Home /News /international /

Viral Video:ক্যামেরার সামনে একে একে পোশাক ছাড়লেন শিক্ষিকা, পোস্ট করলেন উত্তেজক ভিডিও, ভাইরাল হতেই বরখাস্ত স্কুল থেকে

Viral Video:ক্যামেরার সামনে একে একে পোশাক ছাড়লেন শিক্ষিকা, পোস্ট করলেন উত্তেজক ভিডিও, ভাইরাল হতেই বরখাস্ত স্কুল থেকে

নিজের উত্তেজক ভিডিও পোস্ট করলেন শিক্ষিকা

  • Share this:

    কী কাণ্ড! খোদ শিক্ষিকাই এমন কাজ করলেন, মুখ লোকানোর জায়গা খুঁজছে স্কুল কর্তৃপক্ষ! ক্যামেরার সামনে একে একে পোশাক খুলে, অশ্লীল ভিডিও শ্যুট করলেন শিক্ষিকা (Viral Video)! এখানেই শেষ নয়! সেই উত্তেজক ভিডিও আপলোড করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, ভিডিও ভাইরাল হতেই স্কুল কর্তৃপক্ষ নড়েচড়ে বসে, শিক্ষিকা অপসারণের দাবি তোলেন ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরাও, অথচ বিন্দুমাত্র হেলদোল নেই খোদ শিক্ষিকার! নিজের কীর্তিতে তিনি এতটুকু লজ্জিত নন! বরং তাঁর ভাব যেন, ' যা করেছি, বেশ করেছি, এটা আমার জীবন (Viral Video)!'

    আরও পড়ুন:পোষ্য বাঁদরকে টয়লেটে ফেলে ফ্লাশ ! হাজতবাস এবং জরিমানা মহিলার

    ২৩ বছরের স্কুল শিক্ষিকা ভিক্টোরিয়া কাশিরিনা নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন নিজের 'স্ত্রিপটিজ'-এর একটি ভিডিও (Viral Video)। ভিডিওতে দেখা যায়, বাড়ি ফিরে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে ঘি-রঙা ওভারকোট-টি খুলছেন কাশিরিনা। একে একে বাকি পোশাকও খুলতে থাকেন এবং সবটাই করেন ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে, ক্যামেরা চালু রেখে। তারপর অন্তর্বাস পরে উত্তেজক সমস্ত অঙ্গভঙ্গি করতে থাকেন, ঠিক যেমন পর্ন ছবির নায়িকারা করে থাকেন। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই চোখের পলকে ভাইরাল ! প্রথমে এক অভিভাবকের নজরে আসে, সেখান থেকেই স্কুলের বাকি অভিভাবকদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি (Viral Video)! শিক্ষিকার কীর্তি দেখে তো তাঁদের চোখ ছানাবড়া! 'তাঁদের ছেলেমেয়েরাও কি এই শিক্ষাই পাবে?' এই অভিযোগ জানিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের দ্বারস্থ হন অভিভাবক মহল। ওঠে শিক্ষিকা বরখাস্তের দাবি! স্কুলের প্রিন্সিপালও আর রাখতে চান না কাশিরিনাকে!

    আরও পড়ুন:মেয়ের পরিচয়পত্র চুরি করে ছাত্রী সেজে কলেজের ছেলেদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুললেন মা; হাজতবাসের সঙ্গে গুনতে হল জরিমানা!

    তবে স্কুলের এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন Novosibirsk State University of Education-এর মেধাবী ছাত্রী কাশিরিনা। জানিয়েছেন, অতিমারী পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই আদালতের দ্বারস্থ হবেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কে কী পোস্ট করবে, তা কখনও অন্য কেউ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। তাঁর ভাষায়, তিনি কোনও অপরাধ করেননি। অনেকদিন ধরেই পোল ডান্স শিখছেন। এরকম একটা ভিডিও বানানোর ইচ্ছে ছিল বহুদিন, অবশেষে তা হল। তিনি এও বলেন, এক ছাত্রীর মা তাঁকে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিতে বলেন, তিনি সেই মহিলা ও তাঁর মেয়ে, দুজনেই ব্লক করেছেন।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Viral Video

    পরবর্তী খবর