বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৮৫ বছরের বাড়ি 'পায়ে হেঁটে' চলে গেল অন্য জায়গায়, ভিডিও দেখলে চমকে উঠবেন

৮৫ বছরের বাড়ি 'পায়ে হেঁটে' চলে গেল অন্য জায়গায়, ভিডিও দেখলে চমকে উঠবেন

ইতিহাসকে সংরক্ষণ করতে ৮৫ বছরের আস্ত এক বিল্ডিংকেই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হল

  • Share this:

#চিন: স্পেস এগ আকার থেকে চায়ের পাত্রের আকারের বিল্ডিং তৈরি। স্থাপত্য ও নির্মাণকার্যে একের পর এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ করেছে চিন। প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে অসম্ভবকে করেছে সম্ভব। এ বার আর এক নজির গড়ল এই দেশ। ইতিহাসকে সংরক্ষণ করতে ৮৫ বছরের আস্ত এক বিল্ডিংকেই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হল।

আসলে বর্তমানে যেখানে স্কুলটি রয়েছে, সেখানে একটি নতুন নির্মাণ গড়ে উঠবে। তা বলে কি এত পুরনো বিল্ডিং ভেঙে দেওয়া যায়? তাই প্রাচীন স্থাপত্যকে বাঁচাতে, বিল্ডিংটিকে সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কী ভাবে সরানো হচ্ছে এই বিল্ডিংকে? এই প্রোজেক্টের চিফ টেকনিক্যাল সুপারভাইজার লান ইউজি জানিয়েছেন, এই প্রোজেক্টে কর্মরত ইঞ্জিনিয়াররা পাঁচতলা বিল্ডিংটির নিচে প্রায় ২০০টি মোবাইল সাপোর্ট ডিভাইজ বসিয়েছে। এগুলি রোবোটিক লেগ হিসেবে কাজ করবে। এ ক্ষেত্রে দু'টি দলে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে সমস্ত রোবোটিক লেগ ডিভাইজকে। এরা মানুষের মতোই ক্রমপর্যায়ে পা ওঠা-নামা করে এগিয়ে যাবে।

রোবোটিক লেগে লাগানো সেন্সরগুলি বিল্ডিংয়ের গতিবিধিকে নিয়ন্ত্রণ করবে। এ ক্ষেত্রে ১৯৮টি মোবাইল সাপোর্ট রোবোটিক লেগ ইনস্টল করতে বিল্ডিংয়ের চার দিকে অনেকটা গভীর গর্ত খুঁড়তে হয়েছে। তার পর তার পিলারগুলিকে খুঁজে বের করে যথাযথ ভাবে রোবোটিক লেগগুলি ইনস্টল করতে হয়েছে। ইতিমধ্যেই বিল্ডিং সরানোর প্রাথমিক কাজ শেষ হয়ে গেছে। জানা গিয়েছে যে বিল্ডিংটিকে তুলে ২১ ডিগ্রি ঘোরাতে ও নতুন স্থানের দিকে ৬২ মিটার পর্যন্ত সরাতে সময় লেগেছে ১৮ দিন। শহরের ঐতিহাসিক নির্মাণকে বাঁচিয়ে রাখতেই এই প্রচেষ্টা বলে জানাচ্ছে প্রশাসন। এ বিষয়ে হুয়াংগপু ডিস্ট্রিক্ট গভর্নমেন্টের তরফে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে যে ১৯৩৫ সালে এই লাজেনা প্রাইমারি স্কুল তৈরি করেছিল সাংহাইয়ের প্রাক্তন ফ্রেঞ্চ কনসেশনের মিউনিসিপ্যালিটি বোর্ড। বর্তমানে শহরের প্রশাসন এই জায়গায় একটি নতুন অফিস কমপ্লেক্স করতে চায়। আর সেই সূত্রেই জায়গা খালি করতে এই বিল্ডিংকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এই কাজ আগামী তিন বছরের মধ্যেই সম্পূর্ণ হবে। পুরনো স্কুলটিকে হেরিটেজ বিল্ডিং করে দেওয়া হবে।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: October 31, 2020, 8:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर