একটা বড় বিপদের মধ্যে ফেঁসে গেছেন৷ যার পর তাঁকে ক্ষমা চাইতে হয়েছে৷

    আরও পড়ুন - দুঃসংবাদ, ১০০ বছরের ‘এই’ ব্যাঙ্ক নিজেদের ১৩ শতাংশ ব্র্যাঞ্চ বন্ধ করে দিচ্ছে

    দেখে নিন ভাইরাল নিউজ হওয়া সেই মহিলার ‘এই’  ভিডিও

    View this post on Instagram

    A post shared by @alina_yogi

    পবিত্র গাছের নীচে তোলালেন অশ্লীল ফটো

    বালির বাবকান মন্দিরে (Babakan Temple, Bali) ৭০০ বছরের পুরনো একটি গাছে (Yoga trainer vulgar photo under 700 year old tree)  যাকে লোক কায়ু পুটি বলে৷ এই গাছে লোকের আস্থা যুক্ত৷ আর ধার্মিক গাছ হিসেবে পুজো করা হয়৷ কিন্তুআলিনা বিভিন্ন মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগকে আঘাত দিয়েছেন৷  তিনি ওই ধর্মীয় গাছের নিচে দাঁড়িয়ে অশ্লীল ফটোশ্যুট (Woman vulgar photoshoot in Indonesia) করেছেন৷ তাঁর সেই ফটো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে৷ যখন এই ফটো একবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে৷

    সেই পবিত্র গাছের নিচে প্রায় নগ্নতায় মোড়া ছবি শেয়ার করেন৷ এই ব্যবসায়ী এই ছবি দেখার পর দ্রুত প্রশাসনের কাছে ওই মহিলার নামে অভিযোগ দায়ের করেন৷ আর মহিলাকে গ্রেফতার করার দাবি জানান৷

    এরপর থেকে মহিলার ওপর গ্রেফতারির খাঁড়া ঝুছে৷ বালির মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর নিন্দায় মুখর হন৷ বিবাদ এত বেড়ে যায় যে সোশ্যাল মিডিয়া আলিনাকে ক্ষমা চাইতে হয়৷ তিনি একটা সাদা কাপড় পড়ে গাছের কাছে বসে তাঁর পুজো করেন৷ এখনও যদি আলিনার ওপর ওঠা অভিযোগ সত্যি প্রমাণিত হয় তাহলে তাঁর ৬ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫২ লক্ষ টাকা জরিমানা অবধি হতে পারে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published:

    Tags: Crime, Woman

    পরবর্তী খবর