Viral| জলের তলায় মুখোমুখি দুই হিংস্র প্রাণী! কুমীর-শার্কের রুদ্ধশ্বাস ভিডিও থেকে চোখ সরানো যাবে না

দুই প্রাণীর আকার এবং আগ্রাসন দেখার মতো। একই সঙ্গে, শক্তির দিক থেকে উভয়ই একে অপরের চেয়ে কম নয়।

দুই প্রাণীর আকার এবং আগ্রাসন দেখার মতো। একই সঙ্গে, শক্তির দিক থেকে উভয়ই একে অপরের চেয়ে কম নয়।

  • Share this:

    #সিডনি: সিনেমা হোক বা বাস্তব, যদি সমানভাবে দু'জন শক্তিশালী মানুষ একে অপরের সামনে আসে, তবে কিছুক্ষণের জন্য যেন পরিবেষ স্তব্ধ হয়ে যায়। কে কার ওপর আধিপত্য করবে তা দেখার জন্য মুখিয়ে থাকি আমরা৷ চলে ধুন্ধুমার লড়াইয়ের প্রত্যাশা। অস্ট্রেলিয়ার কুনুনুরার কাছাকাছি এক জায়গা থেকে এমনই একটি দৃশ্য উঠে এসেছে। এখানে দুটি মাছ মারতে যাওয়া দুই প্রাণী ড্রোন ক্যামেরায় ধরা পড়েছে৷ একটি বিশাল বড় কুমির এবং অন্যটি বুল শার্ক (Giant Crocodile and Bull Shark)৷

    দুই প্রাণীর আকার এবং আগ্রাসন দেখার মতো। একই সঙ্গে, শক্তির দিক থেকে উভয়ই একে অপরের চেয়ে কম নয়। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জলে প্রাণীদের নড়াচড়া পরখ করতে দুই মৎসজীবী একটি ড্রোন ক্যামেরা (Drone Camera) বসিয়েছিলেন। যার মধ্যে তিনি এই ভিডিও উঠে এসেছে।

    চেলসি এবং ব্রাইস কুনুনুরার ইভানহো ক্রসিংয়ের কাছে মাছ ধরছিলেন। সত্যিই কী জল এত শান্ত, তা জানতে চেয়েছিলেন মাছ ধরতে আসা দু’জন৷ তা জানতে দুজনেই ড্রোন ক্যামেরার ব্যবহার করেন। কিছুক্ষণ পর যখন রেকর্ডিংয়ে দেখা যায় যে, বিশালাকার কুমির এবং বিপজ্জনক ষাঁড় হাঙ্গর একে অপরের সামনে রয়েছে।

    তবে আশানুরূপ, কিছুই ঘটেনি। ভিডিওতে এটি পরিষ্কারভাবে দেখা যায় যে কুমির এবং হাঙ্গর কিছুটা দূরে মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে। ষাঁড় হাঙর কুমিরের কাছাকাছি পৌঁছে গেলেও,আক্রমণ করল না এবং কিছুদূর আগে তারা আলাদা পথ বেছে নেয়। দুটি প্রাণীর এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাত্মকভাবে ভাইরাল হয়েছে।

    আসলে এই ভিডিওটি ইউটিউবে ১১ নভেম্বর প্রথম আপলোড করা হয়েছিল। ভিডিওয়ে বর্ণনায় দেওয়া তথ্য অনুসারে, এই ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার কিম্বারলে অঞ্চলের কাছে। এখনও পর্যন্ত ১ লাখের ওপর ভিউ এসেছে ভিডিওটির৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: